ট্রাম্পের চিঠি ‘ডাস্টবিনে’ ফেলে দিলেন এরদোগান

  

পিএনএস ডেস্ক : সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে সামরিক অভিযান নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের লেখা চিঠি ‘ডাস্টবিনে’ ফেলে দিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেফ তাইয়্যেপ এরদোগান।

বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

৯ অক্টোবরের সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর সেই চিঠিতে এরদোগানের উদ্দেশে ট্রাম্প লিখেছেন, ‘একগুঁয়ে ও বোকার মতো আচরণ করবেন না!’

এরদোগানের কার্যালয়ের সূত্রে বিবিসি জানায়, প্রেসিডেন্ট এরদোগান ট্রাম্পের চিঠি পেয়েছেন। কিন্তু তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন। চিঠিটি পড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা পাশে থাকা আবর্জনার স্তুপে ছুড়ে ফেলেন এরদোগান।

সিরিয়ার কুর্দিশ প্রধান অঞ্চল থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের মাধ্যমে তুর্কিশ অভিযানে সবুজ-সংকেত দিয়েছেন বলে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।

এরদোগানকে ট্রাম্প বলেন, অভিযান খুব বেশি হয়ে গেলে নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে তুরস্কের অর্থনীতি ধ্বংস করে দেয়া হবে।

চিঠিতে এরদোগানকে উপযোগী সিদ্ধান্ত নেওয়া আহ্বান জানিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, এ ব্যাপারে মানবিক দিক বিবেচনা করে ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিলে ইতিহাস আপনাকে ভালো হিসেবেই মনে রাখবে। আর যদি পরিণতি ভালো না হয়, তবে ইতিহাসে আপনি পরিচিত হবেন খলনায়ক হিসেবে।

গত ৯ অক্টোবর থেকে সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চল থেকে কুর্দি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে তুরস্ক। এ অভিযানে এখন পর্যন্ত শতাধিক মানুষ নিহত ও প্রায় তিন লাখের মতো মানুষ বাস্তুহারা হয়েছে বলে জানা গেছে। জাতিসংঘের মতে, এ অবস্থা চলতে থাকলে প্রায় সাড়ে চার লাখ মানুষ ঘরহারা হতে পারে।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech