সরকারি হলো আরও ১৩ মাধ্যমিক বিদ্যালয়

  

পিএনএস ডেস্ক: সারাদেশে আরও ১৩টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ নিয়ে দেশে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৮৮টি।

যেসব উপজেলায় সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজ নেই, সেসব উপজেলায় একটি করে মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও একটি করে কলেজকে সরকারি করার সিদ্ধান্তের অংশ হিসেবে এসব প্রতিষ্ঠান সরকারি হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আরও ১৩টি বিদ্যালয় সরকারি হলো। সরকারি হওয়া বিদ্যালয়গুলোর শিক্ষকেরা অন্যত্র বদলি হতে পারবেন না।

মঙ্গলবার সরকারি হওয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো হলো: রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলার নানিয়ারচর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, বরকল উপজেলার বরকল মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, খাগড়াছড়ির গুঁইমারা উপজেলার গুঁইমারা মডেল হাইস্কুল, বাগেরহাটের মংলা উপজেলার টি.এ ফারুক স্কুল অ্যান্ড কলেজ, একই জেলার শরণখোলা উপজেলার রায়েন্দা পাইলট হাইস্কুল, রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার কাউনিয়া মোফাজ্জল হোসেন মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, যশোরের কেশবপুর উপজেলার কেশবপুর পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বরিশালের হিজলা উপজেলার সংহতি পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, খুলনার কয়রা উপজেলার কয়রা মদিনাবাদ মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, একই জেলার পাটকেলঘাটা উপজেলার জলমা চরকাখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার কালকিনি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, ফরিদপুরের সালথা উপজেলার সালথা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার মনোহরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।

এর আগে ২৪ সেপ্টেম্বর ৪৩টি, ১৬ সেপ্টেম্বর একটি, ১৩ সেপ্টেম্বর ৪৪টি, গত ১৪ মে ৪৪টি, ২৮ আগস্ট ১২টি, ৭ মে ১২টি, ২১ মে ২৪টি, গত ১১ এপ্রিল ২১টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারি করা হয়েছে।

২০১৬ সাল থেকে বেসরকারি স্কুল ও কলেজ সরকারিকরণের জন্য তালিকাভুক্তির কাজ শুরু করে সরকার। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, সারাদেশে ৩২৫টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে সরকারি করা হবে। এর অংশ হিসেবে সর্বশেষ মঙ্গলবার ১৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারি করা হলো।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech