বৃদ্ধা “মা” কে নির্যাতন, ছেলেসহ বউ আটক

  

পিএনএস ডেস্ক : সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বড়কুপট গ্রামে বৃদ্ধা শাশুড়ি ফুলবাসীকে নির্যাতনের অভিযোগে ছেলে ও বউকে আটক করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, প্রভাষ মণ্ডল ও তার স্ত্রী আশা রানী।

শুক্রবার (৬ জুলাই) দুপুরে আশি ঊর্ধ্বে ফুলবাসীকে পায়খানা-প্রসাব করার জন্য তার ছেলের বউ আশা রানী লাঠি দিয়ে পেটাচ্ছেন এবং তুই-তোকারি করছেন। এমন এক ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ১ মিনিট ১৯ সেকেন্ডের ভিডিও ফুটেজে দেখার পর উপজেলার বড়কুপট গ্রাম থেকে পুলিশ তাদের আটক করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শাশুড়ি ফুলবাসী কে ঠিকমতো খাবারও দেওয়া হয় না। পায়খানা-প্রসাব করায় ফুলবাসীকে প্রতিদিন নির্যাতন করেন আশা রানী। ঘটনার দিন স্থানীয় এক যুবক নির্যাতনের বিষয়টি দেখতে পেয়ে ভিডিও করে। এরপর স্থানীয় পুলিশের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করে। বিষয়টি পুলিশের দৃষ্টিগোচর হলে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই বৃদ্ধাকে বাঁধা অবস্থায় পায় । পরে ছেলে ও তার স্ত্রীকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ।

এ ব্যাপারে শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আব্দুল মান্নান সাংবাদিকদের বলেন, ওই বৃদ্ধার ছেলে ও তার স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

তিনি জানান, ফুলবাসী বর্তমানে তার বাড়িতেই ভালো আছেন। তার খাবারের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে। ছেলে ও বউকে আটক করায় তাকে দেখার মতো কেউ নেই। তারপরও তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech