হিরো আলম নতুন যে চমক ঘোষণা দিলেন!

  

পিএনএস ডেস্ক:যৌতুক দাবি করে স্ত্রীকে মারপিটের মামলা আপোষের পর এবার বগুড়া-৬ আসনে জাতীয় সংসদ উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিলেন হিরো আলম। শনিবার দুপুরে বগুড়া প্রেস ক্লাবে এসে সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান।

বগুড়া জেলা নির্বাচন অফিস সুত্রে জানা যায়, ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৬ আসন থেকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

৩০ এপ্রিলের মধ্যে শপথ না নেয়ায় এই আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। বগুড়া সদর আসন শূন্য ঘোষণা হওয়ায় আগামী ২৪ জুন এই আসনে উপ-নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন।

হিরো আলম সাংবাদিকদের জানান, বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে সম্মান করে তিনি বগুড়া-৬ সদর আসনে প্রার্থী হননি। প্রার্থী হয়েছিলেন বগুড়া-৪ আসন থেকে। খালেদা জিয়া একটি দলের প্রধান, তাকে সম্মান করা তার কর্তব্য।

হিরো আলম বলেন, তিনি বগুড়া সদর আসনের ভোটার। কিন্তু এই আসনে বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া বারবার বিপুল ভোটের নির্বাচিত হয়েছেন। এবার এই আসনে তিনি নেই। তাই হিরো আলমের জয়ের পাল্লা ভারী হয়ে উঠেছে।

এবার জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টি থেকে হিরো আলম বগুড়া-৬ সদর আসনের উপ-নির্বাচনে অংশ নেবেন। জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির তিনি সহ সাংগঠনিক সম্পাদক। দল থেকে মনোনয়ন চাওয়া হয়েছে। দল যদি তাকে মনোনয়ন না দেয়, তাহলে তিনি তার প্রতীক সিংহ মার্কায় স্বতন্ত্র হয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবেন।

এর আগে, হিরো আলম বগুড়ার-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসন থেকে সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সিংহ মার্কায় ভোটের মাঠে নমেন। সেই নির্বাচনে তিনি ৬৩৮ ভোট পেয়েছিলেন। এই আসন থেকে ভোটে নির্বাচিত হন বিএনপির প্রার্থী আলহাজ্ব মোশারারফ হোসেন।

এর আগে, গত ৬ মার্চ স্ত্রীকে পেটানোর অভিযোগে হিরো আলমের শ্বশুর সাইফুল ইসলামের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বগুড়া সদর থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছিল। সেই মামলায় পুলিশ তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছিল। পরে মামলাটি আপোষ হয়। ১৮ এপ্রিল তিনি জামিনে মুক্ত হন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech