৫ দফায় বৃদ্ধির পর কমলো সোনার দাম

  

পিএনএস : দেড় মাসে টানা ৫ দফায় বৃদ্ধির পর অবশেষে সোনার দাম কমছে। ভালো মানের সোনার ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। ফলে আগামীকাল বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) থেকে ২২ ক্যারেট সোনা প্রতি ভরি ৫৬ হাজার ৮৬২ টাকায় বিক্রি হবে। মঙ্গলবার স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছে।

জানা যায়, আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম কমে যাওয়ায় দেশের বাজারেও সোনার দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাজুস। যদিও গত আগস্ট মাসেই পরপর চারবার সোনার দাম বাড়িয়েছিলেন জুয়েলারি ব্যবসায়ীরা।

নতুন দাম অনুযায়ী, প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট (১১.৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম পড়বে ৫৬ হাজার ৮৬২ টাকা। এই মানের সোনা প্রতি গ্রাম বিক্রি হবে ৪ হাজার ৮৭৫ টাকা করে। প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট সোনার দাম পড়বে ৫৪ হাজার ৪১৭ টাকা। ১৮ ক্যারেট সোনার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি ভরি ৪৯ হাজার ৫১৩ টাকা। প্রতি ভরি সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ২৯ হাজার ১৬০ টাকা। এছাড়া, প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপার (ক্যাডমিয়াম) দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৯৩৩ টাকা। তবে ২৩ ক্যারেট প্লাটিনাম আগের দাম অর্থাৎ প্রতি ভরি বিক্রি হবে ৬৫ হাজার ২৬ টাকায়।

সর্বশেষ এর আগে গত ২৭ আগস্ট সোনার দাম বাড়ানো হয়েছিল। তখনও ভালো মানের সোনার ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা বাড়ানো হয়েছিল। এরও আগে ১৮ আগস্ট সব ধরনের সোনার দর ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা করে বাড়ানো হয়। তার আগে গত ৮ আগস্ট প্রতি ভরিতে এক হাজার ১৬৬ টাকা বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। তার মাত্র এক দিন আগে ৬ আগস্ট সব ধরনের সোনার দাম একই পরিমাণ বাড়ানো হয়েছিল। তার আগের মাসে ২৪ জুলাই আরেক দফা বাড়ানো হয়েছিল সোনার দর। তখনও ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা বাড়ানো হয়েছিল।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech