স্বাস্থ্যকথা

গুণে ভরা লাউ

  

পিএনএস ডেস্ক : জনপ্রিয় সবজিগুলোর মধ্যে লাউ অন্যতম। সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর এই সবজিটি ঝোল,নিরামিষ,ভাজি সবভাবেই খাওয়া যায়। শুধু তাই নয়, লাউয়ের খোসা ,শাঁস কিংবা পাতাও খেতে সুস্বাদু। লাউয়ে প্রচুর পরিমানে পানি থাকে। এটা ভিটামিন সি, কে এবং ক্যালসিয়ামের দারুন উৎস। লাউয়ে ক্যালরির মাত্রা খুব কম থাকে। এতে প্রচুর পরিমানে আঁশ থাকায় এটি হজমে সহায়তা করে, কোষ্টকাঠিন্য কমায়। লাউ ওজন কমাতে সাহায্য করে। এতে থাকা ভিটামিন, খনিজ এবং আঁশ শরীরে দারুন পুষ্টি জোগায়। বিশেষ করে খালি পেটে লাউয়ের জুস খেলে এটি

পানি পানে সতর্কতা

  

পিএনএস ডেস্ক: গরমে পানিবাহিত অসুখের প্রকোপ বেশি দেখা যায়। তৃষ্ণা মেটাতে পানি পানের পরিমাণটাও এই সময়ে বেশি হয়। তাই একটু বেখেয়ালি হলেই ঘটতে পারে সর্বনাশ। বিশুদ্ধ পানি পান না করলে ক্ষতিকর জীবাণু শরীরে প্রবেশ করতে পারে। আর সেখান থেকেই বাসা বাঁধতে পারে নানা অসুখ।এই সময়ে বাইরের রাস্তার কাটা ফল, শরবত, সালাদ এসব থেকে দূরে থাকতে হবে। শীতে তৃষ্ণা কম থাকে। গরমে পানির চাহিদা বেড়ে যায়। তাই তখন অনেকেই যেখানে সেখানে পানি পান করেন। এটি উচিত নয়।খাবার আগে এবং পরে ভালো করে সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে। শৌচাগারে

খালি পেটে কখনোই যা করতে নেই

  

পিএনএস ডেস্ক: কথায় বলে পেট শান্তি তো দুনিয়া ঠিক। কিন্তু পেট শান্তি হয় কিসে? উত্তর- পেট ভরা থাকলে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন বেশকিছু বিষয় আছে যেগুলো পেট খালি থাকা অবস্থায় করা যাবে না। জেনে নেয়া যাক সে বিষয়গুলো সম্পর্কে-১. খালি পেটে ব্যথা কমানোর ওষুধ খেতে নেই। অ্যাসপিরিন, প্যারাসিটামল বা অন্য কোনো অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি ওষুধ খাবেন না এই সময়ে। এতে গ্যাস্ট্রিক ব্লিডিংসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা হতে পারে। খাবার খেতে না ইচ্ছা হলে দুধের সঙ্গে এইসব ওষুধ খেতে পারেন।২. কফিও খেতে নেই খালি পেটে। এতে এসিড

মানবশরীরে নয়া অঙ্গের সন্ধান!

  

পিএনএস ডেস্ক: দেহ-সংসারে সেই হয়তো সবার বড়। যদিও ‘নাকের ডগায়’ থাকলেও, জানা ছিল না।মানুষের শরীরে ‘ইন্টারস্টিশিয়াম’ নামে একটি অঙ্গ রয়েছে এবং অন্যতম বৃহৎ এই অঙ্গটি সম্পর্কে ঠিকমতো জানা গেলে হয়তো ক্যান্সার-রহস্যও সমাধান হবে, গত কাল ‘সায়েন্টিফিক রিপোর্ট’-এ প্রকাশিত গবেষণাপত্রে এই দাবি করেছেন একদল মার্কিন বিজ্ঞানী। তারা জানাচ্ছেন, সদ্য খোঁজ পাওয়া এই ‘ইন্টারস্টিশিয়াম’ হলো ফ্লুইড বা দেহরস ও কলাকোষের সমষ্টি, যা সারা শরীরে জাল ছড়িয়ে রয়েছে। হৃৎপিণ্ড বা যকৃতের যেমন আলাদা আলাদা কাজ, এদেরও নির্দিষ্ট

ফ্রিজে রাখলে যেসব খাবারের পুষ্টি নষ্ট হয়ে যায়

  

পিএনএস ডেস্ক: খাবার ভালো রাখতে আমরা ফ্রিজ ব্যবহার করে থাকি। দীর্ঘদিন খাবার সংরক্ষণেও কাজে লাগে ফ্রিজ। কিন্তু ভালো রাখতে গিয়ে সব ধরনের খাবার ফ্রিজে রাখা ঠিক না। কারণ কিছু খাবার রয়েছে যা ফ্রিজে রাখলে স্বাদ এবং পুষ্টি নষ্ট হয়ে যায়। অনেক ক্ষেত্রে জন্ম নেয় ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া। তাই ফ্রিজে খাবার আগে দেখে নিন কোন খাবারগুলো ফ্রিজে রাখবেন না-তরমুজ: ফ্রিজে সাধারণত ফল ভালো থাকে না। ফ্রিজের ঠান্ডায় তরমুজে ‘চিল ইনজুরি’ হয়। এর ফলে তরমুজ তার স্বাদ ও রং হারিয়ে ফেলে। ‘চিল ইনজুরি’-তে ব্যাক্টেরিয়া জন্ম নেয়। আর

বেগুনেরও আছে গুণ

  

পিএনএস ডেস্ক: বেগুন আমাদের পরিচিত একটি সবজি। ভাজা, ঝোল খাওয়ার পাশাপাশি সুস্বাদু বেগুনিও তৈরি করা যায় বেগুন দিয়ে। এটি সারা বছরই পাওয়া যায়। বেগুনের রয়েছে অনেক গুণ। চলুন জেনে নেয়া যাক-১০০ গ্রাম বেগুনে রয়েছে ০.৮ গ্রাম খনিজ, ১.৩ গ্রাম আঁশ, ৪২ কিলোক্যালরি, ১.৮ গ্রাম আমিষ, ২.২ গ্রাম শর্করা, ২৮ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ০.৯ মিলিগ্রাম আয়রন, ০.১২ মিলিগ্রাম ভিটামিন বি১, ০.০৮ মিলিগ্রাম ভিটামিন বি২, ৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি।কচি বেগুন পুড়িয়ে, খালি পেটে একটু গুড় মিশিয়ে খেলে ম্যালেরিয়ার প্রকোপ কমতে পারে।

জন্মনিয়ন্ত্রণে পুরুষের জন্যে বাজারে এল ‘গর্ভনিরোধক’ পিল

  

পিএনএস ডেস্ক : জন্মনিয়ন্ত্রণের জন্য পুরুষরা নিয়মিত খেতে পারবেন এমন একটি নিরাপদ পিল আবিষ্কারের দাবি করলেন গবেষকরা। দিনে একটি করে খাওয়ার এই পিল পরীক্ষায় নিরাপদ প্রমাণিত হয়েছে। এবং এর কোনও ক্ষতিকর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও দেখা যায়নি। শিকাগোতে এন্ডোক্রাইন সোসাইটির বার্ষিক সম্মেলনে গবেষণায় উঠে আসা এই তথ্য প্রকাশ করে ‘ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটনের’ গবেষকরা। তাঁরা বলেছেন, পিলটির নাম ডাইমিথেন্ড্রোলোন আনডেকানোয়েট বা (ডিএমএইউ)। এটি নিরাপদে একমাস ধরে প্রত্যেকদিন খাওয়া যাবে।পিলটি মহিলাদের জন্মনিয়ন্ত্রণ পিলের

বাদামের এত গুণ!

  

পিএনএস ডেস্ক:অবসর সময়ে, প্রিয়জন ও বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে আড্ডায় বাদাম খাওয়ার জুড়ি নেই। অনেকে আবার স্বাস্থ্য সচেতনায়ও নিয়মিত বাদাম খেতে পছ্ন্দ করেন। তবে যে কারণেই বাদাম খাওয়া হোক না কেন তা নিঃসন্দেহে স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারি। বাদামের যে বহুমাত্রিক গুণাগুণ রয়েছে তা আমাদের অনেকেই হয়তো জানি না। আবার বাদামের প্রকারভেদে গুণাগুণও ভিন্ন ভিন্ন হয়। নিচে বিভিন্ন প্রজাতির বাদামের গুণাগুণ নিয়ে আলোচনা করা হলো :চিনাবাদাম : এই প্রজাতির বাদামে প্রোটিন, ফাইবার, ক্যালসিয়াম, আয়রন,

শিশুর জন্মগত বাঁকা পা ঠিক করা সম্ভব

  

পিএনএস ডেস্ক: শিশুদের জন্মগত বাঁকা পা এখন আর কোনো সমস্যা নয় বলে মনে করেন চিকিৎসকরা। একটু সচেতন থাকলে সহজেই এই সমস্যা সমাধান করা যায় বলেও মনে করেন তারা। চিকিৎসকরা বলেছেন, যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে শিশুর জন্মগত বাঁকা পা ঠিক করা সম্ভব।রাজধানীর কামরাঙ্গীর চরে সালমা আখতার নামে এক নারী সন্তান প্রসবের কয়েকদিন পর বুঝতে পারেন তার মেয়ে নিপার পা বাঁকা। পরে তিনি স্বামীর সঙ্গে পরামর্শ করে মেয়েকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে তিনি জানান, এটি ক্লাবফুট সমস্যা। প্রথম অবস্থাতেই পায়ের

দুধ এবং কলা একসাথে খেলে যা হয়

  

পিএনএস ডেস্ক:দুধ এবং কলা দিয়ে মিল্ক শেক কার না পছন্দ বলুন? বিশেষ করে ছোট শিশুদের খুবই প্রিয় খাবার এটা। এছাড়া পুষ্টিকর উপাদান বলে দুধ এবং কলা অনেকেই একসঙ্গে খেয়ে থাকেন। কিন্তু দুধ এবং কলা একসঙ্গে খাওয়া মোটেই উচিত নয়। কারণ এই দুটি উপাদান একসাথে খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।দুধে আছে প্রচুর প্রোটিন এবং ভিটামিন। এছাড়াও আছে রিবোফ্লাভিন, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন বি-১২ এর মতো গুরুত্বপূর্ণ মিনারেল। আর কলায় আছে ভিটামিন বি-৬, ডায়েটারি ফাইবার, পটাশিয়াম এবং বায়োটিন। খুব দ্রুত হারানো এনার্জি ফিরিয়ে আনতে

Developed by Diligent InfoTech