‘তনুশ্রী আমাকে বাধ্য করেছে….’ বিষ্ফোরক নানা

  

পিএনএস ডেস্ক : নানা পাটেকার ও গনেশ আচারিয়ার বিরুদ্ধে, মুম্বইয়ের ওশিয়ারা পুলিশ স্টেশনে যৌন হেনস্থার অভিযোগ দায়ের করেছেন তনুশ্রী। সাক্ষাৎকার যে আগুন তিনি ধরিয়েছিলেন তা গড়িয়েছে থানা পর্যন্ত। এদিকে মুখে ‘রা’ পর্যন্ত কাটেননি নানা। অথচ কেউ তাঁর পক্ষে কথা বলছেন। কেউবা বিপক্ষে। আর ‘তনুশ্রী মিথ্যে কথা বলছে’ ছাড়া এপর্যন্ত দ্বিতীয় কোনও লাইন শোনা যায়নি অভিনেতার মুখে।

তবে রবিবার জানা গিয়েছিল, সোমবার তনুশ্রী প্রসঙ্গে সাংবাদিক বৈঠক করবেন নানা পাটেকার। সেখানেই নিজের বক্তব্য জানাবেন তিনি। কিন্তু গতকাল রাতে নানা ছেলে মলহার মিডিয়াকে ফোন করে বাতিক করে দেন বৈঠক। এরপরই একের পর এক সংবাদের শিরোনামে উঠে আসে, নানার সাংবাদিক সম্মেলন বাতিল করার কথা। এরপরই নিজের মুখ খোলেন অভিনেতা। নিজের মেজাজে তিনি বলেন, ” আমি কোনও সাংবাদিক বৈঠক ডাকিনি, যা বাতিল করা হয়েছে! পুরোটাই রটনা।”

এই প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ” আমার সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু আইনজীবী আমায় চুপ থাকতে বলেছেন। তাই এখন কোনও কথা আমি বলব না ভেবেছিলাম। কিন্তু তনুশ্রী আমাকে বাধ্য করল, আজ মুখ খুলতে। ও যা বলছে সবই মিথ্যে।”

এদিকে বলিপাড়ার খবর তনুশ্রী মুখ খোলার পর থেকে নাকি শ্যুটিং ফ্লোরে আসছেন না অভিনেতা। এমনকি নানা নাকি ঘর থেকে বার হচ্ছেন না। আসলে সোশ্যাল মিডিয়ায় থেকে খবরের কাগজ-চারিদিকে একটাই খবর, “তনুশ্রী দত্তকে যৌন হেনস্থা করেছেন নানা পাটেকার”। সত্যি-মিথ্যার যাচাই না করে, এদল কাদা ছিঁটকাচ্ছে নায়িকার দিকে। তো অন্য পক্ষ আঙুল তুলছে নায়কের দিকে। আর এসবের মাঝে নিজেকে নাকি গৃহবন্দি করেছেন অভিনেতা।

অন্যদিকে অভিনেত্রীর নামে মানহানির মামলা দায়ের করেছেন MNS জেলা শাখার সভাপতি সুমন্ত ধস। অভিযোগ, তনুশ্রীর লোকসমাজে মহারাষ্ট্রের নবনির্মাণ সেনা প্রধান রাজ ঠাকরের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech