হামলার প্রতিবাদে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা

  

পিএনএস ডেস্ক : কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মাসুদ রানার ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। হামলার তদন্ত ও বিচার শুরু না করা পর্যন্ত ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে অপরাজেয় বাংলার সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘গত ২ জুলাই শহীদ মিনার এলাকায় কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগের কর্মীরা। ওই ঘটনার সময় মাসুদ রানার ওপর অমানবিক হামলা চালানো হয়। কিন্তু হামলার পরও প্রক্টর বা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নিশ্চুপ ছিল। প্রক্টর গোলাম রব্বানী বলেছেন হামলার বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।’

শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, যে শিক্ষকদের কাছে আমরা মানবিক শিক্ষার দীক্ষা নেই। তারাই আমাদের কোনো খবর নিলেন না। এ ধরনের হামলার মাধ্যমে শহীদ মিনার ও বাংলাদেশকে কলঙ্কিত করা হয়েছে। এভাবে যেন আর কাউকে নির্যাতনের শিকার হতে না হয়।

এই নির্যাতনের বিচার চেয়ে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘যে ঘটনা ঘটেছে তা অত্যন্ত দুঃখজনক। বিচার বা তদন্ত শুরু না হওয়া আরও বেশি দুঃখজনক। শিক্ষকেরা আমাদের অভিভাবক, তাঁরা পাশে না দাঁড়ালে কে আমাদের পাশে দাঁড়াবে? তাই বিচারের তদন্ত শুরু না হওয়া পর্যন্ত আমরা অনার্স ও মাস্টার্সের ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করছি।’

মানববন্ধনে হামলায় আহত মাসুদ রানা বলেন, ‘নিজের বিশ্ববিদ্যালয়েই আমাকে এ ধরনের হামলার শিকার হতে হলো। এটা আমার জন্য সবচেয়ে কষ্টের। বিচার চাইলে আমাদের দূর দূর করে তাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। আমি আমার ওপর এ ধরনের অমানবিক হামলার তদন্ত ও বিচার চাই।’

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech