কোরআন শরিফ পড়েছিলেন কঙ্গনা!

  

পিএনএস ডেস্ক :বলিউডপাড়ায় সবচেয়ে শক্তিশালী আর স্পষ্টভাষী নায়িকা হিসেবে কঙ্গনা রানাউতের বেশ নাম ডাক। প্রেম ভালোবাসা ছাড়াও নানান সময়ে বিতর্কে থাকেন এই বলি ডিভা। এবার আলোচনায় আসলেন ভিন্ন কিছু দিয়ে।

তিনি নাকি নিজেই জানিয়েছেন আধ্যাত্মচিন্তার প্রতি তিনি আকৃষ্ট। তিনি নাকি ইসলাম ধর্মের পবিত্র গ্রন্থ কোরআন শরিফ পড়েছেন বলে নিজেই জানিয়েছেন এ নায়িকা।

কঙ্গনা বলেন, ‘আমি পবিত্র ধর্মগ্রন্থগুলো পড়েছি। ভাগবত গীতা, বাইবেল, কোরআনের বেশ কিছু অধ্যায়, কোয়ান্টাম ফিজিক্স নিয়ে বই, বেদান্ত এবং দীপক চোপড়ার মতো আধুনিক দার্শনিকের বইও পড়েছি।’

কঙ্গনা সদগুরু যোগী বাসুদেবের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করতে চান। বলেন, তিনি ‘ইনার ইঞ্জিনিয়ারিং’ নামের একটি বই লিখেছেন, যার চিন্তাদর্শন একেবারেই নতুন। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী জানান, ভারতীয় ধর্মতাত্ত্বিক ও দার্শনিক স্বামী বিবেকানন্দের ব্যবহারিক ও বিজ্ঞানসম্মত ভাবনা তার (কঙ্গনা) জীবনে গভীর প্রভাব ফেলেছে। অনেক আগে থেকেই তিনি প্রতিষ্ঠিত ধর্মগ্রন্থগুলো পড়েন। আধ্যাত্মচিন্তায় মশগুল থাকেন।

কঙ্গনা তার দেশ ভারতের নারী ও নতুন প্রজন্ম নিয়েও কথা বলেছেন। বলেছেন, ‘হয় আমরা সম্পূর্ণ সঠিক জায়গায় যাব, নয় সম্পূর্ণ ভুল জায়গায়। আমরা এখন গুরুত্বপূর্ণ সন্ধিক্ষণে আছি।

ব্যক্তিগত আদর্শ ও লক্ষ্যের চেয়ে আমাদের এখন সমষ্টিগত আদর্শ ও লক্ষ্য জরুরি। এখনই পরীক্ষা করা জরুরি, আমাদের সমাজে কী আছে আর কী ঘাটতি আছে। আমার আলোচনার প্রথম পয়েন্ট এগুলোই।’

আসন্ন চলচ্চিত্র ‘মনিকর্নিকা : দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ নিয়েও কথা বলেন কঙ্গনা। বলেন, ‘তিনি একজন শহিদ। জাতীয়তাবাদের প্রেরণায় তিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। এটা আমার ব্যক্তিত্বে ভিন্ন মাত্রা এনেছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech