বিবাহিতা নারীর সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ায় যুবককে গাছে বেঁধে মারধর

  

পিএনএস ডেস্ক : গাছে বাঁধা তিন যুবক। ওই অবস্থায় লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হচ্ছে তাদের। কারণ ওই তিনজনের একজন যুবক এক বিবাহিতা নারীর সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করে। আর সেই অপরাধের মাশুল গুনতে হল সকলকে।

আঁতকে ওঠার মতো এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপাল থেকে ২৩০ কিমি দূরে ধারে নামক এক এলাকায়। এই ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে জানতে পারে, মুকেশ নামে এক ব্যক্তির স্ত্রীর সঙ্গে পালিয়ে যায় এক যুবক। পরে ওই নারীকে বিয়ে করে নেয়। দু’জন পালিয়ে যাওয়ার পর মুকেশ একদিন স্ত্রীর নতুন স্বামীকে ডেকে পাঠায়। বার্তা পাঠায়, বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চায়।

মুকেশের প্রস্তাবে সাড়া দেয় সে। দুই আত্মীয়কে নিয়ে স্ত্রীর প্রথম স্বামীর সঙ্গে দেখা করতে যায়। ওদিকে দলবল নিয়ে হাজির হয় মুকেশও। বলপূর্বক তিনজনকে সঙ্গে নিয়ে গাছে বেঁধে দেয় তারা। তারপরই শুরু হয় অত্যাচার। লাঠি দিয়ে তাদের মারা হয়। এছাড়া চড়, কিল ও ঘুসিতো ছিলই৷

তিনজনকে মারা হচ্ছে দেখে আশেপাশে লোক জড়ো হয়ে যায়৷ কিন্তু তাদের কাউকেই সাহায্য করতে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। উল্টে অনেকে ঘটনার ভিডিও করে। পরে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। সেই ফুটেজ দেখেই অপরাধীদের কয়েকজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পকসোসহ নানা ধারায় মামলা দায়ের করা হয়। কেননা ওই তিন জনের মধ্যে এক নাবালকও ছিল। পুলিশ সুপার সঞ্জীব মূলে জানান, পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিরাও দ্রুত ধরা পড়বে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech