বাংলাদেশে নয়, মালদ্বীপে পেঁয়াজ পাঠাবে ভারত

  

পিএনএস ডেস্ক:চলতি বছরের সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করে দেয় ভারত। কিন্তু এ অবস্থার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে মালদ্বীপে পেঁয়াজ রফতানি করছে ভারত। পেঁয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের জন্য এশিয়ার এ দেশটির ওপর সম্পূর্ণ নির্ভরশীল মালদ্বীপ।

টাইমস অব ইন্ডিয়া তাদের এক প্রতিবেদনে জানায়, দেশে পেঁয়াজের সংকট থাকা সত্ত্বেও মালদ্বীপে পেঁয়াজ রফতানি করবে ভারত। এতে পরিমাণেরও কোনও হেরফের হবে না। আগে দেশটিতে যে পরিমাণ পেঁয়াজ রফতানি হতো সেই পরিমাণই রফতানি করা হবে।

রোববার (১০ নভেম্বর) এক টুইট বার্তায় মালদ্বীপে নিযুক্ত ভারতীয় মিশন জানায়, আমরা আমাদের বন্ধু মালদ্বীপকে আশ্বস্ত করতে চাই যে, টানা দাম বৃদ্ধি ও দেশে এক লাখ টন পেঁয়াজের ঘাটতি থাকা সত্ত্বেও মালদ্বীপে পেঁয়াজ রফতানি করতে চায় ভারত।

ভারতে রান্নার নিত্য অনুষঙ্গ পেঁয়াজের ব্যাপক ঘাটতি রয়েছে। চাহিদা মেটাতে আফগানিস্তান, তুরস্ক, ইরান ও মিশর থেকে পেঁয়াজ আমদানি করতে হয় ভারতকে।

জানা গেছে, শুধু পেঁয়াজই নয়, সব ধরনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মালদ্বীপে রফতানি অব্যাহত রাখবে ভারত। চাহিদা মেটাতে এক লাখ টন পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন ভারতের খাদ্যমন্ত্রী রাম বিলাস পাসওয়ান।

উল্লেখ্য, ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত পেঁয়াজ রফতানি পুরোপুরি বন্ধ করে দেয় ভারত। তাতে বাংলাদেশের বাজারে হু হু করে বেড়ে যায় পেঁয়াজের দাম। কেজিপ্রতি পেঁয়াজ বর্তমানে ১৩০ থেকে ১৫০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech