চিত্র-বিচিত্র

ভিন্ন ভাষায় কীভাবে বলবেন ‘তোমায় ভালোবাসি’

  

পিএনএস ডেস্ক:বিখ্যাত কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদ যথার্থই লিখেছিলেন, ‘ভালোবাসাবাসির ব্যাপারটা হাততালির মতো। দুটা হাত লাগে। এক হাতে তালি বাজে না। অর্থাৎ একজনের ভালোবাসায় হয় না...’সত্যিই পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ উপহার হচ্ছে ভালোবাসা। ‘আমি তোমাকে ভালোবাসি’। শব্দটির সঙ্গে আমরা সবাই পরিচিত। প্রিয় মানুষকে এই রোমান্টিক শব্দ কয়টি বলা কিংবা তার মুখ থেকে শোনা দুটিই সুমধুর। এই তিন শব্দেই মানুষ তাদের ভালোবাসা, আকাঙ্খা, স্নেহ, প্রশংসা সবকিছুই অন্যের কাছে প্রকাশ করে। এটি ভালোবাসার মানুষের কাছে যেন ‘বিশেষ

‘টিকটিকি ডাকলে কথা ফলে যায়’, কেন এমন বলা হয় জানেন?

  

পিএনএস ডেস্ক : টিকটিকি৷ শুনলে বা দেখলে ঘিনঘিন করলেও টিকটিকি পড়া নিয়ে নানা জন নানা মতে বিশ্বাসী৷ পিঠে হোক বা পায়ে, হাতে হোক বা মাথায়, রয়েছে বহু ব্যাখ্যা৷ কোনওটাতে হতে পারে আপনি ধনী, কোনওটাতে আবার নিঃস্ব৷এসব নিয়ে রয়েছে তর্ক-বিতর্কও৷ কেউ বিশ্বাসী, কেউবা তার উল্টো৷ আবার কোনও কথার সময় টিকটিকি ডেকে উঠলে তা সত্যি হবে বলেও মনে করেন অনেকেই৷ কিন্তু টিকটিকি নিয়ে এত সব ব্যাখ্যা কেন? কোনওদিন ভেবে দেখেছেন কি টিকটিকির ডাক নিয়ে এত হইচই কিসের? মনে করা হয়, পূর্বে খনা নাম এক সত্যবাদী মহিলা

লাগবে না কোনও জ্বালানি, এবার ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে রাখলেই তৈরি হবে ভাত!

  

পিএনএস ডেস্ক: ঠাণ্ডা জলে দিব্যি তৈরি ভাত? শুনেছেন কখনও? না শুনে থাকলেও, এবার তা খাবার সুযোগ মিলবে। কারণ নতুন বছরে রাজ্যবাসীর কাছে কৃষি বিজ্ঞানীদের উপহার কোমল ধান। এই ভাত রান্না করতে লাগবে না কোনও জ্বালানি। বাঁচবে সময়ও।কোমল। নামেই পরিচয়। কোনও জ্বালানির প্রয়োজন নেই। ভয় নেই হাত পোড়ার। আধ ঘণ্টা ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে রাখলেই ফুলে উঠবে এই ধানের চাল। সবজি, মাছ-মাংস দিয়ে সেভাবে খাওয়া না গেলেও, দই-গুড় দিয়ে অনায়াসেই খেতে পারেন কোমল ভাত। দশ বছর ধরে নদিয়ার ফুলিয়ায়, রাজ্য সরকারের কৃষি প্রশিক্ষণ

জোকস: ভ্যালেন্টাইন রঙ্গ এবং চোখে চোখে চা...

  

পিএনএস ডেস্ক : চাকরির ইন্টারভিউ চলছে। চাকরিপ্রার্থী ইন্টারভিউ বোর্ডকে প্রভাবিত করতে সব প্রশ্নের উত্তর ইংরেজিতে দিতে চাচ্ছে। কিন্তু ব্যাকরণে দুর্বলতার কারণে তার উত্তর কেউ বুঝছে না। এমন অবস্থায় বোর্ড সভাপতি তাকে বিনীতভাবে বললেন- প্রশ্নের উত্তর বাংলাতে দিলেই ভাল।চাকরিপ্রার্থী: ওকে, স্যার। চেয়ারম্যান: এবার বলুন, আপনার যোগ্যতা কি?চাকরিপ্রার্থী: চোখে চোখে চা!চেয়ারম্যান: শাট আপ! বেআদপ কোথাকার!চাকরিপ্রার্থী: স্যার, রাগ করছেন কেন?চেয়ারম্যান: রাগ করবো না মানে? তোমাকে প্রশ্ন করলাম

টয়লেটে বসে স্মার্টফোনে ভিডিও গেমস খেলার ভয়াবহ পরিণতি!

  

পিএনএস ডেস্ক: চীনের এক ব্যক্তি টয়লেটে বসার পর একটা সময় কাজ শেষ হলেও স্মার্টফোন থেকে উঠতে পারছিলেন না এক সময় তার মলদ্বারের মধ্য থেকে একটি পিণ্ড বেরিয়ে আসে।খবরটা গা শিউরে ওঠার মত যারা টয়লেটে বসে সব ভুলে গিয়ে স্মার্টফোনে ভিডিও গেমসে মগ্ন হয়ে যান। সম্প্রতি দক্ষিণ-পূর্ব চীনের ঝংশানে এ ঘটনা ঘটে।জানা যায়, চীনের এক ব্যক্তি টয়লেটে বসার পর স্মার্টফোনে ভিডিও গেমস নিয়ে আসক্ত হয়ে পড়েন। আর এতেই তাকে চরম মূল্য দিতে হয়। তার মলদ্বারের মধ্য থেকে একটি পিণ্ড বেরিয়ে আসে। ওটা ঝুলেছিল তার মলদ্বারে। ছয়

দেখতে এসে ‘কনেকে’ তৃপ্তি করে খেলেন লোকেরা

  

পিএনএস ডেস্ক: দুবাইতে বিয়ের আসরে মোহনীয় সাজের কনে সটান দাঁড়িয়ে আছে। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় শোভা পাচ্ছে হীরা দিয়ে তৈরি অলংকার। কনের সঙ্গে হাসিমুখে ছবি তুললেন। তারপর গপাগপ করে তাকে গলাধঃকরণ করে তৃপ্তির ঢেকুর তুললেন। ভাবছেন, কী আবোলতাবোল কথা।জানা যায়, বিয়ের একটি ফ্যাশন শোতে বানানো হয়েছে এমনই একটি কেক যেটি দেখলে যে কারো কনে বলে বিভ্রম হবে। ৬ ফুট লম্বা এই কেক কনেকে বানাতে লেগেছে ১০ দিন, ১ হাজার ডিম ও ২০ কেজি চকোলেট। কেকটি বানিয়েছে ব্রিটিশ ফ্যাশন ডিজাইনার ডেবি উইংহাম।আরবীয় ফ্যাশনে সাজের এই

ইন্টারনেটে জুলিয়েটকে খুঁজছে রোমিও!

  

পিএনএস ডেস্ক:অনেক বয়স হয়েছে। এবার একজন প্রেমিকা চাই৷ আশপাশে খুঁজে না পেয়ে তাই এবার ইন্টারনেটে খোঁজ পড়েছে জুলিয়েটের৷ ইন্টারনেট তাকে খুঁজছে রোমিও৷রোমিও একটি ব্যাঙ৷ থাকে বোলিভিয়ায়৷ ১০ বছর ধরে সে ব্যাচেলার৷ আশপাশে হাজার জাতের ব্যাঙ সে দেখেছে৷ কিন্তু কাউকে মনে ধরেনি৷ শেষ পর্যন্ত হালই ছেড়ে দিয়েছিল সে৷ কিন্তু কোচাবাম্বা ন্যাচরাল হিস্ট্রি মিউজিয়ামের মানুষ নামক প্রাণীগুলো তা হতে দিল না৷ রোমিওর সাহায্য করতে এগিয়ে এল তারা৷ রোমিওর জন্য ইন্টারনেটে বিজ্ঞাপন দিল তারা৷ এখন একটি ডেটিং

খেজুরের রস চুরি ঠেকাতে....

  

পিএনএস ডেস্ক:খেজুরের রস উপাদেয় পানীয়। শুধু তাই নয় এর রয়েছে নানা গুণাগুণ। এরচেয়েও বড় কথা এদেশে শীতের মৌসুমে খেঁজুরের রসের চাহিদা ব্যাপক। এই রস দিয়েই তৈরি হয় সুস্বাদু গুড়। খেজুরের রস আর শীত পরস্পর একই সূত্রে গাঁথা। এই মৌসুমের ঐতিহ্যের অন্যতম অংশীদার খেজুরের রস। যারা গ্রামে গঞ্জে বেড়ে উঠেছেন তাদের খেঁজুরের রসের বিষয়ে নতুন করে বলার কিচ্ছু নেই। এই রস চুরির ফন্দি ফকির না করার মানুষ একেবারে কম।কেউ কেউ না কেউ এই রস চুরি খেয়েছেন, কিংবা একটা সার্কেলই তৈরি হয় ভোরে কিংবা রাতে খেজুরের রস

মানুষ চেনা বড় দায়

  

পিএনএস, ঝালকাঠি : একটি বৃদ্ধ সিংহ বনের রাজা ছিলো। বৃদ্ধ সিংহটির রাজ্যে সবাই সুখে শান্তিতে বসবাস করতো। সবাই সবার প্রতি সহানুভূতিশীল ছিল। সেই বৃদ্ধ সিংহকে মান্য করতো বনের সকল প্রাণী। হঠাৎ বৃদ্ধ সিংহটি মারা গেল। রাজ্যে নেমে এলো শোক। সবার মনে একটা নতুন প্রশ্ন জেগে উঠলো যে, কে হবে এই বনের রাজা? কারণ এই বনে ঐ সিংহটি ছাড়া আর কোন সিংহ ছিলোনা।এই বনেই সাস করতো এক দুষ্ট বাঘ। সে দেখতে যেমন স্বাস্থবান তেমনি তার হুংকার। সে মনে মনে ভাবলো,এই তো সুযোগ রাজা হবার। সে আরো ভাবলো। তার সামনে এই বনের কেউ কথা বলতে

কেন ব্লেডের আকার কখনোই পরিবর্তন হয়নি?

  

পিএনএস ডেস্ক: নতুন আঙ্গিকে নতুনভাবে কত কিছুরই না আবির্ভাব দেখা যায়। দৈনন্দিন ব্যবহারের জিনিসে সব থেকে বেশি পরিবর্তন দেখা যায় তবে সবকিছুর মধ্যে ব্যতিক্রম রয়ে গেছে ধারালো ব্লেড। ব্লেড ছাড়া অনেক কিছুই হয়তো আমরা করতে পারতাম না। কিন্তু একটু ভেবে দেখেছেন কি, এই ব্লেডের আকার বা আকৃতি কখনই কিন্তু পরিবর্তন হয়নি। তবে এর কারণ কি জানেন? জানতে হলে আগে ব্লেড তৈরির জন্মকাল থেকে জানতে হবে। বিংশ শতাব্দীর সবে শুরু হয়েছে। ১৯০১ সালে জিলেট কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা কিং ক্যাম্প ব্লেডের নকশা তৈরি করেন। পরে ১৯০৪

Developed by Diligent InfoTech