কৃষি

কৃষক বঞ্চিত হবে না জানালেন কৃষিমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : কৃষকরা যাতে কোনোরকম অসুবিধা না পড়েন সেজন্য সরকার নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। বিশেষ করে এবার আগের তুলনায় বোরো ধান কেনার পরিমাণ যেমন বাড়ানো হয়েছে তেমনি সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার বিষয়টিও নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ নিয়েছে।কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বর্তমান উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কৃষকদের স্বার্থ সুরক্ষায় সরকার কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে। এক্ষেত্রে যাতে কোনো মধ্যস্বত্বভোগী থাকার সুযোগ নেই। সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকেই ধান কেনা হবে। কৌশল

শ্রমিক সংকট : ভেসে যাচ্ছে কাটা ধান

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনার ছোবলে বোরো ধান কাটতে শ্রমিক সংকট চলছে। শ্রমিক মিললেও গুণতে হচ্ছে অধিক পারিশ্রমিক। তা সত্ত্বেও কৃষকরা ধান কাটতে পারলেও ঘরে তুলতে পারেনি। তৈরি হয়েছে নতুন সংকট। শুকানোর জন্য কেটে রাখা ধান এখন মাঠেই নষ্ট হতে বসেছে। অসময়ের বৃষ্টিতে ভেসে যাচ্ছে কাটা ধান।এদিকে, খুলনায় টানা চার দিনের প্রবল বর্ষণে কৃষকের ধান নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি বিছালিতেও (ধান গাছ-গরুর খাবার) পচন ধরতে শুরু করেছে। ফলে একদিকে, কৃষক পরিবার ও গবাদি পশুর খাবারেরও সংকটের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।জানা গেছে, অতি বর্ষণে

পরিকল্পিত ডিম সংগ্রহে 'হালদা কার্ড'

  

পিএনএস ডেস্ক: প্রাকৃতিক মৎস্যপ্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদী থেকে ডিম সংগ্রহকারীদের প্রথমবারের মত তৈরি করা হচ্ছে তালিকা। তাদেরকে দেওয়া হবে হালদা কার্ড। হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন এ তালিকা তৈরি করছে।অন্যদিকে, প্রাকৃতিক পরিবেশ ইতিবাচক হওয়ায় হালদা নদীতে বেড়েছে মা-মাছের আনাগুনা। ফলে ডিম সংগ্রহকারীরাও উৎসুক হয়ে অপেক্ষায় আছেন। তাছাড়া এবার ডিম সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াকরণ করতে তিনটি ইউনিয়নে তৈরি করা হয়েছে প্রায় ৬০টি বড় আকারের কুম (কুয়া) এবং তিনটি হ্যাচারি। হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রুহুল

হাঁসের সঙ্গেও শত্রুতা!

  

পিএনএস ডেস্ক: ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার পল্লীতে রোববার পরিত্যক্ত একটি ডোবায় নেমে ৩০০ হাঁস মারা গেছে। এছাড়া মরনাপন্ন আরও প্রায় ১২০০ হাঁস। হাঁসগুলোর মালিক উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের ঘোষপালা গ্রামের মিজানুর রহমান। তার অভিযোগ, প্রতিবেশী কাশেমের একটি ডোবায় নামার কিছুক্ষণ পরেই হাঁসগুলো মারা যায়। কেউ শত্রু করে ডোবার পানিতে বিষ প্রয়োগ করে হাঁসগুলোকে মেরেছে।মিজান জানান, একদিন বয়সের খাকি ক্যাম্পবেল জাতের দেড় হাজার বাচ্চা দিয়ে তিনি হাঁস পালন শুরু করেন। যার মূল্য ছিল প্রায় লাখ টাকা। বর্তমানে এসব

হাওরের ৪৪ শতাংশ ধান ইতোমধ্যে ঘরে উঠেছে: কৃষিমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক: কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, কৃষি মন্ত্রণালয়ের নানান উদ্যোগের ফলে হাওরের কৃষকরা ভালোভাবে ধান কাটতে পারছে, ইতোমধ্যে ৪৪ শতাংশ ধান ঘরে তুলতে পেরেছে। অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাত বা আগাম বন্যা না হলে যে গতিতে ধান কাটা চলছে, আমরা আশাবাদী হাওরের কৃষকেরা সময়মতো ধান ঘরে তুলতে পারবে। শনিবার সরকারি বাসভবন থেকে এক ভিডিও বার্তায় এসব কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী। এসময় তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় প্রশাসন, জেলা পুলিশ, স্বাস্থ্য বিভাগ এবং জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন কৃষি বিভাগকে ধন্যবাদ

বর্তমান সরকার ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের পাশে আছে : পলক

  

পিএনএস ডেস্ক: তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, চলনবিল কৃষি প্রধান এলাকা। এই বিলের ধান সারাদেশের চাহিদার কিছু অংশ পূরণ করে। শিলাবৃষ্টির কারণে এলাকার কৃষকদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ধৈর্য ও সহনশীলতার সাথে ক্ষতি মোকাবেলা করতে হবে।গত বুধবার সিংড়ার তিনন ইউনিয়নের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড় ও শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে আজ শনিবার নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বর্তমান সরকার কৃষকদের পাশে আছে, থাকবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, মানসিকভাবে আমাদের

বোরো ধানের লাভজনক দাম নিশ্চিতের দাবি

  

পিএনএস ডেস্ক: মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) এক যুক্ত বিবৃতিতে দেশের প্রায় দুই কোটি কৃষকের জন্য পাঁচ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনাকে ‘নিতান্ত অপ্রতুল’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন বাংলাদেশ বিপ্লবী কৃষক সংহতির সভাপতি আনছার আলী দুলাল ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক সাহাদাৎ হোসেন।তারা বলেছেন, এই প্রণোদনার টাকা প্রকৃত কৃষকের কাছে কীভাবে পৌঁছাবে তাও নিশ্চিত নয়। তারা কৃষি, মৎস্য ও দুগ্ধ খামারসহ গ্রামীণ খাতে জরুরি ভিত্তিতে ৩০ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা এবং সরাসরি তা উৎপাদকের কাছে পৌঁছানোর দাবি

নাঙ্গলকোটে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

  

পিএনএস ডেস্ক: চলমান করোনা পরিস্থিতিতে এবার কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের গ্রামীণ জনপদে শ্রমিক সঙ্কটে পড়া কয়েকজন কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে ‘সোস্যাল হেল্প অর্গানাইজেশন’ নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। আজ মঙ্গলবার উপজেলার আদ্রা দক্ষিণ ইউনিয়নের তুগুরিয়া গ্রামের সমস্যাগ্রস্ত কৃষকের ধান কেটে দেন তারা। তাদের এমন মানবিক উদ্যোগ বেশ সাড়া জাগিয়েছে।জানা যায়, করোনা পরিস্থিতিতে উত্তরবঙ্গের শ্রমিক না আসায় বড় তুগুরিয়া গ্রামের কয়েকজন কৃষক শ্রমিক সংকটের কারণে পাকা ধান কেটে ঘরে তুলতে পারছিলেন না। কৃষকদের

নেত্রকোনার হাওরে ধানকাটা পরিদর্শন করলেন কৃষিমন্ত্রী

  

পিএনএস : চলতি বছর বোরো মৌসুমে মণ প্রতি ১ হাজার ৪০ টাকা দরে সারাদেশ থেকে ৮ লাখ মেট্রিক টন ধান কিনবে সরকার। এ উপলক্ষে নেত্রকোনায় হাওরে ধানকাটা পরিদর্শন করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।বৃহস্পতিবার দুপুরে নেত্রকোনার মদন উপজেলার গোবিন্দ শ্রী হাওরে ধানকাটা পরিদর্শনে আসেন তিনি।এ সময় কৃষকদের সাথে ধানের বাম্পার ফলন ও দর নিয়ে আলোচনা করেন কৃষিমন্ত্রী। পরে বর্তমান দুর্যোগের মাঝেও বিভিন্ন স্থান থেকে ধান কাটতে আসা শ্রমিকদের মাঝে কৃষি মন্ত্রণালয়ের বৈশাখী ভাতার অর্থ থেকে লুঙ্গি, গামছাসহ

অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনবে সরকার

  

পিএনএস ডেস্ক: আসন্ন বোরোতে পরীক্ষামূলকভাবে ২২ উপজেলায় অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনবে সরকার।সোমবার (২০ এপ্রিল) খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে অ্যাপে ধান সংগ্রহের উপজেলাগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদরেন চিঠি খাদ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের কাছেও পাঠানো হয়েছে।এবার খাদ্য মন্ত্রণালয়ের এই বোরো মৌসুমে অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকের কাছ থেকে ৬৪ জেলার একটি করে উপজেলায় ধান ও ১৬ উপজেলায় (অ্যাপে আমন সংগ্রহ করা) মিলারদের কাছ থেকে চাল কেনার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সেই অবস্থান থেকে