‘থাপ্পড় খেলায়’ প্রাণ গেল স্কুলছাত্রের

  

পিএনএস ডেস্ক:খেলাধুলা বিনোদনের জন্য। মনের মনোরঞ্জনে বিশ্বের নানা প্রান্তে হরেকরকম খেলার প্রচলন দেখা যায়। কিন্তু, এ কেমন খেলা, যাতে প্রাণই দিতে হয়! পাকিস্তানের পাঞ্জাবে এমনই ‘থাপ্পড় খেলা’ করতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্র। খবর: এক্সপ্রেস ট্রিবিউন ও এনডিটিভি।

পাঞ্জাবের মিয়ান চান্নু সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে টিফিন টাইমে ‘থাপ্পড় কাবাডিতে’ অংশ নেয় বিলাল ও আমির নামের দুই ছাত্র। এ সময় আমির বিলালের ঘাড়ে উপযুপুরি আঘাত করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, খেলা চলাকালীন বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়ে তা উপভোগ করেন।

খেলাটি চলতি মাসের শুরুর দিকে হলেও গত শনিবার তার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

এতে দেখা গেছে, খেলার শুরুতে বিলাল এবং আমির পরস্পরকে চড় মারতে থাকে, যে যতটা পারছে। কিন্তু, পরিস্থিতি হঠাৎ করেই জটিল আকার নেয়। আমিরের থাপ্পড়ে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বিলাল।

কিন্তু, সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় বিলালকে কেউ প্রাথমিক চিকিৎসা কিংবা নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যায়নি। প্রায় দেড় ঘণ্টা পর তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়, ততক্ষণে সব শেষ।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে বিলালকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিতে ব্যর্থ হয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে স্থানীয় পুলিশ স্কুলছাত্রের লাশের কোনো ময়নাতদন্তই করেনি।

এজন্য অবশ্য স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবিদ হোসাইন এবং বিলালের মা-বাবাকেও দোষারোপ করা হচ্ছে। কারণ, তারা ঘটনাটি পুলিশকে জানাননি।

থাপ্পড় কাবাডিকে চান্তা কাবাডিও বলা হয়। পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের অনেক শহরে এটি খুবই জনপ্রিয় খেলা।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech