আইটেম গানের জন্য কত পারিশ্রমিক নেন তারা?

  

পিএনএস ডেস্ক: বাণিজ্যিক সিনেমায় আইটেম গান এখন অত্যাবশ্যকীয় হয়ে গেছে। বলিউড থেকে শুরু হওয়া এই ধারা প্রভাবিত করেছেন পার্শ্ববর্তী ইন্ডাস্ট্রিগুলোকেও। জমকালো আয়োজনে আবেদনে ভরপুর এই গান ছবির অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে কাজ করে। এই একটি গানের পেছনেই খরচ হয় কোটি কোটি টাকা। আইটেম গানের জন্য বলিউডই এখন পর্যন্ত সেরা। সেখানকার আইটেম নাম্বারগুলো আন্তর্জাতিকভাবেও জনপ্রিয়তা পায়।

আইটেম গানে সাধারণত নায়িকারাই পারফর্ম করে থাকেন। তবে এজন্য তারা নেন মোটা অংকের পারিশ্রমিক। চলুন জেনে নেয়া যাক বলিউডের কোন নায়িকা আইটেম গানে নাচার জন্য কত পারিশ্রমিক নেন।

দীপিকা পাড়ুকোন
সিনেমার পারিশ্রমিকে যেমন তিনি শীর্ষে, আইটেম গানের জন্যও তার পারিশ্রমিক সর্বোচ্চ। যদিও এই ধরণের কাজে তাকে দেখা যায় না। তবে তার ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে ‘লাভলি হো গায়ি ইয়ার’ গানের জন্য ৮ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নেন দীপিকা।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
দীপিকার পরেই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক নেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘রাম-লীলা’ আইটেম গানে পারফর্মের জন্য তিনি নিয়েছিলেন ৬ কোটি রুপি।

কারিনা কাপুর খান
বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় আইটেম গান ‘ফেবিকল’। সালমান খানের ‘দাবাং’ ছবির এই আইটেম গানে নেচেছিলেন কারিনা কাপুর। তবে বন্ধু সালমানের জন্য কারিনা কোনও পারিশ্রমিক নেননি। এর আগে তিনি ‘হিরোইন’ ছবির ‘হালকাত জাওয়ানি’ গানের জন্য ৫ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন।

মালাইকা অরোরা
আইটেম গার্ল হিসেবেই বলিউডে পরিচিত মালাইকা অরোরা। ‘মুন্নি বদনাম’, ‘মাহি ভে’, ‘পান্ডে জি’সহ কয়েকটি আলোচিত আইটেম গান রয়েছে তার ক্যারিয়ারে। আইটেম গানের জন্য তিনি সাধারণত ৩ কোটি রুপি নিয়ে থাকেন।

ক্যাটরিনা কাইফ
হৃতিক রোশন ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার ‘অগ্নিপথ’ ছবিতে ক্যাটরিনা কাইফ অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সেই ছবির আইটেম গান ‘চিকনি চামেলি’ অন্যতম জনপ্রিয় আইটেম নাম্বার। এই গানে নাচার জন্য ক্যাটরিনা সাড়ে ৩ কোটি রুপি নিয়েছিলেন।

সানি লিওন
এই সময়ে বলিউডের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও আবেদনময়ী আইটেম গার্ল সানি লিওন। ‘বেবি ডল’ দিয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর তিনি আরও অনেকগুলো জনপ্রিয় আইটেম গানে নেচেছেন। একেকটি আইটেম গানের জন্য সানি ৩ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নেন।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech