নারী আইনজীবিকে বাসে রাত কাটনোর প্রস্তাব

  

পিএনএস ডেস্ক : রাঙামাটিতে একনারী যাত্রীকে গাড়িতে রাত কাটানোর প্রস্তাব দিয়েছে ইউনিক পরিবহনের চালক ও হেলপার। এ্যাডভোকেট ভূক্তভোগি ওই নারী বলেন, পেশাগত কারণে তিনি ঢাকায় গিয়েছিলেন। চলতি মাসের গত ৬ই মে রাজধানী ঢাকা থেকে ইউনিক পরিবহনের বাস (নাম্বার-৯১১০) সন্ধ্যা ৭.৪০ মিনিটে ছেড়ে রাঙামাটির উদ্দেশ্যে আসে। আমিও আমার অপর সহকর্মী সেই গাড়ির যাত্রী ছিলাম। পরের দিন হরতাল তাই দ্রুতগতিতে উক্ত গাড়িটি রাত আড়াইটার সময় রাঙামাটিতে চলে আসে। এসময় শহরের ভেদভেদীতে আমার নারী সহকর্মীটি নেমে যায়।

পরে শহরের পুরাতান বাস ষ্টেশন দোয়েল চত্তর এলাকায় আমাকে নেমে যেতে বলে গাড়ির ড্রাইভার জাহাঙ্গীর ও সুপারভাইজার বাবলু। এসময় আমি তাদেরকে বললাম, ভাই আমি একজন নারী এতোরাতে আমি তবলছড়িতে কিভাবে যাবো। আর আপনারাতো তবলছড়িতে যাত্রীদের নামিয়ে দেয়ার কথা। আমার এমন কথার জবাবে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ন ভাষার ব্যবহার করে আমার সঙ্গে।

এক পর্যায়ে তারা আমাকে গাড়িতে রাত কাটানোর আহবান জানায়। এমতাবস্থায় রাত আড়াইটার সময় রাস্তায়ই নেমে যাই। পেশায় আইনজীবি নারী আরো বলেন, গত দুইদির চেষ্টার পর আমি সেই গাড়ির ড্রাইভার ও সুপারভাইজার এর নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করি। এরপর আমি ইউনিক কর্তৃপক্ষের জিএম জনাব হক সাহেবকে ঘটনাটি জানালে তিনি আমাকে একটি লিখিত অভিযোগ দিতে বলেন। পরে আমি আমার আইনজীবি সমিতির পরামর্শে একটি লিখিত অভিযোগ রাঙামাটি ইন্দ্রপূরী সিনেমা হলের সামনের কাউন্টারে জমা দিয়ে এসেছি।

ইউনিক পরিবহনের জিএম জনাব হকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি অভিযোগটি মুঠোফোনে পেয়েছি। রাঙামাটি আইনজীবি সমিতির নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে অভিযোগ পেয়ে আমি একটি লিখিত অভিযোগ জমা দিতে বলেছি। আমি অলরেডি সেই চালক ও সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech