পশ্চিমবঙ্গে প্রতি জেলায় হচ্ছে করোনা হাসপাতাল

  

পিএনএস ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি জেলায় অন্তত একটি করে করোনাভাইরাস সংক্রমিত রোগীদের জন্য বিশেষায়িত হাসপাতাল তৈরির প্রক্রিয়া শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকার। সোমবার রাজ্যের সব জেলার প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

স্থানীয় ও ভারতীয় সংবাদমাধ্যমরে প্রতিবেদন অনুযায়ী, আজকের ওই বৈঠকে জেলার সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালগুলোর বর্তমান অবস্থা এবং সেগুলোকে কোভিডি-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত করতে নতুন করে কী কী প্রয়োজন হবে তা নিয়েই আলোচনা হয়েছে রাজ্য সরকার ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বৈঠকে রাজ্যের ৪০টি ‌‘সুপার স্পেশ্যালিটি’ হাসপাতালের বর্তমান পরিস্থিতির খোঁজ নেওয়া হয়। করোনা আক্রান্তদের সেবা দিতে বা কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরির ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা সেসব হাসপাতালে রয়েছে কিনা, তারও খোঁজ করা হয়। জেলায় জেলায় বিশেষায়িত হাসপাতাল নির্মাণের এই উদ্যোগ নিজে তদারকি করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

করোনা চিকিৎসার উপযোগী করে তুলতে হাসপাতালগুলিতে আর কি কি পরিকাঠামো প্রয়োজন, অবিলম্বে তার একটি তালিকা রাজ্য সরকারকে দেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ সরকারের স্বাস্থ্য সচিব। সেই তালিকা হাতে পাওয়ার পরই তার ওপর ভিত্তি করে কাজ শুরু হবে।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে পশ্চিমবঙ্গে এখন পর্যন্ত দুজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আক্রান্তদের সংখ্যাও বাড়ছে প্রতিনিয়ত। রাজ্যের মানুষের মধ্যে এ নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বাড়ছেই। আজ সোমবার শিলিগুড়ি জেলার নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনাভাইরাস সংক্রমিত এক রোগী মারা গেছেন। পশ্চিমবঙ্গে এখন পর্যন্ত ১৯ জনের দেহে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটির উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে।

পিএনএস/হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন