মহিলাঙ্গন

বিয়ের পর যেসব কারণে ওজন বেড়ে যায়!

  

পিএনএস ডেস্ক : বিয়ের পর প্রতিটি মানুষের স্বাস্থ্যগত কিছু পরিবর্তন দেখা দেয়। এ সময় নারী-পুরুষ উভয়েরই ওজন বাড়ে। আবার কখনও নারীর বাড়ে, কিন্তু পুরুষের ওজন ঠিকই থাকে।বিয়ে কিংবা সম্পর্কে জড়ালে ওজন কেন বাড়ে? এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা একটি জরিপ চালিয়েছেন।জরিপের নমুনায়ন হিসেবে দুই হাজার মানুষকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হয়। ওই জরিপে দেখা গেছে, জরিপে অংশ নেয়া নারী-পুরুষের ৭৯ শতাংশেরই ১৬ কেজির মতো ওজন বেড়েছে সম্পর্ক শুরুর পর।এ ওজনটাকে বলা হচ্ছে- ‘লাভ ওয়েট’ বা ‘ভালোবাসার ওজন’।

গুড়ের পায়েস তৈরি

  

পিএনএস ডেস্ক: পায়েসের নাম শুনলে জিভে জল আসে অনেকেরই। বিশেষ করে মিষ্টিজাতীয় খাবার খেতে যারা ভালোবাসেন, তাদের খুবই প্রিয় খাবার এটি। আর তা যদি হয় গুড়ের পায়েস তাহলে তো কথাই নেই। চলুন জেনে নেই গুড়ের পায়েস তৈরির রেসিপি-উপকরণ: পোলাওয়ের চাল আধা কাপ (ভেজানো), দুধ এক লিটার, খেজুরের গুড় ৪০০ গ্রাম, নারিকেল কোরানো ১ কাপ, তেজপাতা ২টি, দারুচিনি ২ টুকরো, কিশমিশ ১ টেবিল-চামচ, বাদাম কুচি ১ টেবিল-চামচ, লবণ খুব সামান্য, পানি পরিমাণমতো।প্রণালি: দুধ ফুটিয়ে এক লিটার থেকে ঘন করে আধা লিটার করতে হবে। গুড় এক কাপ

জেনে নিন বেবি পাউডারের অজানা ব্যবহার

  

পিএনএস ডেস্ক: শিশুর ত্বক আমাদের মতো নয়। ওদের ত্বক অামাদের তুলনায় অনেক বেশি স্পর্শকাতর। তাইতো তাদের প্রসাধনীও তৈরি হয় কম ক্ষারের উপাদান দিয়ে। সেরকমই একটি প্রসাধনী বেবি ট্যালকম পাউডার।শিশুর যত্ন নেয়া ছাড়াও আরো অনেক কাজে ব্যবহার করা যায় বেবি পাউডার। কম ক্ষার থাকার কারণেই এই ধরনের পাউডারকে নানা রকম ভাবে ব্যবহার করা হয়। অনেক পরিচিত সমস্যারই সমাধান মিলবে এই বেবি পাউডারে-অনেকেরই পা খুব ঘামে, তাই জুতা খুললেই দুর্গন্ধ বের হয়। এক্ষেত্রে মোজা পরার আগেই শিশুদের ব্যবহৃত ট্যলকম পাউডার মেখে নিন পায়ের

মজাদার গুলগুলি

  

পিএনএস ডেস্ক: গুলগুলি কিংবা গুলগুলা যে নামেই ডাকা হোক, স্বাদ কিন্তু একইরকম অনন্য। অনেকেই হয়তো এই খাবারটির সাথে পরিচিত। বেশিরভাগ সময়েই এর দেখা মেলে রাস্তার পাশের দোকানগুলোতে। কিন্তু অস্বাস্থ্যকর ভেবে কিনে খান না অনেকেই। তাই ঘরেই তৈরি করতে পারেন মজাদার এই খাবারটি। চলুন জেনে নেই রেসিপি-উপকরণ: ৪ কাপ, বেকিংসোডা ২ টেবিল চামচ, চিনি ১ কাপ, লবণ পরমাণমতো, কালোজিরা, তেল পরিমাণমতো, পানি পরিমাণমতো।প্রণালি: পানি ছাড়া সব উপকরণ মিলিয়ে নিন। এবার একটু একটু করে পানি মেশান। গোলা খুব বেশি পাতলা হবে না।

কদবেলের আচার

  

পিএনএস ডেস্ক: কদবেল বেশ উপকারী একটি ফল। এর রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। টক এই ফলটি দিয়ে তৈরি করা যায় জিভে জল আনা আচার। চলুন রেসিপি জেনে নেই-উপকরণ: কদবেল-দেড় কাপ, সরিষার তেল-আধা কাপ, রসুন বাটা-১ চা চামচ, পাঁচফোড়ন-আধা চা চামচ, শুকনা মরিচ-২টি, সাদা ভিনেগার-১/৩ কাপ, চিনি-১/৪ কাপ, মরিচ গুঁড়া-১ চা চামচ, লবণ-১ চা চামচ, বিট লবণ-১ চা চামচ।প্রণালি: আচার তৈরির জন্য একদম গাছপাকা কদবেল ব্যবহার করলে সবচেয়ে ভালো হয়। কদবেল হাত দিয়ে খুব ভালো করে চটকে নিন। প্যানে তেল দিন। তেল হালকা গরম হলে রসুন বাটা দিয়ে কয়েক

নকশি পিঠার রেসিপি

  

পিএনএস ডেস্ক: নকশি পিঠা তৈরি করা হয় নানা উপলক্ষেই। বাড়িতে অতিথি এলে কিংবা বিভিন্ন উৎসবে তো বটেই, বিকেলের নাস্তায়ও এটি চমৎকার একটি খাবার। চলুন জেনে নেই নকশি পিঠা তৈরির রেসিপি-উপকরণ: নতুন চালের গুঁড়া ২ কাপ, ময়দা আধা কাপ, লবণ সামান্য, গুড় বা চিনি ২ কাপ, পানি ১ কাপ, দারুচিনি ২ টুকরা, এলাচি ২টি।প্রণালি: গুড় বা চিনি, পানি, এলাচি, দারুচিনি চুলায় জ্বাল দিয়ে সিরা করে নিন। চালের গুঁড়া শুকনা খোলায় টেলে নিন, দেড় কাপ বা তার একটু কম পানিতে লবণ দিয়ে চুলায় দিন। ফুটে উঠলে চালের গুঁড়া ও ময়দা

ভেজাল দুধ চিনার উপায়

  

পিএনএস ডেস্ক: ভেজালের ভিড়ে আসল-নকল চেনাই মুশকিল। পুষ্টির আশায় যে দুধ কিনে আনছেন তা আসলে কতটা খাঁটি? তা নির্ণয় করারও উপায় থাকে না সবসময়। আবার এই ভেজাল দুধ আমাদের শরীরে প্রবেশ করে উপকারের বদলে অপকার করে। কারণ হতে পারে নানা কঠিন অসুখের। তবে উপায় জানা থাকলে আপনিও বুঝতে পারবেন দুধে ভেজাল মিশ্রিত কি না। কিভাবে? চলুন জেনে নেয়া যাক-অল্প একটু দুধ মাটিতে ঢালুন। যদি দেখেন গড়িয়ে গিয়ে মাটিতে সাদা দাগ রেখে যাচ্ছে, তা হলে দুধ খাঁটি। ভেজাল হলে মাটিতে সাদা দাগ পড়বে না।দুধ গরম করতে গেলেই কি হলদেটে হয়ে

হাঁসের ঝাল মাংস

  

পিএনএস ডেস্ক: শীতের মৌসুমটাই হাঁসের মাংস বেশি খাওয়া হয়। গরম ভাত, রুটি কিংবা পোলাওয়ের সঙ্গে তো বটেই, গরম গরম চিতই পিঠার সঙ্গেও হাঁসের মাংস খেতে বেশ। চলুন জেনে নেই হাঁসের ঝাল মাংস রান্নার রেসিপি-উপকরণ: হাঁস ১টি, পেঁয়াজ কুচি ২ কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ২ চা চামচ, মরিচগুঁড়ো ২ চা চামচ, এলাচ ৪টি, দারুচিনি ৩ টুকরা, কাঁচামরিচ ৬টি, আস্ত শুকনো মরিচ ৩টি, তেল আধা কাপ, জিরাগুঁড়ো ১ চা চামচ, লবণ ২ চা চামচ, জায়ফল গুঁড়ো এক চিমটি।প্রণালি: পেঁয়াজ তেলে বাদামি করে ভেজে সব মসলা দিয়ে কিছুক্ষণ

দারচিনির সঙ্গে মধু মিশিয়ে খান আর ম্যাজিক দেখুন

  

পিএনএস ডেস্ক : দারচিনি গাছ যত ছোট তার গুণ তার থেকে অনেক বড়। দারচিনি আমরা মূলত রান্নার মশলা হিসাবে ব্যবহার করে থাকি, কিন্তু এই দারচিনি অনেক কঠিন রোগ থেকে আমাদের মুক্তি দিতে পারে। দারচিনি রক্ত পরিশোধক হিসাবে খুব উপকারি । দারচিনি আমাদের শরীরের মেদ কমাতে সাহায্য করা থেকে কোলেস্টেরল-সর্দি-কাশি পেটের রোগ নিরাময়ে সাহায্য করে।এক চামচ মধুর সঙ্গে দারচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে সকাল সন্ধ্যা খেলে সর্দি কাশি থেকে আরাম পাওয়া যায় । মাথাব্যথায় এই দারচিনির উপকারিতা অতুলনীয়৷ গুঁড়ো দারচিনি অল্প জলের সঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট

জলপাইয়ের টক-ঝাল আচারের রেসিপি

  

পিএনএস ডেস্ক: বাজারে পাওয়া যাচ্ছে জলপাই। আচারপ্রেমীদের এখন আচার তৈরির মৌসুম। টক এই ফলটি দিয়ে নানা স্বাদের আচার তৈরি করা যায়। আজ চলুন জেনে নেই জলপাইয়ের টক-ঝাল আচার তৈরির রেসিপি-উপকরণ: জলপাই ৫০০ গ্রাম, সরিষার তেল পরিমাণমতো, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, লাল গুঁড়া মরিচ ২ টেবিল চামচ, পাঁচফোড়ন ১ টেবিল চামচ, শুকনা লাল মরিচ ২-৪টি আস্ত, হলুদ গুঁড়া সামান্য এবং বিট লবণ ১ চা চামচ। ধনিয়া ও শুকনা মরিচ টেলে নিয়ে গুঁড়া করতে হবে ৩ টেবিল চামচ।প্রণালি: প্রথমে জলপাইয়ের বোঁটা ফেলে ভালো করে ধুয়ে নিয়ে কেঁচে সামান্য

Developed by Diligent InfoTech