'উচ্চ আদালতে নারী বিচারপতি নিয়োগে সচেষ্ট থাকবো'

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন জানিয়েছেন, উচ্চ আদালতে অধিক সংখ্যক নারী বিচারপতি নিয়োগে আমরা সচেষ্ট থাকবো। অধিকাংশ নারী বিচারক তাদের দায়িত্ব পালনে যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে। তাই জেলায় আবাসন বরাদ্দের ক্ষেত্রে নারী বিচারপতিদের অগ্রাধিকার দিতে সরকারের সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ করছি।

আজ শনিবার বাংলাদেশ মহিলা জাজ অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত প্রধান বিচারপতিকে দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ প্রতিশ্রুতি জানান।

সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে কর্মক্ষেত্র ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। তাছাড়া নারী যাতে কোনো ফতোয়ার বলি না হয় সে বিষয়ে সর্বোচ্চ আদালত যুগান্তকারী রায় দিয়েছে।

তিনি বলেন, স্বামী-স্ত্রী দুজনই বিচারক হলে তাদের একই কর্মস্থলে রাখার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে। সঙ্গত কারণে সেটা সম্ভব না হলে পার্শ্ববর্তী জেলায় পদায়ন করা হবে।

বিচার প্রশাসন ও প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউশনে অনুষ্ঠিত এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি বাংলাদেশের আইনসভায় স্পিকার পদে প্রথম নারী।

অনুষ্ঠানে স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরী বলেন, সংবিধান অনুযায়ী গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার জন্য এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য বিচার বিভাগ, নির্বাহী বিভাগ ও আইন বিভাগের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে।

স্পিকার বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে আসাই এক সময় নারীদের জন্য চ্যালেঞ্জ ছিল। সেই চ্যালেঞ্জ আজ বাংলাদেশের নারীরা উত্তরণ ঘটিয়েছে। আজকের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে, নারীর জন্য অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করা।

বাংলাদেশ মহিলা জাজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তানজিনা ইসমাইলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন সংগঠনটির উপদেষ্টা আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, হাই কোর্ট বিভাগের বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী, বিচারপতি জিনাত আরা।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech