কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ৫০ কর্মকর্তা আক্রান্ত

  

পিএনএস ডেস্ক : করোনাভাইরাসে বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্তত ৫০ কর্মকর্তা আক্রান্ত হয়েছেন। এমন দাবি করে গভর্নরের কাছে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক অফিসার ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল। ওই চিঠিতে তারা কর্মকর্তাদের দুই থেকে তিন ভাগ করে পালাক্রমে দায়িত্ব পালনের দাবি জানিয়েছে।

গত ১ জুন গভর্নর ফজলে কবিরকে দেওয়া চিঠিতে বলা হয়েছে, করোনার সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত দীর্ঘ সাধারণ ছুটি শেষে গত ৩১ মে অফিস কার্যক্রম পুরো মাত্রায় চালু করা হয়েছে। লক্ষণীয় যে অফিস চালু হওয়ার পর অফিসের প্রধান ফটক, ভবনের ফটক, লিফট, করিডোরে মানবজট তৈরি হচ্ছে। স্টাফ বাসে গা ঘেঁষে বসে কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অফিসে যাতায়াত করতে হচ্ছে। করোনা ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে বাসে করে যাতায়াতের দীর্ঘ সময় ভ্রমণে কর্মকর্তাদের সংক্রমণ–ঝুঁকি বাড়ছে। অনেক বিভাগের কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় সংখ্যক আসন চেম্বার না থাকায় একই কম্পিউটারে একাধিক কর্মকর্তাকে কাজ করতে হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে অফিসের কাজে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক গুরুত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না, যা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি বৃদ্ধি করছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ইতিমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্ধশতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। আরও অর্ধশতাধিক কর্মকর্তার উপসর্গ দেখা দিয়েছে। যারা করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন, ফলাফল এখনো তাদের হাতে পৌঁছায়নি।

এ অবস্থায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুই বা তিন ভাগ করে সাপ্তাহিক বা পাক্ষিক ভিত্তিতে পালাক্রম করে দায়িত্ব পালনের দাবি জানিয়েছে অফিসার কাউন্সিল।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘এখনো পালাক্রমে দায়িত্ব পালনের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে বিভাগের প্রধানেরা চাইলে যে কাউকে ছুটিতে রাখতে পারেন। তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন, কতজন কর্মকর্তা অফিস করবেন।’

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন