ফের অস্ত্রসহ বিমানবন্দরে আ.লীগ নেতা আটক

  

পিএনএস ডেস্ক : হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে ফের অস্ত্র নিয়ে ঢোকায় মুজিবুর রহমান নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে আটক করেছে অ্যাভিয়েশন সিকিউরিটি (অ্যাভসেক)।

শুক্রবার (২২ মার্চ) সন্ধ্যায় তাকে আটক করা হয়। বিমানবন্দর অ্যাভিয়েশন সিকিউরিটি অপারেশনের পরিচালক নূরে আলম সিদ্দিকী এ খবর নিশ্চিত করেন।

আটক মুজিবুর রহমান সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক। এছাড়া, তিনি নিজেকে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট বলে দাবি করেছেন।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে আসেন মুজিবুর রহমান। এ সময় অ্যাভিয়েশন সিকিউরিটির এক সদস্যের তল্লাশিতে তার সঙ্গে পিস্তল ও ৩২ রাউন্ড গুলি থাকার বিষয়টি ধরা পড়ে। মুজিবুর রহমান পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই অস্ত্র ও গুলি নিয়ে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে আসেন।

বিমানবন্দর অ্যাভিয়েশন সিকিউরিটি অপারেশনের পরিচালক নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, পূর্ব ঘোষণা না দেওয়ায় ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও (১১ মার্চ) অস্ত্র নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবেশের অভিযোগে মেহেদী মাসুদ চৌধুরী নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে আটক করেছিলেন নিরাপত্তা কর্মীরা।আটক মেহেদী মাসুদ যশোরের চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফুলসর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।

চট্টগ্রামে বিমান ছিনতাই-চেষ্টার ঘটনায় প্রাপ্ত খেলনা পিস্তলের তদন্ত শেষ না হতেই গত ৫ মার্চ লাইসেন্স করা পিস্তল নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের স্ক্যানিং মেশিন পার হন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

এ নিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন দাবি করেন, স্ক্যানিং মেশিনে অস্ত্র শনাক্ত না হওয়ায় তিনি নিরাপত্তকর্মীদের বিষয়টি জানান। তবে তার বক্তব্যকে অসত্য বলে মন্তব্য করে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়। সেসময় বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিয়ে দেশব্যাপী সমালোচনা শুরু হয়।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech