স্বাস্থ্যকথা

মেদ কমাতে পানীয়

  

পিএনএস ডেস্ক: নাগরিক ব্যস্ত জীবনে অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাস, জীবনযাপনের জটিলতা জন্ম দেয় অনেকরকম সমস্যার। মেদ বা ভূড়ি বেড়ে যাওয়া তার মধ্যে একটি। স্থুলতার কারণে জন্ম নেয় আরো অনেক শারীরিক সমস্যা। কোলেস্টেরল, উচ্চ রক্তচাপ, হার্টের অসুখের মতো সমস্যার সূত্রপাত এখান থেকেই হতে পারে। চিকিৎসকেরাও তাই প্রতিনিয়ত ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার পরামর্শ দেন। কিন্তু সময়ের অভাবে নিয়মিত ডায়েট বা শরীরচর্চার সুযোগ হয়ে ওঠে না অনেকেরই।অনেকে আবার ওজন কমানোর নেশায় পড়ে, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়াই লোকমুখে প্রচলিত কিছু ডায়েট

শীতকালে মাঝে মাঝে গোসল না করা স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী!

  

পিএনএস ডেস্ক : শীতকাল এলে অনেকেই গোসল করতে চান না। গোসল করতে গেলেও ঠান্ডার ভয়ে গায়ে পানি না ঢেলেই বেরিয়ে আসেন অনেকে। শীতকালে এই অনিয়মিত গোসলের বিষয়ে অনেকেই খোলামেলা আলোচনা করেন না, ‍যদি কেউ তা নিয়ে ঠাট্টা করে! তবে চিন্তার কারণ নেই, গবেষকরা বলছেন মাঝে মাঝে গোসল না করা স্বাস্থ্যের জন্য ভাল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক এমন মত দিয়েছেন। এই মার্কিন গবেষকদের মতে, প্রতিদিন গোসল করলে ত্বকের বেশ ক্ষতি হতে পারে। মূলত শরীরের ময়লা, ঘাম ধুয়ে ফেলার জন্যই আমরা গোসল করে

রাতে পঙ্গু হাসপাতালে রোগীদের অব্যক্ত যন্ত্রণা!

  

পিএনএস ডেস্ক: হাত থেকে অনবরত রক্ত ঝরছে। সাদা ব্যান্ডেজ ভিজে চুপচুপ লাল। সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ২২ বছর বয়সী এই তরুণের হাত উচুঁ করে ধরে দাঁড়িয়ে আছেন তারই সমবয়সী আরেক তরুণ। দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অপারেশন থিয়েটারের দরজার সামনে দাঁড়িয়ে ভেতর থেকে চিকিৎসকের ডাক পাওয়ার অপেক্ষায়।মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত আরেক বৃদ্ধ রোগী ব্যথায় কাতরাচ্ছেন অদূরে ট্রলিতে। ছোট্ট এক শিশু সাইকেল চালাতে গিয়ে হাত দু'টুকরা। ব্যথায় চিৎকার করছে শিশুটি। উদ্বিগ্ন শিশুটির মা টয়লেটের ভেতরে ঢুকে দৌড়ে বের হয়ে এসে স্বামীকে বললেন, ভেতরে ময়লা

মাত্র দুটি কাজ করলেই ক্যান্সার উধাও!

  

পিএনএস ডেস্ক: ওশ স্টেট মেডিকেল ইউনিভার্সিটি, মস্কো, রাশিয়ার ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. গুপ্তপ্রসাদ রেড্ডি (বি ভি) বলেছেন, ক্যান্সার কোনো মরণব্যাধি নয়, কিন্তু মানুষ এই রোগে মারা যায় শুধুমাত্র উদাসীনতার কারণে।তার মতে, মাত্র দুটি উপায় অনুসরণ করলেই উধাও হবে ক্যান্সার। উপায়গুলো হচ্ছে:-১. প্রথমেই সব ধরনের সুগার বা চিনি খাওয়া ছেড়ে দিন। কেননা, শরীরে চিনি না পেলে ক্যান্সার সেলগুলো এমনিতেই বা প্রাকৃতিকভাবেই বিনাশ হয়ে যাবে।২. এরপর এক গ্লাস গরম পানিতে একটি লেবু চিপে মিশিয়ে নিন। টানা তিন মাস সকালে

মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে...

  

পিএনএস ডেস্ক: মুখে দুর্গন্ধ হলে তা নিয়ে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয় অনেকসময়। মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে দুইবার ব্রাশ করা, নামী ব্র্যান্ডের মাউথ জেল ব্যবহার, ঘন ঘন চিউইং গাম চিবোনো অনেককিছুই তো করছেন, তবু এই বেহায়া সমস্যা পিছু ছাড়ছে না?চিকিৎসকেরা বলেন, লিভারের কোনো সমস্যা, অতিরিক্ত মশলাদার খাবার, মুখের প্রতিটি প্রান্ত ভালো করে পরিষ্কার না হওয়া ইত্যাদি কারণেও শ্বাসে দুর্গন্ধ আসে। দীর্ঘদিন এমন সমস্যায় ভুগলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। তবে ঘরোয়া দুটি উপায় মেনে চললেও এই সমস্যাকে অনেকটাই

নাক ডাকার সমস্যা দূর করতে

  

পিএনএস ডেস্ক: নাক ডাকার সমস্যায় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভুক্তভোগী হন রোগীর পাশের ব্যক্তি। অর্থাৎ যিনি নাক ডাকেন তিনি ঘুমের ভেতর শুনতে না পেলেও পাশের জনের ঘুমে ব্যাঘ্যাত ঘটে। এই অভ্যাস কেবল অন্যের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায় এমন নিরীহ বিষয় নয়, বরং এই সমস্যা আক্রান্তের স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকর। গবেষণায় দেখা গেছে, বিশ্বের প্রায় ৪০ শতাংশ পুরুষ ও ২০ শতাংশ মহিলা ঘুমের মধ্যে নাক ডাকেন।স্লিপিং অ্যাপনিয়ার কারণে এমনটা ঘটে থাকলে তা হৃদপিণ্ডের ডান এবং বাঁ দিকের ভেন্ট্রিকুলারের মারাত্মক ক্ষতি করে। এক্ষেত্রে

সহজে মুখের দুর্গন্ধ দূর করার উপায়

  

পিএনএস ডেস্ক : অফিসের মিটিং হোক বা কোনো অনুষ্ঠানে সবার মাঝে কথা বলতে গেলে সচেতন থাকেন অনেকেই। কারণ কোনো ভাবে যদি মুখ থেকে দুর্গন্ধ আসে তবে আপনার ব্যক্তিত্ব নষ্ট করবে।সাধারণত মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে দুইবার দাঁত ব্রাশ করা, ভাল মাউথ জেল ব্যবহার, ঘন ঘন চিউইংগাম চিবোনোসহ অনেকেই সচেতনতামূলক কাজ করেন।চিকিৎসকদের মতে, লিভারের কোনো সমস্যা, অতিরিক্ত মসলাদার খাবার, মুখের প্রতিটি প্রান্ত ভাল করে পরিষ্কার না হওয়া ইত্যাদি কারণেও শ্বাসে দুর্গন্ধ আসে। দীর্ঘদিন ধরে এমন সমস্যা হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ

শীতে শিশুর পরিচর্যা

  

পিএনএস ডেস্ক : দেশজুড়ে বয়ে যাচ্ছে মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ, তাপমাত্রা কমছে প্রতিদিনই। শীতের তীব্রতায় সবচেয়ে কষ্ট পায় শিশুরা। তাই এসময় শিশুদের প্রতি বাড়তি নজর না দিলেই নয়।জ্বর, সর্দি কিংবা কাশি -এসব শীতের সাধারণ ঘটনা। জ্বর, নাক দিয়ে পানি পড়া, কাশির জন্য বয়স অনুযায়ী সাধারণ ওষুধেই ভালো হয়ে যায়। অনেকের আবার তাও লাগে না। লবণ পানি দিয়ে নাক পরিষ্কার এবং বুকের দুধ ও পর্যাপ্ত তরল খাবার খাওয়ালেই ভালো হয়ে যায়। বাসক পাতার রস এবং মধুও ভালো কাজ দেয়। শীতে শিশুর সর্দি-কাশির বেশিরভাগই ভাইরাসজনিত।

ঘন ঘন পেশীতে টান ধরলে যা করবেন

  

পিএনএস ডেস্ক : পেশীর টান খুব পরিচিত একটি সমস্যা। রাতে ঘুমের মধ্যে বা হঠাৎ হাঁটতে গিয়ে অনেকের পেশীতে টান দেয়। কখনও বা আড়মোড়া ভাঙতে গিয়েও হঠাৎ পেশী শক্ত হয়ে টান ধরে। হঠাৎ পেশীতে টান পড়লে অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। যদিও এই যন্ত্রণা বেশির ভাগের ক্ষেত্রেই খুব কম সময়ের জন্য স্থায়ী হয়। সাধারণত পেশীতে ম্যাসাজ কিংবা বরফ সেঁক দিলে তাৎক্ষণিক ভাবে ব্যথা কমে যায়। কিন্তু এর প্রভাব থেকে যায় প্রায় সারা দিন।নানা কারণে পেশীতে টান ধরতে পারে। চিকিৎসকদের মতে, শরীরে ল্যাকটিক অ্যাসিড জমে যাওয়া, কখনও টোকোফেরল,

তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছলে যেসব ক্ষতি হয়

  

পিএনএস ডেস্ক: মুখ পরিষ্কারের জন্য সাবান বা ফেসওয়াশ দরকার হয় আমাদের। কিন্তু মুখ ধোয়ার পরে আমরা প্রত্যেকেই একটা বড় ভুল করে ফেলি। সেটি হলো গামছা বা তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নেয়া। মুখ মোছার কাজে তোয়ালে বা গামছা ব্যবহারের অভ্যাস যদি আপনার থেকে থাকে, তাহলে ওখানেই আপনার মুখ ধোয়ার যাবতীয় সুফল শেষ হয়ে গেল!মুখ ধোয়ার পরে তোয়ালে দিয়ে মুখ মোছা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। তা থেকে কীভাবে সমস্যা হতে পারে? ভেজা মুখ থাকলে ময়েশ্চারাইজার বা সিরাম ত্বকের অনেক বেশি গভীরে ঢুকতে পারে। কিন্তু তোয়ালে দিয়ে শুকিয়ে নিলে ত্বকের

Developed by Diligent InfoTech