এলাচ কেজিতে বেড়েছে ১০০ টাকা

  

পিএনএস ডেস্ক : কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে মসলার বাজারে আগুন ধরেছে আরও আগেই। তবে অন্যান্য গরম মসলার চেয়ে এলাচের দাম বেড়েছে বহুগুণ। ভোগ্যপণ্যের সর্ববৃহৎ পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ থেকে করা প্রতিবেদনে এমন তথ্যই উঠে এসেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে- এই ঈদে এলাচের দাম কেজিতে বেড়েছে ১০০ টাকা।

ঈদের আগে দেশের বাজারে বাড়তি চাহিদা ও আন্তর্জাতিক বাজারে বুকিং দর বেড়ে যাওয়ার জের ধরে এলাচের দাম বাড়তে শুরু করেছে বলে জানান খাতুনগঞ্জের মসলা ব্যবসায়ী ও আমদানিকারকরা।

চাক্তাই-খাতুনগঞ্জ বাজারে মসলার পাইকারি আড়তগুলো ঘুরে প্রতি কেজি এলাচ মানভেদে ১ হাজার ৬০০ টাকা থেকে ১ হাজার ৮৪০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। এর মধ্যে গুয়েতেমালা থেকে আমদানি করা প্রতি কেজি জিবিসি এলাচ বিক্রি হয় ১ হাজার ৬০০ টাকায়। গত সপ্তাহের শুরুর দিকে স্থানীয় বাজারে প্রতি কেজি জিবিসি এলাচ বিক্রি হয়েছিল ১ হাজার ৫০০ টাকায়। সেই হিসাবে, এক সপ্তাহে পণ্যটির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০০ টাকা।

আমদানিকৃত এলএমজি এলাচের দামেও দেখা গেছে একই চিত্র। খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি এলএমজি এলাচ ১০০ টাকা বেড়ে বিক্রি হয় ১ হাজার ৬২০ টাকায়। এক সপ্তাহ আগে পণ্যটি কেজিপ্রতি ১ হাজার ৫২০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, দেশের পাইকারি বাজারে আমদানি করা এলএমজি ও জিবিসি এলাচের চাহিদা ও বিক্রি বেশি। তাই এসব এলাচের দামের ওঠানামার সঙ্গে পরিবর্তন হয় অন্যান্য জাতের এলাচের দামও।

এদিকে দাম তুলনামূলক বেশি হওয়ায় খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে বেচাকেনা কমেছে আরএস জাম্বো এলাচের। পণ্যটি কেজিপ্রতি ১ হাজার ৮৪০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা যায়। সপ্তাহের শুরুতে স্থানীয় বাজারে এ এলাচ কেজিপ্রতি ১ হাজার ৭৮০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। সেই হিসাবে, সপ্তাহান্তে এ এলাচের দাম কেজিতে ৬০ টাকা বেড়েছে।

স্থানীয় মসলা ব্যবসায়ী বিপুল বড়ুয়া বলেন, খাতুনগঞ্জ পাইকারি বাজারে প্রতি দিন ৫-৬ টন এলাচ বেচাকেনা হয়। পরে এসব এলাচ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চলে যায়। তবে কোরবানি ঈদের আগে পণ্যটির বেচাকেনা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। এবারো এর ব্যতিক্রম হয়নি। বাড়তি চাহিদা ও কেনাবেচার কারণে মসলাপণ্যটির দামও আগের তুলনায় বাড়তি রয়েছে।

তিনি জানান, আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়তি বুকিং দরের কারণে এবার দেশে পর্যাপ্ত এলাচ আমদানি হয়নি। এরই মধ্যে কোরবানি ঈদ সামনে রেখে মসলাপণ্যটির চাহিদা ও বেচাকেনা বেড়ে গেছে। ফলে খাতুনগঞ্জ পাইকারি বাজারে এলাচের সাময়িক সরবরাহ সংকট তৈরি হয়েছে। মূলত এ কারণে দীর্ঘদিন স্থির থাকার পর গত সপ্তাহ থেকে এলাচের দাম বাড়তে শুরু করেছে।

তবে স্থানীয় মসলা ব্যবসায়ী সেকান্দার হোসেন বলেন, ‘এখন বাজারে আমদানি করা এলাচ আরও আগে থেকে পুরোনো দামে কেনা ছিল। আন্তর্জাতিক বাজারের ঊর্ধ্বমুখী দাম পুঁজি করে ব্যবসায়ীরাও বাড়তি মূল্য হাঁকাচ্ছেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech