এবার ঈদে ‘ইত্যাদি’তে চমক

  

পিএনএস ডেস্ক : ঈদে টিভি অনুষ্ঠানমালায় এবারও দর্শকদের আকর্ষণের কেন্দ্রে রয়েছে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’। এবারের ‘ইত্যাদি’ ধারণ করা হয়েছে মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে। স্টেডিয়ামের প্রায় একতৃতীয়াংশ জায়গাজুড়ে নির্মাণ করা হয় সেট।

‘ও মন রমজানের ওই রোজার শেষে এল খুশির ঈদ’ গান দিয়ে শুরু হবে এবারের ‘ইত্যাদি’। গানটি পরিবেশন করবেন কয়েক হাজার শ্রমজীবী মানুষ। সড়ক দুর্ঘটনার ব্যাপারে সবাইকে সচেতন করতে তৈরি একটি গান গেয়েছেন সাবিনা ইয়াসমিন ও এন্ড্রু কিশোর। গানের কথা লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান। সুর ও সংগীতায়োজনে ফরিদ আহমেদ। গানটির দৃশ্যায়নে সাবিনা ইয়াসমিন ও এন্ড্রু কিশোরের সঙ্গে শতাধিক নৃত্যশিল্পীও অংশ নিয়েছেন।

থাকছে নৃত্য জুটি শিবলী মহম্মদ ও শামীম আরা নিপার নাচ। আরেকটি নাচে অংশ নিয়েছেন ফেরদৌস, অপূর্ব, মম ও মোনালিসা। এছাড়া ছন্দে-সুরে অন্য রকম এক আলোচনায় অংশ নিয়েছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, মীর সাব্বির, সাজু খাদেম ও শাহরিয়ার নাজিম জয়।

মিউজিক্যাল ড্রামায় অভিনয় করেছেন ইমন ও কুসুম শিকদার এবং প্রতীক হাসান ও কনা। এর সংগীত পরিচালনায় নাভেদ পারভেজ।

বিদেশিদের নিয়ে আয়োজন ‘পারিবারিক শান্তি’তে অংশ নিয়েছে বিভিন্ন দেশের অর্ধশত নাগরিক। হারিয়ে যেতে থাকা দেশিয় বাদ্যযন্ত্র ও ভিনদেশি সংস্কৃতির আগ্রাসনে দেশিয় সংস্কৃতি- এ দুই বিষয়ের ওপর তাৎক্ষণিকভাবে তৈরি টুকরো নাট্যাংশে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী ও নির্বাচিত দর্শক। আরও থাকছে আজিজুল হাকিম ও রোজী সিদ্দিকীর দাম্পত্য কলহ পর্ব, মামা-ভাগনে, নানি-নাতিসহ বিভিন্ন পর্ব।

রয়েছে ঈদ ঘিরে ডজন খানেক বিদ্রূপাত্মক নাট্যাংশ। যেমন- প্রচারে প্রসার না অসাড়, ভিক্ষুকের ভিক্ষায় নতুনত্ব, হুঁশ হয়ে ঘুষ নেওয়া, যানজট=জান জট, হকার যখন টকার, তকদিরের তদবির, অর্থ না বোঝায় অনর্থ কাণ্ড।

এবারের ‘ইত্যাদি’ প্রচারিত হবে ঈদের পরের দিন রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর। আর পুনঃপ্রচার করা হবে ঈদের চতুর্থ দিন রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর। ‘ইত্যাদি’ গ্রন্থনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech