যে কারণে পাকিস্তানকে আর তেল দেবে না সৌদি!

  

পিএনএস ডেস্ক:মুসলিম দেশগুলোর সংগঠন অর্গানাইজেনশন অব ইসলামিক কো-অপারেশনে (ওআইসি) নিয়ে দ্বন্ধে এবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিলো সৌদি আরব। পাকিস্তানকে ঝণ সহায়তা হিসেবে সৌদি যে জ্বালানি তেল সরবরাহ করত তা বাতিল করা হয়েছে। সংস্থাটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের নিয়ে সৌদি বৈঠক না ডাকলে পাকিস্তান নিজেই বৈঠকের ডাক দেবে বলে হুমকি দেয়ার পরেই এমন পদক্ষেপ নিলো সৌদি সরকার।

২০১৮ সালে মন্দায় থাকা দেশকে বাঁচানের জন্য সৌদির কাছ থেকে ৬.২ বিলিয়ন ডলার ঋণ নেয় ইমরান খান সরকার। ওই ঋণের মধ্যে ৩.২ বিলিয়ন ডলার পাকিস্তানকে দেয়া হয় তেল হিসেবে। চার মাস আগে ওই ঋণের ১ বিলিয়ন ডলার সৌদিকে ফেরত দিয়েছে পাকিস্তান। তারপর গত দুই মাস হলো ওই ব্যবস্থার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এখন নতুন করে আর ওই পদ্ধতিতে ঋণ দিচ্ছে না সৌদি সরকার।

এদিকে বহুদিন ধরে কাশ্মীর নিয়ে কোনো আলোচনা করতে অস্বীকার করেছে ওআইসি। গত বছর কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের পর থেকে ওআইসিতে কাশ্মীরের বিষয়টি তোলার চেষ্টায় রয়েছে ইমরান খান সরকার। এ নিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে একটি প্রস্তাব পাস করাতে চাইছে পাকিস্তান। তুরস্কের এরদোয়ান সরকারের সঙ্গে ইমরান খানের সুসম্পর্ক খুব একটা ভালো চোখে দেখছে না সৌদি প্রশাসন। সাংবাদিক খাশোগী হত্যা নিয়ে তুরস্কের সাথে সৌদির সম্পর্ক চরম তিক্ততায় পৌছেছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন