মেলায় ব্যাংকিং সেবা

  

পিএনএস ডেস্ক: মাসব্যাপী ২৩তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ক্রেতা-বিক্রেতা ও দর্শনার্থীদের আর্থিক লেনদেন সহজ ও নিরাপদ করতে প্রয়োজনীয় ব্যাংকিং সেবা দিচ্ছে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংক। এটিএম বুথের পাশাপাশি রয়েছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সুবিধা। শুধু তা-ই নয়, মেলার স্টলমালিকদের জন্য রয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। সারাদিনের বেচা-কেনার অর্থ সহজেই এসব ব্যাংকে জমা দেয়া যাবে।

একই সঙ্গে ব্যাংকের হিসাব খোলা ও ঋণ-আমানত সংক্রান্ত তথ্যসহ বিভিন্ন সুবিধা গ্রহণ করা যাবে মেলায় স্থাপিত এসব ব্যাংকের প্যাভিলিয়ন থেকে। এবারের মেলায় অংশ নেয়া ব্যাংকগুলোর মধ্যে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ও জনতা ব্যাংক, বেসরকারি ইসলামী ব্যাংক, ডাচ-বাংলা ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান উল্লেখযোগ্য। এছাড়া রয়েছে মোবাইল ব্যাংকিং সেবাপ্রদানকারী সংস্থা বিকাশ ও রকেট। এর মাধ্যমে মোবাইলে অর্থ জমা, তোলা ও স্থানান্তরের সুবিধা পাবেন গ্রাহকরা।

মেলায় অংশ নেয়া ব্যাংক কর্মকর্তারা জানান, ক্রেতা-দর্শনার্থীদের লেনদেনের সুবিধার্থে মেলায় সেবা দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। কেনাকাটা করতে চাহিদামতো টাকা তোলা এবং বিক্রেতাদের নগদ টাকা জমা নেয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এ সেবা দেয়া হবে। এসব শাখায় পণ্যের ভ্যাট পরিশোধ, এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা পাঠানোর মতো সেবাও পাওয়া যাবে। পাশাপাশি এটিএম বুথের মাধ্যমে নগদ টাকা তোলারও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

গ্রাহকরা ইচ্ছা করলে মেলায় ব্যাংকগুলোর স্টলে বসে নতুন হিসাব খোলা, বিভিন্ন আমানত ও ঋণ প্রকল্প এবং ব্যাকের নতুন নতুন পণ্যের সঙ্গে পরিচয়ও হতে পারবেন।

মেলায় বেসরকারি ইসলামী ব্যাংকের দায়িত্বরত কর্মকর্তা মোতালেব হোসাইন বলেন, ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের ব্যাংকিং সুবিধা দিতে মেলায় আমাদের অংশ নেয়া। এছাড়া লেনদেনের সুবিধার্থে এটিএম বুথের মাধ্যমে নগদ টাকা উত্তোলনেরও সুবিধা আমরা দিচ্ছি।

নতুন হিসাব খোলা, নগদ টাকার জমা ও উত্তোলনসহ আমানত ও ঋণ প্রকল্প সম্পর্কে দর্শনার্থীদের বিভিন্ন তথ্য ও সেবা প্রদানে উদ্দেশ্যে আমাদের মেলায় অংশগ্রহণ- বলে জানান তিনি।
তিনি আরো বলেন, রোববার মেলার প্রথম দিন। লোকসমাগম কম। এরপরও লোকজন সেবা ও তথ্য নিতে এখানে আসছেন। আমরা সাধ্য মতো তাদের সেবা দিয়ে যাচ্ছি।

নিরাপদ আর্থিক লেনদেন কিংবা বড় অংকের লেনদেনের জন্য তিনি ব্যাংকিং সেবা নিতে ক্রেতা-বিক্রেতা সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

বেসরকারি চাকুরিজীবী মোহাম্মদ জুয়েল বলেন, মেলার প্রথম দিনে বন্ধুকে নিয়ে ঘুরতে এসেছি। এখানে এসে একটি ব্লেজার পছন্দ হয়েছে। ব্যাংকের বুথ থেকে টাকা তুলে ব্লেজার কিনেছি। মেলায় ব্যাংকিংয়ের সুবিধা রাখায় তিনি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদও জানান।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech