আইন-আদালত

জামিনে বন্দির চাপ কমছে কারাগারে

  

পিএনএস ডেস্ক : করোনা ভাইরাসে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি চলমান। ছুটি চলছে দেশের উচ্চ ও নিম্ন আদালতে। এমন পরিস্থিতিতে বিচারক, আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী জনগণকে করোনা মুক্ত রেখে বিচার পাইয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে চালু করা হয়েছে ভার্চুয়াল কোর্ট। উচ্চ ও নিম্ন আদালতে স্বল্প পরিসরে তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে এই ভার্চুয়াল কোর্টে বিচার চলছে। এইসব কোর্টে জামিন চাচ্ছেন বিভিন্ন ফৌজদারি মামলার আসামিরা।গত তিন কার্যদিবসে অধস্তন আদালতের ভার্চুয়াল কোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন তিন হাজার আসামি।

কারাবন্দিদের সুরক্ষিত রাখতে কী পদক্ষেপ?

  

পিএনএস ডেস্ক: মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে কারাবন্দিদের সুরক্ষিত রাখতে কারা কর্তৃপক্ষ কী পদক্ষেপ নিয়েছেন- তা জানতে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির এ নোটিশ পাঠান।আইনজীবী শিশির মনির বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক ও আইজি প্রিজনকে এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।’নোটিশে বিভিন্ন কারাগার ও সংশোধনাগারে কারাবন্দিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং মুক্তির বিষয়ে কারা কর্তৃপক্ষের প্রস্তুতি এবং পদক্ষেপ সম্পর্কে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে

ভার্চ্যুয়াল আদালতে বৃহস্পতিবার জামিন হয়েছে ১৮২১ জনের

  

পিএনএস ডেস্ক: সারাদেশের নিম্ন আদালতের ভার্চ্যুয়াল কোর্ট বৃহস্পতিবার ১৮২১ জন আসামির জামিন মঞ্জুর করেছে। এনিয়ে গত তিনদিনে ভার্চ্যুয়াল কোর্টে শুনানি নিয়ে মোট ২ হাজার ৯৭৮ আসামির জামিন দেওয়া হয়েছে।বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সুপ্রিমকোর্টের মুখপাত্র ও স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন। এর আগে মঙ্গলবার ১৪৪ ও বুধবার ১ হাজার ১৩ জনকে জামিন দেওয়া হয়েছিলো।গত ১০ মে নিম্ন আদালতের ভার্চ্যুয়াল কোর্টে শুধু জামিন শুনানি করতে নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন। এ বিষয়ে ওইদিন একটি বিজ্ঞপ্তি

সারা দেশে ভার্চুয়াল আদালতে ১০১৩ আসামির জামিন

  

পিএনএস ডেস্ক: সারা দেশের নিম্ন আদালতে ১ হাজার ১৮৩ জনের ভার্চুয়াল শুনানি নিয়ে ১ হাজার ১৩ আসামিকে জামিন দেওয়া হয়েছে।বুধবার (১৩ মে) সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।গত সোমবার (১১ মে) থেকে জামিন শুনানি শুরু হয়। প্রথমবারের মতো ওইদিন কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ এক আসামিকে জামিন দেন। দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার (১২ মে) ১৪৪ আসামিকে সারাদেশে জামিন দেওয়া হয়।বুধবার সুপ্রিম কোর্ট জানায়, ঢাকা, নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, ফরিদপুর, কিশোরগঞ্জ, রাজবাড়ী, চট্টগ্রাম,

দেশের বিভিন্ন জেলায় ভার্চুয়াল আদালতে ১৪৪ আসামির জামিন

  

পিএনএস ডেস্ক: দেশের বিভিন্ন জেলার ভার্চুয়াল আদালতে ১৪৪ আসামিকে জামিন দেওয়া হয়েছে।মঙ্গলবার (১২ মে) রাতে সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র ও স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।এর আগে সোমবার (১১ মে) থেকে সারাদেশের ভার্চুয়াল আদালতে জামিন শুনানি শুরু হয়। প্রথমবারের মতো কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ এক আসামিকে জামিন দেন।মঙ্গলবার দেশের বিভিন্ন জেলার দেড়শ ভার্চুয়াল আদালতে শুনানি শেষে এসব জামিন মঞ্জুর করা হয়। এদিন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত ৪টি মামলার শুনানি নিয়ে ৪ জনের জামিন

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মামলার শুনানির জন্য প্রস্তুত দেশের অধস্তন আদালতসমূহ

  

পিএনএস ডেস্ক : তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মামলার শুনানির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে দেশের অধস্তন আদালতসমূহ।গতকাল রবিবার (১০ মে) সুপ্রিমকোর্টের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে নিম্ন-আদালত শুনানি গ্রহণের প্রস্তুতি নিতে শুরু করে।এ কারণে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত চারজন মহানগর হাকিমকে দায়িত্ব দিয়ে চারটি ভার্চুয়াল কোর্ট গঠন করেছেন।সোমবার দুপুরের দিকে মুখ্য মহানগর হাকিম এ এম জুলফিকার হায়াত এই আদেশ জারি করেন।মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনছারী ভার্চুয়াল কোর্ট-১ এর বিচারক

ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনার সিদ্ধান্তে তিনটি বেঞ্চ গঠন

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ভার্চুয়াল (অনলাইনে) পদ্ধতিতে আদালত পরিচালনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন সুপ্রিম কোর্ট। আর সেই লক্ষ্যে মামলার শুনানির জন্য তিনটি পৃথক বেঞ্চ গঠন করা হয়েছে। এর মধ্যে একটি বেঞ্চে আপিল শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। বাকি দুটি বেঞ্চ গঠিত হবে হাইকোর্ট বিভাগে।রবিবার (১০ মে) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ফুল কোর্ট সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। ফুল কোর্ট সভায় আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতিরা অংশ নেন।হাইকোর্টের নতুন গঠিত বেঞ্চগুলো হলো-

চালু হচ্ছে ভার্চুয়াল আদালত

  

পিএনএস ডেস্ক : করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে ঘোষিত সাধারণ ছুটির কারণে নিয়মিত আদালত বন্ধ থাকায় ভার্চুয়াল আদালত চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হাইকোর্টে বসবে তিনটি বেঞ্চ।বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বসবে। এসব আদালতে জামিন আবেদনসহ যেকোনো জরুরি বিষয় শুনানি করা যাবে। তবে সারা দেশে নিম্ন আদালতগুলোতে শুধুমাত্র জামিনের আবেদন শুনানি করা যাবে। এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী

করোনা পরিস্থিতিতে ভিডিও কনফারেন্সে বিচার কাজ চালাতে অধ্যাদেশ জারি

  

পিএনএস ডেস্ক: মহামারী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) সৃষ্ট উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ভিডিও কনফারেন্সসহ অন্যান্য তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আদালতের কার্যক্রম চালানোর বিধান রেখে অধ্যাদেশ জারি করেছে সরকার।শনিবার অধ্যাদেশটি গেজেট আকারে প্রকাশ করেছে আইন মন্ত্রণালয়।এর আগে গত ৭ মে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্সিং ও অন্যান্য তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বিচারকাজ পরিচালনার বিধান রেখে ‘আদালত কর্তৃক তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০’ এর খসড়ার

১৬ মে পর্যন্ত সব আদালতের ছুটি

  

পিএনএস ডেস্ক : সারা দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলা এবং বিস্তার রোধে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে সুপ্রিম কোর্টের আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগসহ দেশের সব নিম্ন আদালতের ছুটি আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।আজ মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলা এবং এর ব্যাপক বিস্তার রোধে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত সব আদালতে ছুটি ঘোষণা করা