আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রের রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্তে 'ক্ষুব্ধ' কানাডা

  

পিএনএস ডেস্ক: চীনের সীমানা পেরিয়ে বিশ্বের ২০৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। ইতোমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে। মৃত্যুবরণ করেছে ৫৯ হাজারের বেশি। এদিকে, কানাডাসহ দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোতে চিকিৎসা সরঞ্জাম রপ্তানি বন্ধে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তে ক্ষোভ জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।এ ব্যাপারে তিনি বলেন, প্রতিদিন হাজারো কানাডীয় স্বাস্থ্যকর্মী যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসাসেবা দিয়ে থাকে। কৃতজ্ঞতাস্বরূপ তাই এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক হবে না দেশটির।এর আগে স্থানীয় সময়

সৌদিতে বেসরকারি চাকরিজীবীরা পাচ্ছেন ৩ মাসের বেতন!

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনাভাইরাসের কারণ সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত বেসরকারি কোম্পানিগুলোতে নিয়োজিত কর্মীদের তিন মাস বেতন দেবে সৌদি সরকার। তাদের বেতনের ৬০ শতাংশ প্রতি মাসে সৌদির সরকারি কোষাগার থেকে প্রদান করা হবে। খবর সৌদি গেজেটের।করোনা মহামারির আর্থিক প্রভাব কমাতে সৌদি সরকারের নেয়া সবচেয়ে বড় দু’টি অর্থনৈতিক প্যাকেজের এটি একটি। এজন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ২৬০ কোটি মার্কিন ডলার। এতে বেসরকারি খাতের অন্তত ১২ লাখ কর্মী উপকৃত হবে। সেই সঙ্গে বেঁচে যাবে কোম্পানিগুলোও। কর্মী ছাঁটাইয়েরও প্রয়োজন হবে না

করোনা নিয়ে গুজব, যুক্তরাজ্যের ফাইভ-জি টাওয়ারে আগুন

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনা নিয়ে আমাদের দেশে রয়েছে নানা গুজব। ধানকুনি পাতা খেলে করোনা হয় না বা নারিকেল গাছের গোঁড়ায় পানি ঢাললে এই ভাইরাস ছড়ায় না, পান খেলে করোনাভাইরাস ধরবে না- ইত্যাদি কত ধরনের গুজব যে আছে বাংলাদেশে। শুধু বাংলাদেশ নয়, ব্রিটেন আর আমেরিকাতেও কিন্তু গুজব ছড়ায়।গত কয়েকদিনে যুক্তরাজ্যে গুজব ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস ছড়াচ্ছে ফাইভ-জি টাওয়ার থেকে। এমন অদ্ভূত ধারণা ছড়িয়ে পড়ার পর ওই টাওয়ারে অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটেছে।এ গুজবের সূত্রপাত গত মাসে। ওই সময় যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য সম্মেলনে এক ব্যক্তি

ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় ৫৮৮ জনের প্রাণহানি, মৃতের সংখ্যা ৬ হাজার ছাড়িয়েছে

  

পিএনএস(আব্দুস সোবহান, ফ্রান্স থেকে): সারা বিশ্ব কাঁপছে করোনা আতঙ্কে। প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। গেল ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সে করোনায় ৫৮৮ জন মারা গেছে। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৫০৭ জন।ফ্রান্সের ন্যাশনাল পাবলিক হেলথ সার্ভিস জানায়, মার্চের ১ তারিখ থেকে ৫ হাজার ৯১ জন মানুষ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে যাদের শতকরা ৮৩ ভাগ বৃদ্ধ। সেই সাথে ফ্রান্সের বৃদ্ধাশ্রমে মারা গেছে ১ হাজার ৪১৬ জন মানুষ। করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে হাসপাতালে ভর্তি আছে ৬১ হাজার মানুষ।

করোনায় দিশেহারা যুক্তরাষ্ট্রে সবাইকে মাস্ক পরার আহ্বান

  

পিএনএস ডেস্ক: একক পদক্ষেপ হিসেবে নিউইয়র্ক গভর্নর নাটকীয়ভাবে বেসরকারি হাসপাতাল ও কোম্পানির অব্যবহৃত ভেন্টিলেটর জব্দের নির্দেশের পর ট্রাম্প প্রশাসন আমেরিকানদের সবাইকে মাস্ক পরার আহ্বান জানিয়েছেন এবং চিকিৎসামগ্রী সীমিত আকারে রপ্তানির আহ্বান জানিয়েছেন।মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষিত নতুন নির্দেশনায় প্রত্যেককে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় মাস্ক ব্যবহারের আহ্বান জানানো হয়েছে, বিশেষত নিউইয়র্কের মতো করোনাভাইরাসে মহমারি আকার ধারণ করা এলাকাগুলোতে।তবে রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের

করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের কঠোর সমালোচনা গায়িকার

  

পিএনএস ডেস্ক: ৩ বছরের ছেলেসহ কভিড-১৯ করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন মার্কিন সঙ্গীতশিল্পী ও অভিনেত্রী পিঙ্ক। তিনি ১ মিলিয়ন ডলার অনুদানেরও ঘোষণা দিয়েছেন। সুস্থ হতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় চিকিৎসকদের প্রশংসা করেছেন পিঙ্ক। তবে মার্কিন সরকারের কঠোর সমালোচনা করেছেন তিনি। টুইটারে পিঙ্ক লিখেছেন, করোনা টেস্টকে সবার জন্য সহজলভ্য করতে আমাদের সরকার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।করোনা মোকাবেলায় টেম্পল ইউনিভার্সিটি হসপিটালের জরুরি তহবিল ও লস অ্যাঞ্জেলেস সিটি মেয়রের করোনা তহবিলে ৫ লাখ ডলার দিচ্ছেন

কভিড-১৯: ৩ মিনিটের জন্য স্তব্ধ সমগ্র চীন

  

পিএনএস ডেস্ক: চীনে কভিড-১৯ করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ৩ হাজার ৩০০ ছাড়িয়েছে। গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকেই করোনা ছড়িয়ে পড়ে। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্ত হয়েছে ৮১ হাজার ৬৩৯ জন।করোনায় প্রাণহানির কারণে তিন মিনিটের শোক পালন করেছে চীন। আজ শনিবার স্থানীয় সময় ১০টায় চীনের মানুষ তিন মিনিট দাঁড়িয়ে মৃতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এসময় চীনে গাড়ি, ট্রেন, জাহাজের হর্নও বাজেনি এবং পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়।চীন থেকে ২০৫টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত

করোনার থাবা থেকে শিশুকে বাঁচাতে হলে যা করবেন

  

পিএনএস ডেস্ক: নভেল করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯-এর ভয়াল থাবায় কোণঠাসা গোটা বিশ্ব। বিশ্বব্যাপী প্রায় ১১ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে। মৃত্যু হয়েছে ৫৯ হাজারের।বিশ্বব্যাপী এই মহামারীর মধ্যে আপনারকে শিশুকে নিয়ে নিশ্চয়ই দুঃশ্চিন্তায় আছেন। কেননা, এই ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে এক-তৃতীয়াংশ শিশুর শরীরে সেভাবে কোনও লক্ষণ বোঝা যায় না। খুব সতর্ক থাকাটা তাই বিশেষ প্রয়োজনীয়। তবে সচেতন থাকলে এই ভাইরাসকে পরাস্তও করা যাবে সহজে।রোগের উপসর্গআর পাঁচটা সাধারণ সর্দি-কাশির মতোই এই রোগে

গুপ্তচরবৃত্তি, গোয়েন্দা নজরদারি বদলে দেবে করোনাভাইরাস!

  

পিএনএস ডেস্ক: একজন শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তা সদ্য পাওয়া একটা রিপোর্ট নিয়ে মিটিংরুমে হন্তদন্ত হয়ে ঢুকলেন, রাজনীতিক ও নীতিনির্ধারকদের উদ্বিগ্ন চোখের সামনে জানালেন কী ধরনের বিপদের সঙ্কেত তারা পাচ্ছেন।এতদিন, অন্তত সাম্প্রতিক অতীতে, গোয়েন্দাদের কাছে এ ধরনের হুঁশিয়ার করার মতো রিপোর্টের বিষয়বস্তু হয়েছে সন্ত্রাসবাদী হামলার ছক- হয়তো বা মধ্যপ্রাচ্যের কোথাও থেকে খবর পাওয়া গেছে যে সন্ত্রাসীরা নতুন কায়দায় একটা বিমান হামলার ছক কাটছে। সঙ্গে সঙ্গে ঘুরতে শুরু করেছে বহু পরীক্ষিত জাতীয় নিরাপত্তা

আবারও একদিনে মৃত্যুর রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে

  

পিএনএস ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে দিশেহারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা ছাড়াচ্ছে রেকর্ড। শুক্রবার একদিনেই দেশটিতে ২৯ হাজার মানুষের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। প্রাণ হারিয়েছে ১০৯৪ জন। জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া তথ্যমতে যা দেশটিতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।অবশ্য ওয়ার্ল্ডওমিটার্সের তথ্যানুসারে, গেল ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা ১৩২০। আর