ফিলিস্তিনে অবৈধ ইহুদি বসতির স্থাপনে ১০ কোটি ডলার দিয়েছেন চেলসি মালিক

  

পিএনএস ডেস্ক : ফাঁস হয়েছে রুশ ধনকুবের ও ইংলিশ ফুটবল ক্লাব চেলসির মালিক রোমান আব্রামোভিচের ইহুদিদের অর্থ সহায়তা দানের চাঞ্চল্যকর তথ্য।

পূর্ব জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের কাছ থেকে জবরদখল করা ভূমিতে ইহুদি বসতি স্থাপনের কাজ করে যাচ্ছে এমন একটি ইসরাইলি প্রতিষ্ঠানকে ১০ কোটি ডলার অর্থ সাহায্য দিয়েছেন তিনি।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসির আরবি বিভাগের এক অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য।

অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপনে কাজ করে যাওয়া ওই সংগঠনটির নাম এলাদ। এ পর্যন্ত পূর্ব জেরুজালেমে ৭৫টি বাড়িতে ইহুদি পরিবারের বসতি স্থাপন সম্পন্ন করেছে এলাদ।

আর এলাদের কার্যক্রমে আরও গতি দিতে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ১০ কোটি ডলার সহায়তা দিয়েছেন চেলসির মালিক রোমান আব্রামোভিচ।

এতো বছর ধরে এলাদের এই কার্যক্রমে অংশ নেয়া দাতব্য সংস্থাগুলোর পরিচয় অজ্ঞাত ছিল।

তবে সম্প্রতি ফাঁস হওয়া 'ফিনসেন ফাইলস' নামে ব্যাংকিংখাতের কিছু দলিলপত্রে ব্রিটিশ ভার্জিন আইল্যান্ডের (বিভিআই) চারটি দাতা কোম্পানির নাম এসেছে।

এসব দলিলপত্র ফাঁস করা হয়েছে বাজফিড নিউজের কাছে - যা তারা শেয়ার করেছে অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়াম এবং বিবিসির সঙ্গে।

এই সব দলিল পত্রে দেখা যায়, ওই এলাদকে অর্থ সহায়তা দেয়া ওই চারটি দাতা কোম্পানি রোমান আব্রামোভিচেরই।

এদের মধ্যে তিনটি কোম্পানির চূড়ান্ত মালিক হচ্ছেন আব্রামোভিচ। আর চতুর্থ কোম্পানিটিরও পরোক্ষভাবে তারই। তিনিই নিয়ন্ত্রণ করেন কোম্পানিটি।

এলাদের অ্যাকাউন্ট ঘেঁটে দেখা যায়, আব্রামোভিচের এই চার কোম্পানি তাদেরকে ১০ কোটি ডলারেরও বেশি অর্থ দান করেছে।

বিবিসি জানিয়েছে, পূর্ব জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের কাছ থেকে জবরদখল করা ওই এলাকার নাম সিলওয়ান। হিব্রু ভাষায় সিলওয়ানকে ইহুদিরা 'ইর ডেভিড' বলে ডাকে, যার অর্থ 'দাউদের (আঃ) এর শহর'।

আর এই দাউদের শহরে রয়েছে পুরাতাত্বিক আকর্ষণীয় বেশ কিছু স্থান। এসব স্থান দেখতে প্রতি বছর ১০ লাখেরও বেশি পর্যটক আসে। আর এই পর্যটনের লাভের পুরোভাগটাই ভোগ করে এলাদ।

এলাদের সাবেক বিপণন পরিচালক শাহার শিলো বিবিসিকে বলেন, সিটি অব ডেভিযে একটি ভিন্ন রাজনৈতিক বাস্তবতা সৃষ্টি করতে পর্যটনকে ব্যবহার করাই এলাদের কৌশল। আর এ কাজের অর্থায়নে এলাদ নির্ভর করে তার দাতাদের ওপর । এ পর্যন্ত চেলসির মালিক রোমান আব্রামোভিচের ওই চারটি কোম্পানি থেকে তারা এই সহায়তা পাচ্ছে।

এক কথায় গত ১৫ বছর ধরে এলাদকে এককভাবে সবচেয়ে বেশি অর্থ দান করেছেন রোমান আবামোভিচ।

ফিলিস্তিতে ইহুদি দখলদারীত্বে চেলসি মালিকের কী স্বার্থ?

সহজ ভাষায় এর জবাব, রুশ ধনকুবের রোমান আব্রামোভিচ ২০০৮ সালে ইসরাইলের নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন।

আব্রামোভিচের ইসরাইলপ্রীতির বিষয়ে তারই এক মুখপাত্র বিবিসিকে বলেছেন, মি. আব্রামোভিচ ইসরাযইলি এবং ইহুদি সুশীল সমাজের একজন নিবেদিতপ্রাণ ও উদার সমর্থক। গত ২০ বছরে তিনি স্বাস্থ্যসেবা, বিজ্ঞান, শিক্ষা এবং ইসরাইল ও বিশ্বের অন্যত্র ইহুদি কমিউনিটির জন্য ৫০ কোটি ডলারেরও বেশি দান করেছেন।

পিএনএস /জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন