অভিজিৎ হত্যায় চারদিনের রিমান্ডে রাজু

  

পিএনএস ডেস্ক: ব্লগার ও লেখক অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় ‘আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের অপারেশন শাখার’ সদস্য সুবর ওরফে রাজু ওরফে সাদের চারদিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার(১৫এপ্রিল) ঢাকার মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসিন আহসান চৌধুরী এ আদেশ দেন।

ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার আনিসুর রহমান এনটিভি অনলাইনকে জানান, গত ২ এপ্রিল ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাউন্টার টেরিজম ইউনিটের পুলিশ পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম আসামি সাদকে হাজির করে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদনসহ ১০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আজ মামলার রিমান্ড শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করেন বিচারক।

আনিসুর রহমান জানান, রিমান্ড শুনানি উপলক্ষে আসামি সাদকে ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

২০১৫ সালে ২ নভেম্বর রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানার অন্য একটি মামলায় সবুরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর থেকে তিনি সেই মামলায় কারাগারে আটক রয়েছেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত সোয়া ৯টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় অভিজিৎকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় অভিজিতের স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যাও গুরুতর আহত হন।

এ ঘটনায় অভিজিতের বাবা অধ্যাপক অজয় রায় বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের করেন।

হত্যাকাণ্ডের তদন্তে পুলিশকে সহায়তা করতে ঢাকায় আসে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই)।

এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁরা সবাই আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য বলে দাবি করে পুলিশ।

আবার চট্টগ্রাম থেকে আটক ব্লগার শফিউর রহমান ফারাবি ও অনন্ত বিজয় দাস খুনের আসামি মান্নান ইয়াহিয়া ওরফে মান্নান রাহীর বিরুদ্ধে অভিজিৎ হত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ আনা হয়েছে।

গ্রেপ্তার অন্য ছয়জন হলেন ব্রিটিশ নাগরিক তৌহিদুর রহমান, সাদেক আলী, আমিনুল মল্লিক, জুলহাস বিশ্বাস, আবুল বাশার ও জাফরান হাসান।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech