পাঠকের চিঠি

‘ধর্ষিতা পূর্ণিমাকে পুনরায় ধর্ষণ করল মিডিয়া’

  

পিএনএস ডেস্ক: লতিফ সিদ্দিকী তখন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী। একই সাথে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়ামের সদস্য। তিনি আমার প্রকাশকও। নান্দনিক প্রকাশনী চালাচ্ছেন। আমাকে ধরে নিয়ে গিয়েছিলেন তাঁর মন্ত্রীপাড়ার বাসভবনে লেখালেখি বিষয়ক আড্ডার জন্য।রাত্রি ৯টার দিকে এক তরুণ ঢুকল ঘরে।মন্ত্রীর কাছে এসেছে পরদিন একটা চাকুরির ইন্টারভিউয়ের সুপারিশ করানোর জন্য। একথা শুনে ভুরু কুঁচকে উঠল লতিফ সিদ্দিকীর। বিরক্ত হয়ে কিছু একটা বলতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু তার আগেই তরুণ বলল যে সে পূর্ণিমার ভাই। সঙ্গে সঙ্গে লতিফ সিদ্দিকী চেয়ার

কে দেবে মা-বোনের ইজ্জতের নিরাপত্তা?

  

পিএনএস (কাদের গনি চৌধুরী) : প্রতিদিন গড়ে তিন জন নারী ও শিশু ধর্ষিত হচ্ছে। এভয়ংকর তথ্য দিয়েছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন। বাংলাদেশের ৪৬ বছরের ইতিহাসে বিদায়ী বছর অর্থাৎ ২০১৭ সালে সবচেয়ে বেশি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। একইসঙ্গে বেড়েছে নিষ্ঠুরতা ও ভয়াবহতা। আইন ও সালিশ কেন্দ্র -আসক জানিয়েছে ২০১৭ সালে সারা দেশে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৮১৮ জন নারী ও শিশু। এর আগের বছর এ সংখ্যা ছিল ৫৫৯। বিদায়ী বছরের তুলনায় গত বছর ২৫৭ জন নারী ও শিশু বেশি নির্মমতার শিকার হয়েছে। এ পরিসংখ্যান দিয়েছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)।

বাঙালির সেক্স ভাবনা!

  

পিএনএস (গাজী জয়িতা মাহিদ):বাঙালি মুখে সেক্স শব্দটা উচ্চারণ করে না, কিন্তু ধ্যানে জ্ঞানে সারাক্ষণ সেক্স নিয়ে চিন্তা করে! কোন প্রেমিক যুগল হাত ধরে হেঁটে গেলে- সবার মনে হয় আহ! কি সুন্দর একটা কাপল, অথচ বাঙালি ভাবে এরা এখনই কোন চিপায় গিয়ে সেক্স করা শুরু করবে!বাঙালির কাছে নারী পুরুষের সম্পর্ক মানেই সেক্স! বন্ধুত্ব বা ভালোবাসাকে এরা সেক্সের বাইরে চিন্তা করতে পারে না! অথচ এরাই আবার প্রেমিক প্রেমিকার লোক সম্মুখে হাত ধরা বা চুমু খাওয়া সাপোর্ট করে না! কি হিপোক্রেসি রে ভাই!দুই জন প্রাপ্ত

সব হারিয়ে যাচ্ছে, টিকে আছে শুধু মুখোশ

  

পিএনএস (ড. চৌধুরী সায়মা ফেরদৌস) : সেদিন শুনলাম এক বিয়েতে নাকি ছোটখাটো প্রোগ্রাম। ছোটখাটো বলা হলেও এনগেইজমেন্ট আর আকদ মিলে বেশ বড় মাপের ও জাকজমক করে অনুষ্ঠান হয়েছে মোট ১০টি! ভাবা যায়! আমার তো এক বিয়েতে যেয়ে তারপর বৌভাতে যেতে হলেও মাথার ওপর বাজ পড়ে। কি পরে যাবো, সেই চিন্তাটা খুব মামুলি। কিন্তু দুশ্চিন্তা হলো সময় ও কাজকে ম্যানেজ করা। যানজট নামের মামদো ভূতের দেশে ওরা পারে কি করে এতগুলা অনুষ্ঠান আয়োজন এবং অংশগ্রহণ করতে?সেই ১০টি প্রোগ্রামের শুরুটা 'মিলাদ মাহফিল' দিয়ে। প্রোগ্রামের হিসাব চেয়ে

বেকারত্বের জন্য দায়ী কে?

  

পিএনএস ডেস্ক : চাকরি বা সন্তোষজনক চাকরি পাওয়া নিয়ে উচ্চশিক্ষিত তরুণদের মধ্যে হতাশা ক্রমেই বাড়ছে। কেউ চাকরি না পেলেই আমরা ভেবে নিচ্ছি, তাঁর যোগ্যতা নেই। ভাবখানা এমন, পৃথিবীতে যোগ্যতাই যেন চাকরি পাওয়ার একমাত্র উপায় বা মাধ্যম। আবার যাঁরা চাকরিতে সন্তোষজনক মাইনে পাচ্ছেন না, তাঁদের ক্ষেত্রেও বলা হচ্ছে, যোগ্যতা বা দক্ষতার ঘাটতির কারণেই তাঁরা বেতন কম পাচ্ছেন। কিন্তু ব্যাপারটা কি সব সময় তা-ই? দেশে বেসরকারি খাত কাঙ্ক্ষিত হারে বাড়ছে না, তাই কর্মসংস্থানও সে অনুযায়ী বাড়ছে না। বিবিএসের জরিপ থেকে জানা

আশাবাদ ও সংশয় নিয়ে নতুন বছর

  

পিএনএস ডেস্ক : ২০১৮ সালে দেশে একটি ভালো জাতীয় নির্বাচন হবে, স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলো সঠিকভাবে হবে-সেটা আমরা চাই। এটা দেশবাসীরও আকাঙ্ক্ষা। একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের ব্যাপারে সরকার কিছু কিছু কাজ করেছে। নতুন নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দিয়েছে। তারা রংপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন ভালোমতো করেছে। কিন্তু তাতেও নির্বাচনী ব্যবস্থা ও ভোট নিয়ে মানুষের মধ্যে আস্থা ফিরে আসেনি। একটি বড় সমস্যা আমাদের এখনো রয়ে গেছে, তা হচ্ছে গণতন্ত্রে উত্তরণের সঠিক পথটি এখনো খুঁজে পাইনি। ২০১৪ সালের নির্বাচনের মধ্য

শিক্ষা মন্ত্রীর চড় খেয়ে প্রতিবাদে কেউ বলেননি আমি চোর নই!

  

পিএনএস (পীর হাবিবুর রহমান) : শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, শুধু কর্মকর্তারাই ঘুষ খান না, মন্ত্রীরাও দুর্নীতি করেন। মন্ত্রীরাও চোর, আমিও চোর। কর্মকর্তারা যাতে সহনশীল হয়ে ঘুষ খান এ জন্য তিনি আকুতি জানান। তিনি বলেন, এ অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে। তাই অনুরোধ করছি, আপনারা ঘুষ খান। কিন্তু সহনশীল হয়ে খান। কেন না আমার সাহস নেই বলার, ঘুষ খাবেন না, তা হবে অর্থহীন। রোববার শিক্ষা ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। পুরো অনুষ্ঠানের দুই ঘণ্টার বেশি লাইভ প্রচার হয়। যার বড় অংশজুড়ে ছিল

উৎপল ভয়ে সত্য বলছেননা

  

পিএনএস (তসলিমা নাসরিন) : সাংবাদিক উৎপল দাস ২ মাস ১০ দিন পর অজ্ঞাত স্থান থেকে ফিরে এসেছেন। তাঁকে অপহরণ করেছিল কে বা কারা, আমরা কেউ জানি না। তাঁকে কোথায় রেখেছিল, কেন রেখেছিল, কিছু জানি না। অন্তর্ধানের পর শহরে ফিরে এসে উৎপল দাস প্রায় কিছুই জানাচ্ছেন না। যা বলছেন, তার সবটুকু সত্য বলে আমার মনে হয় না। তিনি বলছেন যারা তাঁকে ধরে নিয়ে গিয়েছিল, তাঁদের কাউকে তিনি দেখেননি। হয় তাঁর চোখ বাঁধা ছিল, নয় দরজা জানালা বন্ধ এমন একটি ঘরে তাঁকে বসে থাকতে হয়েছিল। কেউ খাবার দিয়ে যেত দরজার নিচ দিয়ে। এভাবে ২ মাস ১০

ধর্ষণের মচ্ছব কি থামবেনা?

  

পিএনএস(কাদের গনি চৌধুরী ) : দেশে ধর্ষণের মচ্ছব চলছে। শিশু থেকে ষাট বছরের বৃদ্ধা কেউ রেহাই পাচ্ছে না। ইজ্জত-আব্রু নিয়ে বেঁচে থাকা এখন কঠিন হয়ে পড়েছে। মায়ের সামনে মেয়ে, মেয়ের সামনে মাকে ধর্ষণ করা হচ্ছে।শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বাসা,বাড়ি, কর্মক্ষেত্র, গণপরিবহন কোথাও নারীরা নিরাপদ নয়। নগর থেকে প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত কোথাও না কোথাও প্রায় প্রতিদিনই ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। দিন যতই যাচ্ছে ধর্ষণ ও এর ভয়াবহতা বেড়েই চলেছে। এখন শুধু ধর্ষণই করছেনা, ধর্ষণের পর ধর্ষিতাকে হত্যা করা হচ্ছে।দিনরাত ধারাবাহিকভাবে একই

আমার দ্বিতীয় বাসর রাতে নতুন স্বামীর অপেক্ষায়!

  

পিএনএস ডেস্ক: আজকে আমার বাসর রাত। তবে এইটা আমার প্রথম বাসর না, এর আগেও আরেকটা বাসর আমার হয়েছে, অর্থাৎ এটি আমার দ্বিতীয় বিয়ে। আমার বর্তমান স্বামীরও এটি ২য় বিয়ে এমনকি তার আগের ঘরের দুইটা বাচ্চাও আছে। ওদের বয়স ২ আর ৪ বছর।আমার বিয়ে ৬ বছরের মাথায় ডিভোর্স হয়ে যায়, তখন আমার বাচ্চার বয়স চার বছর। এর পরে বাবার বাড়ি ছিলাম দুই বছর, এখন আবার স্বামীর বাড়ি উঠলাম। বাসর ঘরটা সুন্দর করে সাজানো হয়েছে। কোনো কিছুর কমতি নেই। আমার যখন প্রথম বিয়ে হয় তখন বাসর ঘরে বসে চিন্তা করছিলাম আমার স্বামী মানুষটা কেমন হবে? আর

Developed by Diligent InfoTech