ভিপি নুরকে পেটানো সেই চেয়ারম্যানকে মারলো জনতা

  

পিএনএস ডেস্ক : ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরকে পেটানো পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন শাহকে লক্ষ্য করে করে জুতা, ডিম ও ঢিল নিক্ষেপ করেছে বিক্ষুব্ধ জনতা।

শনিবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের ভিপি নুরের এলাকায় গেলে বিক্ষুব্ধ জনতা তার বিরুদ্ধে এ কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় শাহিন ও তার কর্মীরা পালিয়ে একটি দোকানে আশ্রয় নেয়। পরে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের সহায়তায় রক্ষা পায় তারা। পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এক নারী আইনজীবীর দায়ের করা শ্লীলতাহানির মামলায় অতিসম্প্রতি উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে এলাকায় আসেন। শনিবার চরবিশ্বাস এলাকায় মৎস্যজীবী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় আমন্ত্রিত হন গলাচিপা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিন শাহ্ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

শনিবার দুপুরের দিকে শাহিন মোটরসাইকেল শোডাউন নিয়ে বুধবাড়িয়া বাজারের কাছে পৌঁছলে স্থানীয়রা তার বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল প্রদর্শন করে তাকে স্থান ত্যাগ করতে বলেন। পুরুষের পাশাপাশি নারীও তার বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় ওই স্থানে দুই পক্ষ অবস্থান নেয়।

শাহিনের সঙ্গে থাকা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা টিটু, সহ-সভাপতি মানিক মিয়া ও মজিবুর রহমান প্যাদা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বাবলু ভূঁঞাসহ অনেক নেতাকর্মী নিরাপদ আশ্রয় চলে যায়। তবে এ প্রসঙ্গে কেউ কোনো মন্তব্য করতে রাজি নয়।

গত ১৪ আগস্ট ভিপি নুরের হামলার জেরে গ্রামবাসী শাহিনের বিরুদ্ধে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল কর্মসূচি পালন করেছেন। শাহিনের সঙ্গে থাকা নেতাকর্মীরা ঝাড়ু মিছিলের কথা স্বীকার করলেও জুতা ও ডিম নিক্ষেপের বিষয় এড়িয়ে যায়। তবে নির্ভরযোগ্য সূত্র জুতা নিক্ষেপের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। একটি ভিডিও চিত্রেও এ ঘটনা নিশ্চিত হওয়া গেছে।

ঘটনার সময় স্থানীয়রা স্লোগান দিয়ে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের ভিপি নুরকে হামলাকারী ও মাদকের মদদদাতা শাহিনের এ মাটিতে জায়গা নেই।

এ প্রসঙ্গে গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা টিটু বলেন, ঝামেলা হওয়ার আগেই আমি ওই সভায় পৌঁছে গিয়েছিলাম। তাই আমি কিছু দেখিনি। লোকমুখে শুনেছি।

এ প্রসঙ্গে ঘটনাস্থলে উপস্থিত গলাচিপা থানার এসআই মেহেদী হাসান জানান, ঝাড়ু মিছিল হয়নি। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ভিডিও চিত্রে ঝাড়ু ও জুতার বিষয়টি স্পষ্ট রয়েছে এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, লোকজন জড়ো হয়ে ঝামেলা করতে চাইছিল। কিন্তু পুলিশ থাকায় সম্ভব হয়নি।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech