গৃহবধূর কানের লতি ছিঁড়ে দুল নিয়ে গেল চোর! - অপরাধ - Premier News Syndicate Limited (PNS)

গৃহবধূর কানের লতি ছিঁড়ে দুল নিয়ে গেল চোর!

  

পিএনএস ডেস্ক : রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় ঘুমন্ত এক গৃহবধূর কানের দুল চুরি করতে গিয়ে কানের লতিসহ ছিঁড়ে নিয়ে পালিয়েছে এক চোর। ওই গৃহবধূকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত গৃহবধূর নাম আয়েশা বেগম (৫২)। তিনি উপজেলার বড়বিহানালী ইউনিয়নের হরিণমারা গ্রামের আকবর আলীর স্ত্রী।

আহত আয়েশা বেগমের মেয়ে শাহানারা সাংবাদিককে বলেন, রোববার দিবাগত রাতে খাবার খেয়ে তিনি ও তাঁর মা জানালা খুলে খাটে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত আড়াইটার দিকে এক চোর জানালা দিয়ে হাত ঢুকিয়ে তাঁর মায়ের ডান কানে থাকা সোনার দুল ধরে টান দেয়।

এতে কান ছিঁড়ে যায় এবং সোনার দুল নিয়ে পালিয়ে যায় ওই চোর। এ সময় তাঁর মায়ের চিৎকারে পরিবারের অন্য সদস্যদের ঘুম ভেঙে যায়। পরে চোরকে ধরার তৎপরতা চলানো হলে তাকে ধরা সম্ভব হয়নি। তবে ঘরের বাইরে জানালার পাশে চোরের ফেলে যাওয়া একটি মুঠোফোন পেয়েছেন তাঁরা।

এ ঘটনার পর আহত আয়েশা বেগমকে স্থানীয় এক পল্লি চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া যায়। পরে তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

গৃহবধূ আয়েশা বেগম বলেন, বেশ কয়েক বছর আগে ১৬ হাজার টাকা দিয়ে তিনি কানের সোনার দুল তৈরি করেছিলেন। গতকাল রাতে চোর একটি দুল নিয়ে পালিয়েছেন। জোরে টান দেওয়ার কারণে তাঁর ডান কানের নিচের অংশ ছিঁড়ে গেছে।

বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম সাংবাদিককে বলেন, ‘ওই গৃহবধূর কানের লতি ছিঁড়ে গেছে। তাঁর চিকিৎসা চলছে। তবে তিনি আশঙ্কামুক্ত।’

এ ঘটনায় আয়েশা বেগমের স্বামী আকবর আলী বাদী হয়ে আজ সোমবার দুপুরে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ সাংবাদিককে বলেন, তিনি বাইরে ছিলেন, ঘটনাটি জানেন না। তবে খোঁজ নিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech