নতুন উদ্যোক্তাদের এগিয়ে নিতে চায় আইডিবি

  

পিএনএস ডেস্ক : সদস্যভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংকের (আইডিবি) সর্বোচ্চ সুবিধাপ্রাপ্ত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। কৃষি, পানি সম্পদ, শিক্ষা ও পয়ঃনিস্কাশন খাতে আর্থিক সহায়তার পর এবার মানব উন্নয়নে জোর দিচ্ছে এ সংস্থাটি। উন্নয়নে অনুদান ভিত্তিক আর্থিক সহায়তা ছাড়াও আইডিবি নতুন উদ্যোক্তদের এগিয়ে নিয়ে যেতে চায়। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি খাতের উন্নয়নের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনেও সহায়তা করতে চায় বলে জানিয়েছেন সফরত আইডিবির প্রেসিডেন্ট ড. বান্দার এম এইচ হাজ্জার।

শনিবার ঢাকার রেডিসন হোটেলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ও উদ্ভাবনী প্রতিযোগিতা 'ট্রান্সফরমার রোডশো'র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ সব কথা বলেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান এবং আইডিবি প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা হায়াত শিনদি এসময় বক্তব্য রাখেন। রোববার আইডিবি প্রেসিডেন্টের উপস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকায় সংস্থাটির আঞ্চলিক কার্যালয় উদ্বোধন করবেন।

অনুষ্ঠানে ড. বান্দার হাজ্জার বলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে উন্নয়ন যাত্রা শুরু করছে আইডিবি। এটা নতুন চ্যালেঞ্জ। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উদ্ভাবনী শক্তি কাজে লাগিয়ে নতুন সমাধানের পথ খোঁজা হচ্ছে। এতে কৌশলগত জায়গায় বাংলাদেশ সহায়তা দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ও আশে পাশের অঞ্চল খুবই সম্ভবনাময়। এখাতে অনেক প্রতিভাবান উদ্যোক্তরা রয়েছে। এখানকার ভাল উদ্যোগ সদস্য দেশগুলোর মধ্যে ছড়িয়ে দেবে আইডিবি। এক্ষেত্রে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে কাজ করা হবে।

ইয়াফেস ওসমান বলেন, নিজস্ব উদ্যোগে সহায়তা দিতে আইডিবি অবকাঠামো খাতের উন্নয়নে কাজ করছে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি খাতের উন্নয়নের মাধ্যমে প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে তারা। এসডিজি অর্জনের মাধ্যমে খাদ্য নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়ন, পানি ব্যবস্থাপনা এবং জ্বালানি সুবিধা নিশ্চিত করতে কাজ করছে সংস্থাটি।

হায়াত শিনদি বলেন, আইডিবি বহুমাত্রিক ব্যাংক। কোনো বাণিজ্যিক ব্যাংক নয়। ৫৬ দেশের উন্নয়নে কাজ করছে কাজ করছে। এসব দেশকে উন্নত দেশ হিসেবে দেখতে চায় তারা। সবার জন্য শিক্ষার ব্যবস্থা করা এবং টেকসই ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করে চলেছে সংস্থাটি। তিনি বলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি খাতকে এগিয়ে গেলে সব উন্নয়ন বাধা দূর হবে। কিন্তু বিশ্বের অনেক মানুষ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সুবিধা থেকে বঞ্চিত। ফলে আইডিবি এতে সহায়তা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। ৫০ কোটি ডলারের একটি তহবিল গঠন করা হয়েছে।

আইডিবি সদস্য দেশগুলো মধ্যে থেকে নতুন ধারণার উদ্ভাবক, বিজ্ঞান এবং উদ্যোক্তা চিহ্নিত করছে। এ ধারণাগুলো জাতিসংঘের বিভিন্ন টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়তা করতে পারে।

শনিবার বাংলাদেশে এ প্রতিযোগিতায় ২০ জন তাদের ধারণা উপস্থাপন করেছেন। প্রায় তিন হাজার প্রতিযোগীর আইডিয়া থেকে ২০টিকে বেছে নেওয়া হয়েছে। রোববার আইডিবির অঞ্চলিক কার্যালয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বিজয়ী তিন জনের নাম ঘোষণা করবেন। প্রতি বিজয়ীকে তিন হাজার ডলার অর্থ পুরস্কার দেওয়া হবে। তারা ডিসেম্বরে আডিবির বার্ষিক বিজ্ঞান ও উদ্ভাবন সম্মেলনের যোগ দেওয়ার সুযোগ পাবেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech