প্রেমিকাকে হোটেলে নিয়ে গণধর্ষণ

  

পিএনএস ডেস্ক: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌর শহরের স্টেশন রোডে একটি আবাসিক হোটেলে রাত্রিযাপনের কথা বলে এক তরুণীকে তার প্রেমিক ও সহযোগীরা ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতারের পর রোববার তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) বিনয় ভূষণ রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও নির্যাতনের শিকার তরুণী সূত্রে জানা যায়, কুলাউড়া পৌর শহরের মধ্যচাতলগাঁও গ্রামের বাসিন্দা সামী আহমদ (২২) সাভারের একটি পোশাক কারখানায় শ্রমিকের কাজ করেন। এই কোম্পানির সহকর্মী তরুণীর (২০) সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত শুক্রবার সামী ওই তরুণীকে বেড়ানোর কথা বলে সিলেটে নিয়ে আসেন।

পুলিশ জানায়, সিলেটের বিভিন্ন স্থানে ঘুরাঘুরি করে ওইদিন রাতের ট্রেনে কুলাউড়ায় পৌঁছে স্টেশন রোডের একটি আবাসিক হোটেলে রুম ভাড়া নেয় সামী। রাতে সামীসহ তার সহযোগী আল আমিন, শাহান ও সিলেটের মোগলাবাজারের কাশেম (২২) তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ খবর জানার পর পুলিশ রাত সাড়ে তিনটার দিকে ওই হোটেলে অভিযান চালিয়ে চারজনকে আটক করে। এসময় কাশেম নামে একজন পালিয়ে যান।

ওই তরুণী জানান, অভাবের তাড়নায় বছর খানেক আগে তিনি সাভারের পোশাক কারখানায় চাকরিতে যোগ দেন। প্রেমের ফাঁদে পড়ে সর্বস্ব হারিয়েছেন। ছয়জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন।

ওসি (তদন্ত) বিনয় ভূষণ রায় জানান, জিজ্ঞাসাবাদে আটক সামী, আল আমিন ও শাহান ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। আটকদের রোববার মৌলভীবাজার আদালতে পাঠানো হলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

তিনি জানান, প্রয়োজনীয় ডাক্তারি পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য তরুণীকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech