পাঠকের চিঠি

'আল্লাহর কথা চিন্তা করেন' বলে বাসায় গিয়ে পর্ন দেখেন'

  

পিএনএস ডেস্ক: মেয়েরা যা করবে তাই নিয়েই আপনাদের সমস্যা। এতো সমস্যা কেন আপনাদের। কিছুক্ষণ আগে একটা পোস্ট দিয়েছি। সেখানে আমার দুটা ছবি দেয়া আছে। দেখি একজন কমেন্টস করল আপনি বেশি শুকনা, আপনার 'ওয়েট প্রোটন' করা উচিত। অন্যদিকে, আগে মডেলদের বলা হতো- ও বাংলাদেশের নায়িকা মোটা তো হবেই। মানে বাংলাদেশের অভিনেতা-অভিনেত্রীরা মোটা হবেই। যখন আমরা ফিগার সচেতন হই, এগুলো নিয়ে কথা বলি, তখন আবার বলা হয় আপনি বেশি শুকনা, এতো শুকনা কেন? এতো শুকনা হলে ভালো লাগে না। এরপর আবার বলা হয়- বাংলাদেশের মডেল ৫ ফিট ৪

‘রাজনীতি বুঝুক না বুঝুক, সেক্সনীতি বুঝলেই বাপের বয়সী…’

  

পিএনএস ডেস্ক:নিজ দল ও দলীয় নেত্রীদের নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারহানা মিলি। শনিবার সকালে নিজের ফেসবুকে আইডিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।এমন মন্তব্য অনেকে সমর্থন করলেও আবার কেউ কেউ তাকে মাথা ঠাণ্ডা রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। ফেসবুকে রাজনীতি নিয়ে ফারহানা মিলি যা লিখেছেন তা হুবহু তুলে ধরা হলো-‘রাজনীতি বুঝুক না বুঝুক, সেক্সনীতি বুঝলেই বাপের বয়সী সাধারণ সম্পাদকের কোলে বসে ফুরতি (ফুর্তি) করাটাই রাজনীতিতে পদবী পাওয়ার কাজ দেবে!শিক্ষিত না হলে দোষ নাই,

file:///G:/zamil/0c3018cd69cdc6bd3fa0881ba459f322-5a97c85c8b8d5.jpg

পরিচয় দিতে লজ্জা পায় জাতীয় পার্টি!

  

পিএনএস ডেস্ক : মাটি দোআঁশলা হলে ভালো ফসল হয়। কিন্তু রাজনীতি বা রাজনৈতিক দল দোআঁশলা হলে তার ফল ভালো হওয়ার কোনো কারণ নেই। সাবেক স্বৈরাচারী শাসক এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টির দ্বৈত পরিচয় নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চার বছর ধরেই আলোচনা হয়ে আসছিল। জাতীয় পার্টির শীর্ষ নেতারা এসব আলোচনা-সমালোচনা আমলে নেননি।এমনকি এরশাদ প্রকাশ্যে জাতীয় পার্টির মন্ত্রীদের সরকার থেকে পদত্যাগের চরমপত্র দিয়েও সফল হননি। এবারে সরব হয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যান ও সংসদে আলংকারিক বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ।

‘রাজনীতির প্রভু’ ও প্রশাসনের নৈতিকতা

  

পিএনএস ডেস্ক : রাজনীতিকেরা নিজেদের জনগণের সেবক বলে দাবি করেন। আর সেই সেবকের সেবা জনগণের কাছে পৌঁছে দেন সরকারি প্রশাসনযন্ত্র, যাকে আমরা আমলাতন্ত্র বলে অভিহিত করি। কিন্তু রাজনীতি ও আমলাতন্ত্র প্রায়ই জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে পারে না। এ ব্যাপারে একে অপরের ওপর দোষ চাপালেও কেউ আত্মজিজ্ঞাসার মুখোমুখি হন না।আমরা যখন সমাজের কোনো অংশের নীতিনৈতিকতার ঘাটতি তথা অসততার উদাহরণ দিই (সেটি হতে পারে সাংবাদিক, পুলিশ, সরকারি কর্মকর্তা কিংবা অন্য পেশার মানুষ), তখন তার চটজলদি উত্তর দেওয়া হয়, তাঁরা তো সমাজের

একা হওয়া যাবে না?

  

পিএনএস ডেস্ক : তরুণীটি একা যাচ্ছিলেন নিজের বাড়ি। পথে উঠে পড়েন এক ইজিবাইকে। যাত্রীর আসনে আগে থেকেই ছিলেন দুজন তরুণ। তাঁরা একপর্যায়ে তরুণীর সঙ্গে অশোভন আচরণ করতে শুরু করেন। চালক নিয়ে যান একটি নির্জন স্থানে। ইজিবাইক থেকে জোর করে তরুণীকে নামিয়ে পালাক্রমে তিনজন ধর্ষণ করেন। নিজেরা ধর্ষণ করেই ক্ষান্ত হননি; ফোন করে ডেকে নিয়ে আসেন আরও চারজনকে। তাঁরাও ধর্ষণ করেন তরুণীটিকে। ভয়াবহ এই ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজবাড়ী জেলায়।টাঙ্গাইলের মধুপুরে চলন্ত বাসে রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলার বিচারের রায়ে

ও আমার শারীরিক এবং মানসিক চাহিদা মেটাচ্ছে, বিয়ের রাস্তায় যেতে চাই না

  

পিএনএস ডেস্ক:কেমন হয় ‘সিঙ্গল’ মেয়েদের প্রেম-ভালবাসার জগৎ? হয়ত জানেন কিছুটা, কিন্তু বোঝেন অনেক কম। লেখিকা শ্রীময়ী পিউ কুণ্ডুর নতুন বই ‘স্টেটাস সিঙ্গল’-এ উঠে এল এমন অজানা কাহিনি।৩৮ বছরের ডিভোর্সি পিয়াসি সেনচৌধুরী। তাঁর থেকে ১০ বছরের বড়, একজন বিবাহিত সহকর্মীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। সহকর্মীরও এর আগে দু’বার ডিভোর্স হয়েছে। মহিলা জানেন, তাঁর বয়ফ্রেন্ড কোনওদিন নিজের স্ত্রীকে ছেড়ে আসবেন না। কিন্তু তাতেও কোনও অসুবিধা নেই পিয়াসির।তাঁর কথায়, আমি একা থাকি। ও আমার শারীরিক এবং মানসিক

‘প্রশ্নগুলো সহজ আর উত্তরও তো জানা’

  

পিএনএস (সারফুদ্দিন আহমেদ) : আমেরিকার লাখ লাখ নথি ‘লিক’ করে বিশ্বজুড়ে ‘কিলিক’ বাধিয়েছিল উইকিলিকস। বেফাঁস নথি ফাঁস হওয়ার পর দেশে-বিদেশে ফেঁসে গেল কত লোক, তার কোনো লেখাজোকা নাই। মাউসের ক্লিকে ক্লিকে কারও হাঁড়ির খবর, কারও নাড়ির খবর, কারও বাড়ির খবর, কারও গাড়ির খবর, কারও নারীর খবর ভেসে উঠল মনিটরের পর্দায়। এই ফাঁসের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় কেউ চাকরি হারাল, কারও মন্ত্রিত্ব গেল, কারও বউ পালাল। তারপরও সবাই বলল, বেশ হয়েছে। তথ্য গোপন রাখার জিনিস না। সবার তথ্য পাওয়ার হক আছে। তথ্যই সম্পদ।দামি কথা।এই

সাংবাদিক পিটিয়ে পুলিশ কি প্রশংসিত?

  

পিএনএস (এস এম শামীম) : দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নাম পুলিশ। জনগণের জানমালের নিরাপত্তাকারীদের নাম পুলিশ। এমনটাই জেনেছিলাম। কিন্তু এখন এই ধারণা একদমই পাল্টে গেছে। এখন পুলিশ শব্দটা শুনলেই ভুগী নিরাপত্তাহীনতায়। ভাবি এই বুঝি পকেটে কিছু একটা দিয়ে ফাঁসিয়ে ফায়দা লুটতে এসেছে। এই বুঝি অকথ্য ভাষায় গালাগাল করতে এসেছে। এই বুঝি লাঞ্ছিত হতে হবে জনসম্মুখে। কিন্তু কেন, পুলিশের প্রতি এমন ধারণা হওয়ার কারণ কি? দেশের সাধারণ মানুষের কথা নাইবা বললাম, কিন্তু যাদের বলা হয় জাতির বিবেক, যাদের বলা হয় কলম

আসুন, বিয়ের খরচ কমাই

  

পিএনএস (রোকেয়া রহমান) : গত মাসের ঘটনা। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার খড়িয়ালা গ্রামের মিজান মিয়া তাঁর সহকর্মীদের দিয়ে গ্রামেরই এক শিশুকে অপহরণ করান। মুক্তিপণ হিসেবে চাওয়া হয় ৫০ হাজার টাকা। দাবি অনুযায়ী মুক্তিপণ আদায়ও হয়। কিন্তু অপহরণকারীদের চিনে ফেলায় শিশুটিকে হত্যা করা হয়। পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ব্যাগ তৈরির কারখানার শ্রমিক মিজান মিয়ার বিয়ে সম্প্রতি ঠিক হয়েছিল। বিয়ের খরচ জোগানোর জন্য তাঁর হাতে কোনো টাকা ছিল না। তাই টাকা জোগাড়ের জন্য শিশু অপহরণের বুদ্ধি আঁটেন।একই ধরনের ঘটনা

মূল্যবান দীপ্তময় ভাষার জন্য

  

পিএনএস, ফারুক আহমেদ :মূল্যবান দীপ্তিময় তারামূল্যবান দীপ্তময় ভাষার জন্যএই হৃদয়ে তাজা লালগোলাপ চিরন্তন সতেজ ভাষার জন্য।বন্য হই, ধন্য হই।এ বুকে আগুন জ্বলে জলুকএ চোখে অশ্রু ঝরে ঝরুক,এ পাঁজরে প্রেম ভালবাসা,কন্ঠে বাজে গান--সব বাংলা ভাষার জন্য।প্রিয় দুখিনী বাংলা মা আমার।প্রাণের বাংলা ভাষাতেই জানাই ভালবাসি তোমায় মূল্যবান দীপ্তময় বাংলা ভাষা।আমাদের প্রিয় বাংলা ভাষা প্রেমীসালাম বরকত রফিক জব্বারআরও কত দীপ্তময় প্রাণ তোমাদের চোখে চোখ রাখলেপৃথিবীর সমস্ত সৌন্দর্য্য থমকে

Developed by Diligent InfoTech