উপাচার্যের হস্তক্ষেপে বেরোবিতে সাত ঘন্টার ব্যবধানে ফলাফল প্রকাশ

  

পিএনএস, বেরোবি প্রতিনিধি : রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি)গণিত বিভাগের পর এবার সাতঘন্টার ব্যবধানে মার্কেটিং বিভাগের একটি ব্যাচের স্নাতক চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করেছে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দপ্তর। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের হস্তক্ষেপে মার্কেটিং বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের (৫ম ব্যাচ) এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

জানা যায়, আগামীকাল (১৩ ফেব্রুয়ারি) থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত নিজ রেঞ্জে পুলিশের উপ-পরিদর্শক ( এসআই) পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক বাছাই চলবে। এক্ষেত্রে প্রার্থীদের যোগ্যতা লাগবে স্নাতক (অনার্স) পাশ। বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক বিভাগের অনার্স চূড়ান্ত পরীক্ষা অনেক আগেই শেষ হলেও ফলাফল প্রকাশ না করায় এই নিয়োগে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে সন্দিহান দেখা দেয়।

এ পরিপ্রেক্ষিতে বিভাগটির ৫ম শিক্ষার্থীরা তাদের বিভাগে ফলাফল প্রকাশের দাবি জানায়। নিয়মানুযায়ী, স্নাতক চূড়ান্ত পরীক্ষা সম্পন্নের ছয় সপ্তাহের মধ্যে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরে ফলাফল পাঠাতে হয়। এর পর চূড়ান্ত ফলাফল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রকাশের জন্য এক মাস সময় নেয় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তর। কিন্তু এ সময়ের মধ্যে না পাঠানোয় আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া বাংলাদেশ পুলিশের উপ-পরিদর্শক পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক বাছাইয়ে প্রার্থী হতে চাপ প্রয়োগ করে এবং ফলাফল না পাওয়ার আশংকা করে শিক্ষার্থীরা। তাই পরীক্ষার্থীদের স্বার্থ বিবেচনা করে একদিনের মধ্যেই ফলাফল প্রকাশের জন্য পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরকে অনুরোধ জানানো এবং এ ব্যাপারে উপাচার্য ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ এর জোর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।

শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে মার্কেটিং বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের ফলাফল সোমবার সকাল ১০ টায় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দপ্তরে পাঠায় বিভাগটি। শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তর ছয়-সাত ঘন্টা পরিশ্রম করে ফলাফলটি প্রস্তুত করে বিভাগে পাঠায়। ফলাফল প্রকাশের ফলে আগামীকাল মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) শুরু হওয়া বাংলাদেশ পুলিশের উপ-পরিদর্শক পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক বাছাইয়ে প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করতে পেরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দপ্তরকে ধন্যবাদ জানান বিভাগীয় প্রধান শেখ মাজেদুল হক। তবে আজকে তাড়াহুড়ো করে ফলাফল প্রকাশে চাপ ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরে ফলাফল দেরিতে পাঠানোর ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে বিভাগীয় প্রধান বলেন, আমাদের শিক্ষক স্বল্প, ব্যাচ অনেক।তাই সঠিক সময়ে ফলাফল পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরে পাঠাতে পরিনি।

তবে তিনি বলেন, আমরা তিনদিন যাবত ফলাফল নির্ভুলভাবে যাচাইবাছাই শেষে সম্পূর্ণ করে দপ্তরটিতে পাঠিয়েছিলাম। শিক্ষার্থীদের বাংলাদেশ পুলিশের উপ-পরিদর্শক পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক বাছাইয়ের কথা চিন্তা করে ফলাফল সকাল ১০টায় পাঠাই এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তর ফলাফলটি প্রস্তুত করে। তবে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক কর্মকর্তা জানান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরে ফলাফল পাঠাতে বিভাগগুলোর বিধি মেনে চলা প্রয়োজন। একদিনের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ আমাদের জন্য অমানবিক পরিশ্রম হয়ে দাঁড়ায়।

ঐ কর্মকর্তা আরো বলেন, সেমিস্টার ফলাফল প্রকাশের জন্য আমরা ১৫ দিন সময় নেই। আর সম্মান চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশে এক মাসের সময় নেই। এর মাঝে ফলাফলে ভুলত্রুটি দেখা দিলে পুনরায় শোধরানোর জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগে পাঠাই। কিন্তু একদিনে ফলাফল প্রকাশ আমাদের জন্য অধিক চাপের কাজ হয়ে পড়ে। তবে শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে মানবিক কারণে আমরা ফলাফলটি প্রস্তুত করেছি। তবে সঠিক সময়ে ফলাফলটি আমাদের কাছে এসে পৌঁছলে আমাদের জন্য সুবিধা হয়।

উল্লেখ্য, এর পূর্বে গণিত বিভাগের একটি ব্যাচের ফলাফল উপাচার্যের হস্তক্ষেপে চারঘন্টার ব্যবধানে প্রস্তুত করে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তর। তবে এত অল্প সময়ের মধ্যে ফলাফলটি পাওয়ায় এবং আগামীকাল (১৩ ফেব্রুয়ারি) থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি নিজ রেঞ্জে পুলিশের উপ-পরিদর্শক পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক বাছাইয়ে অংশগ্রহণের যোগ্যতা অর্জন করতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছে বিভাগটির সংশ্লিষ্ট ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech