অল্প বয়সে বিয়ে, অতঃপর...

  

পিএনএস ডেস্ক : বিনোদন ভুবনের তারকাদের মধ্যে এক ধরনের বিয়ে ভীতি লক্ষ্য করা যায়। কারণ কথিত আছে, বিয়ে করলে নাকি দর্শকদের কাছে নায়ক-নায়িকাদের কদর কমে যায়। তবে চলতি বছর বলিউডে অনেক তারকাকে বিয়ে করতে দেখা গেছে। আবার কেউ কেউ শিগগিরই বিয়ে করতে যাচ্ছেন। তাঁদের মধ্যে বেশীরভাগই বিয়ের যথাযথ বয়স পেরিয়ে গাঁটছড়া বেঁধেছেন। কিন্তু বলিউডের বেশ কয়েকজন তারকা এই ধারনাকে ভুল প্রমাণ করেছেন। অনেক অল্প বয়সে বিয়ে করে এখনো সাফল্যের সঙ্গে কাজ করছেন।

বলিউডে অল্প বয়সে বিয়ের অন্যতম উদাহরণ অভিনেতা আমির খান। নিজের প্রথম ছবি ‘হোলি’ মুক্তির দুই বছর পরেই রিনা দত্ত-কে বিয়ে করেন এই অভিনেতা। সে সময় তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২১ বছর। বিয়ের পর পরই সফলতা ঘিরে ধরে আমিরকে। ধীরে ধীরে হয়ে উঠেন ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’।

শাহরুখ খানও অনেকটা আমিরের পথেই হেঁটেছেন। তখন তিনি বলিউডেও ঠিকমতো পা রাখেননি। ‘ফাউজি’ শিরোনামের একটি টেলিভিশন ধারাবাহিকে কাজ করতেন। এরপর ১৯৯১ সালে গৌরি খানকে বিয়ে করেন শাহরুখ। সে সময় তাঁর বয়স ছিল ২৫ বছর। ঠিক ওই বছরই মুক্তি পায় তাঁর প্রথম ছবি ‘দিওয়ানা’। পরবর্তীতে তাঁর বলিউডের বাদশা ও কিং খান হয়ে ওঠার গল্প সবারই জানা।

বলিউডের নবাব সাইফ আলী খানও বিয়ে করেছিলেন ২১ বছর বয়সে। স্ত্রী অমৃতা সিং ছিলেন সাইফের ১২ বছরের বড়। ১৯৯১ সালে তিনি যখন বিয়ে করেন, তখন বলিউডে খুঁটি গাঁড়ার সংগ্রাম করছিলেন। বিয়ের ঠিক তিনি বছর পর ১৯৯৪ সালে মুক্তি পায় তাঁর প্রথম ছবি ‘ম্যায় খিলাড়ি তু আনাড়ি’। আর অভিষেক ছবিতেই মুখ দেখেন সফলতার।

মাত্র ২৫ বছর বয়সে বিয়ে করেন এক সময়ের বলিউড সেনসেশন ইমরান হাশমি। ক্যারিয়ারের একেবারে শুরুর দিকে ২০০৬ সালে স্কুল শিক্ষিকা পারভিন শাহানিকে বিয়ে করেন। এরপর থেকেই যেন রুপালি পর্দায় ইমরানের ইমেজ বাড়তে শুরু করে। এক সন্তানের বাবা ইমরান এখনো অভিনয় ও সংসার দুটোই সমানতালে চালিয়ে যাচ্ছেন।

আমির, সাইফদের মতো অভিনেতা শারমান জোশিও বিয়ে করেছিলেন ২১ বছর বয়সে। ১৯৯৯ সালে ক্যারিয়ার শুরু করার ঠিক এক বছর পরই অভিনেতা প্রেম চোপড়ার মেয়ে প্রেরনা চোপড়াকে বিয়ে করেন শারমান। বিয়ের পর একাধিক ব্লকবাস্টার ছবি উপহার দেওয়ার পাশপাশি বহু হিট ছবি উপহার দিয়েছেন তিন সন্তানের জনক এই অভিনেতা।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech