মার্কিন সফরে হোয়াইট হাউজেই থাকবেন ইমরান

  


পিএনএস ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে এই প্রথম ৩ দিনের সরকারি সফরে আমেরিকা যাচ্ছেন ইমরান খান। এই সফরে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। আমেরিকা ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও মজবুত করাই এই বৈঠকের মূল লক্ষ্য। এ উপলক্ষ্যে আগামী ২১ জুলাই আমেরিকা সফরে যাচ্ছেন ইমরান খান। তবে হোটেল কিংবা রাষ্ট্রদূতের বাসভবন নয়; সব গুঞ্জন উড়িয়ে সফরকালীন ইমরান খানকে থাকতে হবে হোয়াইট হাউজে।

এর আগে, পাকিস্তানের সংবাদপত্র ডন এক প্রতিবেদনে জানায়; মার্কিন সফরে ওয়াশিংটন ডিসির পাক রাষ্ট্রদূত আসাদ মজিদ খানের বাসভবনেই থাকবেন ইমরান ও তার সঙ্গে সফরকারী অন্যান্যরা। বিদেশ সফরে দেশের খরচ কমানোই ছিল এর মূল উদ্দেশ্য। মার্কিন প্রেসিডেন্টসহ অন্যান্য মার্কিন আধিকারিকদের বৈঠকে যোগ দেবেন মজিদ খানের বাসভবন থেকেই।

কিন্তু এর আগে কোনও রাষ্ট্রপ্রধান মার্কিন সফরে এলে তার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত ও নিশ্ছিদ্র করার দায়িত্ব থাকত মার্কিন গোয়েন্দা দফতরের উপর। মার্কিন গোয়েন্দারাই আমেরিকায় সফররত রাষ্ট্রপ্রধানদের থাকা, যাতায়াত, বৈঠক; সমস্ত কিছুর দায়িত্ব নিতেন। কিন্তু ইমরানের এই সিদ্ধান্তে সেই চেনা ছবিটা অনেকটাই বদলে যাচ্ছিল। ফলে পাক প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্ত কিছুটা হলেও অস্বস্তি বাড়িয়ে দিয়েছিল মার্কিন গোয়েন্দা দফতরের। শেষে এই সমস্যার সমাধানের পথ বের করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইমরান আমেরিকায় পৌঁছালে হোয়াইট হাউজেই তার থাকার আয়োজন করলেন ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউজ সূত্রে জানা যায়, আগামী ২২ জুলাই পাক প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। ট্রাম্প-ইমরান বৈঠকের দিকে নজর রয়েছে নয়াদিল্লিরও। এই বৈঠকে সন্ত্রাস মোকাবিলার ইস্যুতে পাকিস্তানকে কড়া বার্তা দেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট; এমনটাই আশা ভারতীয় কূটনৈতিক মহলের। সূত্র : জি নিউজ।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech