ক্ষতিকর আর্থিক সেবা থেকে দরিদ্রদের মুক্তি চান ড. ইউনূস

  

পিএনএস ডেস্ক : গরিবদের জন্য সব আর্থিক সেবা উপকারী ও অন্তর্ভূক্তিমূলক নয় বলে মন্তব্য করেছেন শান্তিতে নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস। তাঁর মতে, অনেক আর্থিক সেবা আছে, যেগুলো গরিবদের প্রয়োজন ও চাহিদার বিচারে একদম উপযোগী নয়। অবশ্য কিছু কিছু আর্থিক সেবা আছে, যেগুলো দরিদ্র মানুষদের জন্য উপকারী।

আজ বুধবার চীনের বেইজিং এ কেইক্সিন মিডিয়া গ্রুপ আয়োজিত এক সভায় অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থায়নের ওপর এক বক্তৃতায় অধ্যাপক ইউনূস আরো বলেন, যেসব আর্থিক সেবায় মহাজনী ব্যবস্থা চালু আছে, সেগুলো দূর করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী, বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও বিভিন্ন অলাভজনক প্রতিষ্ঠানের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অধ্যাপক ইউনূস তার বক্তৃতায় বলেন, প্রত্যেক দেশের নীতি-নির্ধারকদের উচিত দরিদ্রদের জন্য প্রণীত আর্থিক পণ্যগুলোর ক্ষেত্রে সুদের হার ও অন্যান্য ব্যয়গুলোর একটি সর্বোচ্চ সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া। এ ধরনের কার্যকর নীতিমালা থাকলে কোনো কোনো আর্থিক 'অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থায়ন' হিসেবে বিবেচিত হবে না।

অধ্যাপক ইউনূসের মতে, আর্থিক প্রযুক্তি পরিস্থিতিকে বরং খারাপ করতে পারে যদি এটা নিপীড়নমূলক অর্থায়নের কাজে ব্যবহৃত হয়। এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এ ধরনের ব্যবস্থাকে অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থায়নের বিরুদ্ধ শক্তি হিসেবে বিবেচনা করতে হবে। এগুলো এক ধরনের আর্থিক শোষণ।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ছিলেন কেইক্সিন মিডিয়ার প্রকাশক হু শুলি, পিপল্স ব্যাংক অব চায়নার গবেষণা ব্যুরোর পরিচালক ওয়ান শিন, সিনহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পিপল্স ব্যাংক অব চায়না স্কুল অব বিজনেস এর অধ্যাপক শী পিং, চাইনিজ পিপল্’স পলিটিক্যাল কনসালটেটিভ কনফারেন্স (সিপিপিসিসি) এর ন্যাশনাল কমিটির সদস্য ও নিউ হোপ গ্রুপের চেয়ারম্যান লিউ ইয়ংহাওসহ অন্যরা।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন