উত্তাল ভারতে বিক্ষোভের ডাক জমিয়তের

  

পিএনএস ডেস্ক : বহুল আলোচিত ও বিতর্কিত ভারতের ‘নাগরিকত্ব সংশোধন বিল-ক্যাব’ লোকসভায় পাস হওয়ার পরই বিক্ষোভে উত্তাল গোটা ভারতে। মুসলিমবিরোধী এই বিলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ডাক দিয়েছে ভারতীয় মুসলমানদের সর্ববৃহৎ সংগঠন জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ।

দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ এই বিক্ষোভের ঘোষণা দিয়ে বিবৃতি দেন সংগঠনটির সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা সাইয়্যেদ মাহমুদ মাদানী।

মুসলিমবিরোধী বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল প্রত্যাখ্যান করে আগামী ১৩ ডিসেম্বর সব প্রাদেশিক ও বিভাগীয় ইউনিটকে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের নির্দেশনা প্রদান করেন তিনি।

বিবৃতিতে মাহমুদ মাদানী বলেন, নাগরিকত্ব আইন ১৯৫৫-এর সংশোধন অনুযায়ী ভারতীয় সংবিধানের মূল বিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এর প্রতিবাদে দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ভারতের সব প্রদেশ, জেলা ও গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় আগামী শুক্রবার শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ।

আপনার পূর্ণ শক্তি দিয়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলবেন বলে আশাবাদী জমিয়তে উলামা হিন্দের সভাপতি মাওলানা কারী সাইয়্যিদ মুহাম্মাদ উসমান মানসুরপুরী ও জেনারেল সেক্রেটারি মাওলানা সাইয়্যিদ মাহমুদ মাদানী।

এদিকে বিলটি পাস হওয়ার প্রতিবাদে আসামসহ ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। সোমবার লোকসভায় বিল পাসের একদিন পরই মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল থেকে ভারতের মুসলিম জনতা ও বিল বিরোধী সাধারণ জনগণ রাস্তায় নেমে এসেছে। আসামে বিক্ষোভ চরম আকার ধারণ করেছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে আসামের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয় বিক্ষোভ। রাস্তায় রাস্তায় অগ্নিসংযোগ করে প্রতিবাদ জানাচ্ছে বিক্ষোভকারীরা। আসামে লাগাতার বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে উত্তর-পূর্ব ছাত্র সংস্থা (নেসো)। পাস হওয়া বিলের বিরোধিতা করে নেসোর পক্ষ থেকে ১১ ঘণ্টার হরতাল ডাকা হয়েছে।

এর আগে মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর আইনটি সোমবার (৯ ডিসেম্বর) লোকসভায় তোলে ক্ষমতাসীন হিন্দু জাতীয়তাবাদী ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নেতৃত্বাধীন সরকার।বিক্ষোভের মুখেও আলোচিত ও বিতর্কিত বিলটি দেশটির লোকসভায় পাস হয়ে।

বিরোধীসহ সাধারণ মানুষের তীব্র সমালোচনার মুখে। মুসলিমবিরোধী এই বিলকে কেন্দ্র করে অনেকেই ইসরাইয়েলের সঙ্গে ভারতকে তুলনা করছে। বিশ্লেষকরা বলছে, দখলদ্বার ইসরাইয়ের পথ অনুসরণ করছে বন্ধু দেশ ভারত। ইসরায়েল যেভাবে ফিলিস্তিনিদের অধিকার কেরে নিয়ে ইহুদিদের জন্য নিরাপদ আশ্রয় করছে ঠিক এইভাবে বিজেপি দেখাতে চায় ভারত হিন্দুদের জন্য একটা স্থায়ী নিরাপদ আশ্রয়।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন