‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮’ মুক্তচিন্তা চর্চার প্রধান অন্তরায়

  

পিএনএস, রাবি প্রতিনিধি : সম্প্রতি পাশ হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মানুষের মুক্তচিন্তা চর্চার প্রধান অন্তরায় বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি প্রফেসর আব্দুল্লাহ আল মামুন। বুধবার বেলা ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র ভবনের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন। মানববন্ধন থেকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ‘মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও স্বাধীন সাংবাদিকতার সঙ্গে সাংঘর্ষিক’ধারাসমূহ বাতিলের দাবি জানানো হয়।

আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বিভিন্ন মানবাধিকার ও সাংবাদিক সংগঠন থেকে শুরু করে যারা স্বাধীন মতপ্রকাশে বিশ্বাস করে, যারা মনে করে সাংবাদিকতার পথ আরও উন্মেুক্ত হোক, তাদের আপত্তিকে উপেক্ষা করে সম্প্রতি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাশ করা হয়েছে। আমরা মনে করি বিশ্ববিদ্যালয়ে সবসময় একটা মুক্ত অঙ্গণ হয়ে উঠুক। আমরা যে জ্ঞান চর্চা করি তার জন্য একটা মুক্ত পরিবেশ থাকা দরকার। কিন্তু ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বেশ কিছু ধারা মুক্তচিন্তা ও জ্ঞান চর্চার ক্ষেত্রে প্রধান বাধা হয়ে দাড়াবে। এই আইন ব্যবহার করে বিভিন্ন গোষ্ঠির নিজেদের স্বার্থ হাসিল করা সুযোগ রয়েছে।

বিভাগের শিক্ষক মামুন আব্দুল কাইয়ুমের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিভাগের শিক্ষক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে, মশিহুর রহমান, কাজী মামুন হায়দার, মাহাবুর রহমান, আব্দুল্লাহীল বাকীসহ বিভাগের শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech