কৃষি

ভারতীয় গরু বাজারে চান না খামারিরা

  

পিএনএস ডেস্ক: ভারতীয় গরু আমদানি না হলে লাভের মুখ দেখবে কিশোরগঞ্জের ভৈরবের গরুর খামারিরা। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে প্রতি বছরের মতো এবারও গড়ে ওঠেছে কয়েক হাজার মৌসুমী পশুর খামার।উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরে হিসাবে মতে, এই খামারের সংখ্যা তিন হাজারের কিছু বেশি। ওইসব খামারে দেশি, নেপালি, সিন্ধি, শংকর জাতীয় গরুসহ মহিষ ও ছাগল পালন করা হচ্ছে। আর ওইসব খামারের পশুকে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে দেশীয় খাবার খড়, খৈল, ভূষি, গুঁড়ের চিটা, লবণ, চাল-ডালের ছোলা-গুড়াসহ চাষ করা লিপিয়ার ঘাস খাওয়ানো হচ্ছে। ব্যবহার

মাদারীপুরে পাট চাষে লোকসান

  

পিএনএস ডেস্ক: ‘চার বিঘা জমিতে দেশি পাটের আবাদ করেছিলাম। জমিতে পাটের চারা থাকা অবস্থায় অতি বৃষ্টিতে চারা পানিতে তলিয়ে ছিল। তাই পাট গাছ বেশি বড় হতে পারেনি। এই বছর পাটের ফলনও খুব খারাপ।’ এবছর পাট চাষে দিশেহারা হয়ে এভাবেই বলেছিলেন মাদারীপুর সদর উপজেলার কুনিয়া গ্রামের পাটচাষি জাহাঙ্গীর শরীফ।পাটচাষে এবছর এমন পরিস্থিতি শুধু জাহাঙ্গীর শরীফেরই নয়। একই ধরনের অবস্থা জেলায় কয়েক হাজার পাটচাষির। বিরূপ আবহাওয়ার কারণে এবার মাদারীপুরে পাটের ফলনে বিপর্যয় ঘটেছে। এতে কৃষকের মাথায় হাত পড়েছে। উঁচু জায়গায় পাট

চিরিরবন্দরে আউশ মৌসুমে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে নেরিকা জাতের ধান

  

পিএনএস, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ তথ্য প্রযুক্তি উন্নয়নে ক্ষুধামুক্ত স্বনির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের অঙ্গিকারে কৃষিক্ষেত্রের স্বর্ণ সময়ে প্রবেশ করেছে ইতিহাস ঐতিহ্যের শস্যভান্ডার নামে খ্যাত কৃষিতে স্বনির্ভর বৃহত্তর জনপদ দিনাজপুরের চিরিরবন্দর।জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় কৃষক যখন সেচ নিয়ে চিন্তিত ঠিক সেই সময়ে দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে মাঠে মাঠে শোভা পাচ্ছে খরা সহিষ্ণু স্বল্প জীবনকালের উচ্চ ফলনশীল ধান ‘নেরিকা মিউট্যান্ট’। বিষমুক্ত খাদ্য

সুন্দরগঞ্জে আউশ ধানের বাম্পার ফলন হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি

  

পিএনএস, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে এবারে রেকর্ড পরিমাণ আউশ ধানের চাষ হয়েছে। আশানুরূপ উৎপাদন আর বাজার দরে অধিক লাভজনক হওয়ায় কৃষকদের মূখে হাসি ফুটেছে। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভায় অবস্থিত ফসলের মাঠে রয়েছে আউশ ধানের ক্ষেত। ইতোমধ্যে অধিকাংশ জমির ধান কাটা- মাড়াই সম্পন্ন হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বোরো ও আমণ ক্ষেতের মতোই কৃষক- কৃষাণীরা এ মৌসূমের কাজ করছেন। বর্ষাকালে চাষ হয় বলে তাঁরা এ ধানকে বলেন- 'বর্ষালী ধান'। রোরো ও আমণ ধানের মধ্যবর্তী সময়ে এ ধান চাষে

শেরপুরে টানা চারদিনের বৃষ্টিতে কর্মব্যস্ত আমন চাষিরা

  

পিএনএস, শেরপুর (বগুড়া) সংবাদদাতা : টানা চারদিনের বৃষ্টিতে কর্মব্যস্ত হয়ে পড়েছেন বগুড়ার শেরপুর উপজেলার আমন চাষিরা। জমি প্রস্তুত ও আমন চারা লাগানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। চাষিরা জানান, প্রকৃতি রুক্ষ মেজাজ ধারণ করেছে। মেঘ হলেও বৃষ্টির তেমন একটা দেখা মিলছেনা। আবার হঠাৎ বৃষ্টি ঝরলেও যেন কয়েক ফোটা পড়েই তা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ফলে কাঙখিত বৃষ্টির দেখা নেই। এরইমধ্যে বর্ষা মৌসুমের অর্ধেক চলে গেছে। কিন্তু বৃষ্টিপাত না হওয়ায় পানির অভাবে জমি প্রস্তুত ও আমন চারা লাগানো নিয়ে তারা দুশ্চিন্তায় ছিলেন।

অনাবৃষ্টির কারণে আমন চাষে কৃষকের মাথায় হাত

  

পিএনএস, সুন্দরগঞ্জ(গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : অনাবৃষ্টির কারণে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় আমন চাষাবাদ ব্যাহত হয়ে পড়েছে। নির্ধারিত সময়ের ২০দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও কোন প্রকার বৃষ্টি বাদল না থাকায় আমন ক্ষেতে চারা রোপন করা সম্ভব হচ্ছে না। দীর্ঘদিন থেকে বৃষ্টি না থাকায় আমন চাষাবাদের জমি ফেটে চৌচির হয়ে গেছে। যার কারণে কৃষকরা মাথায় হাত দিয়ে বসেছে। ইতিমধ্যে অনেক কৃষক সেচের মাধ্যমে আমন চাষাবাদ শুরু করেছে। চারা রোপন করতে না পাড়ায় বীজতলা নিয়ে বিপাকে পড়েছে কৃষকরা। নির্ধারিত সময় মোতাবেক ১ জুলাই হতে ১৫ আগষ্টের

মহাদেবপুরে ফসল রক্ষায় কাকতাড়ুয়া

  

পিএনএস, নওগাঁ প্রতিনিধি : যাবার পথে কালো বিড়াল অতিক্রম করলে যাত্রা অশুভ হবে। পরীক্ষার আগে ডিম খেলে ফলাফল খারাপ হবে। গ্রামাঞ্চলে এখনো মায়েরা ছোট্ট শিশুর কপালে কালো টিপ এঁকে দেন, যাতে কারো নজর না লাগে। বিজ্ঞানের যুগেও এমন অদ্ভুত বিশ্বাসের লোকের অভাব নেই গ্রামীণ জনপদে। তেমনই এক আত্মবিশ্বাস নিয়ে কৃষকরা ক্ষেতের ফসল বাঁচাতে কাকতাড়ুয়া (মানুষের প্রতীক) ব্যবহার করছে। কৃষকদের বিশ্বাস, কাকতাড়ুয়া স্থাপন করলে ক্ষেতের ফসল দেখে কেউ ঈর্ষা করবে না বা ফসলে কারো নজর লাগবে না। ফসল ভাল হবে। আর মিলবে আশানুরূপ ফসল

নবাবগঞ্জে শ্রাবনেও কাঙ্খিত বৃষ্টি না হওয়ায় ফসলের মাঠে চড়ছে গরু-ছাগল

  

পিএনএস, নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা এলাকায় বর্ষা মৌসুমের শ্রাবন মাসেও কাঙ্খিত বৃষ্টি না হওয়ায় আমন ফসলের মাঠে চড়ছে গরু-ছাগল। বৃষ্টির অভাবে কৃষকেরা মাঠে জমি প্রস্তুত করতে পারছে না। তারা জানায় আমন ফসল সময় মত রোপন করা নিয়ে শংকিত। তাদের ভাষায় মাঠে পানি না থাকায় জমি ঠিক করা যাচ্ছে না। এদিকে জমি রোপনে দেরি হওয়ার কারনে বীজের বয়স বেড়ে যাচ্ছে। মাঠে পানি থাকলে এ সময় জমি রোপন করাই এক প্রকার শেষ হয়ে যেত। তবে উপজেলার অনেক এলাকায় কৃষকেরা সুবিধা থাকায় সেচ দেয়ার মাধ্যমে জমি

গরু মোটাতাজা করার পদ্ধতি

  

পিএনএস ডেস্ক : সামনে আসছে কোরবানির ঈদ। তাই গরু মোটাতাজা করার বিষয়টি নিয়ে অনেকেরই আগ্রহ রয়েছে। মোটাতাজা গরু বিক্রি করা লাভজনক। কম সময় ও কম পুঁজিতে গরু মোটাতাজা করার পদ্ধতি রয়েছে। তবে তা সময়মতো করতে হবে। আসুন জেনে নেই সে সম্পর্কেই-মোটাতাজা করার সুবিধা১. অল্প সময়ে (৪-৬ মাস) বেশি মুনাফা অর্জন করা যায়।২. মূলধন বা পুঁজি দ্রুত ফেরত আসে।৩. আর্থিক ক্ষতির ঝুঁকি কমে যায়।৪. খরচের তুলনায় লাভ হয় বেশি।৫. বেকারত্ব ও দরিদ্রতা দূর করা যায়।৬. রোগব্যাধি কম হয়।মোটাতাজা করার সময়বছরের প্রায় সব

বেগুনি পাতা ধান চাষে দুলালী বেগমের বাম্পার ফলন

  

পিএনএস, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) : গত মৌসুমে রামজীবন ইউনিয়নে কৃষি অফিসের তত্ত্বাবধানে নতুন বেগুনি পাতা ধান চাষ করে দুলালী বেগম ভাল ফলন পেয়েছে। ধানটি সম্পর্কে কৃষি অফিস বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেছে। এই ধানের অন্য বৈশিষ্ট্য দেখার জন্য উপজেলা কৃষি অফিসার স্থানীয় এক চাষীর জমি লিজ নিয়ে আমন মৌসুমেও এই ধান চাষ করার জন্য ইতোমধ্যেই বীজতলা তৈরি করেছেন। চারার বয়স ৩০ দিন হলে জমিতে রোপন করা হবে বলে কৃষি অফিস নিশ্চিত করেছেন। গত বৃহস্পতিবার আমন বীজতলা রোপন ভাল হওয়ায় জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার শওকত ওসমান ও

Developed by Diligent InfoTech