কুমিল্লার মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হলো খালেদা জিয়াকে

  

পিএনএস ডেস্ক : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বাসে পেট্রোল বোমা হামলা চালিয়ে ৮ জনকে হত্যার অভিযোগে করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছে কুমিল্লার একটি আদালত।

রোববার দুপুরে কুমিল্লার ৫নং আমলী আদালতের বিচারক কুমিল্লার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাইন বিল্লাহ এ আদেশ দেন।

বাসে পেট্রোল বোমা হামলা করে ৮ জনকে হত্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার দেখানোর পর তার আইনজীবীরা খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন করলে শুনানির জন্য আদালত আগামী ১০ এপ্রিল দিন ধার্য করেন।

দেশজুড়ে ২০ দলীয় জোটের অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে একটি বাসে পেট্রোল বোমা ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। এতে আট যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান, আহত হন ২০ জন।

এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান বাদী হয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় ছয় নেতাকে হুকুমের আসামি করে মোট ৭৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ৭৭ জন আসামির মধ্যে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া মামলার চার্জশিট থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে পাঁচজনকে।

খালেদা জিয়াসহ ৬৯ জনের বিরুদ্ধে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক ফিরোজ হোসেন কুমিল্লার আদালতে চার্জশিট দাখিল করলে আদালত তা গ্রহণ করে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। এরই মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাবন্দি হলে কুমিল্লার মামলাতেও তাকে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

গত ১২ মার্চ আদালত ওই আবেদন গ্রহণ করে ২৮ মার্চ খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেয়। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ সেদিন তাকে হাজির না করায় আদালত কারা কর্তৃপক্ষকে কারণ দর্শানোর আদেশ দেয়।

সেই আদেশের জবাবে রোববার কারাকর্তৃপক্ষ আদালতকে জানায়, অসুস্থতার কারণে বিএনপি চেয়ারপারসনকে আদালতে হাজির করা যায়নি। পরে আদালত খালেদা জিয়াকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখালে তার আইনজীবীরা জামিন চেয়ে আবেদন করেন। সেই জামিন আবেদনের শুনানির জন্য আদালত আগামী মঙ্গলবার দিন ধার্য করেন।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech