বুধবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)

  

পিএনএস ডেস্ক : আগামীকাল বুধবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)। নবী দিবস। এটি মানবজাতির শিরোমণি। মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জন্ম ও ওফাত দিন।

৫৭০ খ্রিস্টাব্দের ১২ রবিউল আউয়াল মহানবী ইসলামের শেষ নবী হিসেবে আরবের মরু প্রান্তরে মা আমিনার কোল আলো করে জন্মগ্রহণ করেন এবং একই তারিখে তিনি ইন্তেকাল করেন।

একটা সময় গোটা আরব জাহান তমসার অন্ধকারে নিমজ্জিত ছিল। মানুষ হয়ে পড়েছিল বেদ্বীন। তারা আল্লাহকে ভুলে গিয়ে নানা অপকর্মে লিপ্ত হয়ে পড়েছিল। সর্বত্র দেখা দিয়েছিল অরাজকতা ও বিশৃঙ্খলা। এ যুগকে বলা হতো আইয়ামে জাহেলিয়াত। তখন মানুষ মারামারি আর হানাহানিতে লিপ্ত ছিল এবং মূর্তিপূজা করত।

এ থেকে মানুষকে মুক্তিসহ তাদের আলোর পথ দেখাতে মহান আল্লাহতায়ালা হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে এই ধরাধামে পাঠান।

মহানবী অতি অল্প বয়সেই আল্লাহর প্রেমে অনুরক্ত হয়ে পড়েন এবং প্রায়ই তিনি হেরা পর্বতের গুহায় ধ্যানমগ্ন থাকতেন। পঁচিশ বছর বয়সে মহানবী (সা.) বিবি খাদিজা নামে এক ধনাঢ্য মহিলার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। মাত্র ৪০ বছর বয়সে তিনি নবুয়াতপ্রাপ্ত হন। আল্লাহ তায়ালার নৈকট্য লাভ করেন।

পবিত্র কোরআন শরিফে বর্ণিত আছে, ‘মহানবীকে সৃষ্টি না করলে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন পৃথিবীকে সৃষ্টি করতেন না।’ এ কারণে এবং তৎকালীন আরব জাহানের বাস্তবতায় এ দিনের গুরুত্ব ও তাৎপর্য অনেক বেশি। বাংলাদেশসহ বিশ্ব মুসলিম সম্প্রদায় এ দিনটি ঈদে মিলাদুন্নবী হিসেবে পালন করে থাকে।

দিনটি উদযাপন উপলক্ষে বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- জশনে জুলুস (ধর্মীয় শোভাযাত্রা), আলোচনাসভা, হামদ ও নাতে রাসূল পরিবেশন, কোরআন তেলওয়াত ও মিলাদ মাহফিল।

এছাড়া পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশন মঙ্গলবার থেকে পক্ষকালব্যাপী নানা আয়োজন করছে। মঙ্গলবার এশার নামাজের পর ওয়াজ করবেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান ও ঢাকার মদিনাতুল উলুম কামিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আবদুর রাজ্জাক আল আযহারী।

২০ নভেম্বর থেকে ৪ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত প্রতিদিন মাগরিবের পর থেকে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব সাহানে ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। দেশবরেণ্য পীর-মাশায়েখ ও ওলামায়ে কেরাম মাহফিলে বয়ান করবেন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ বেতার যৌথভাবে ২১ থেকে ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী মহানবী (সা.)-এর জীবন ও কর্মের ওপর সেমিনার আয়োজন করবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম মিলনায়তনে আসরের পর অনুষ্ঠেয় ওই সেমিনার রেকর্ডিং করে বাংলাদেশ বেতার ‘ক’ কেন্দ্র থেকে প্রতিদিন রাত ১০টা ১৫ মিনিটে প্রচার করা হবে।

২০ নভেম্বর থেকে ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর সাহানে ইসলামি ক্যালিগ্রাফি, মহানবী (সা.)-এর জীবনীভিত্তিক পোস্টার ও বই প্রদর্শনী হবে। প্রতিদিন দুপুর দেড়টা থেকে রাত সাড়ে ৭টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য এ প্রদশর্নী খোলা থাকবে।

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ চত্বরে ২০ নভেম্বর থেকে মাসব্যাপী ইসলামি বইমেলা হবে। মেলায় কোরান-হাদিসসহ বিভিন্ন ইসলামি বই বিশেষ কমিশনে পাওয়া যাবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে।

স্কুল, কলেজ, আলিয়া ও কওমি মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রছাত্রী এবং অটিস্টিক ও বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীদের মাঝে ২৩ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ইসলামি সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম মিলনায়তন ও বায়তুল মোকাররম মসজিদের নারী নামাজকক্ষে অনুষ্ঠেয় ওই প্রতিযোগিতার বিষয়গুলো হচ্ছে ক্বিরাত, হামদ-নাত, কবিতা আবৃত্তি ও রচনা প্রতিযোগিতা।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech