যুবক হত্যায় ভাই ও তিন মামার ফাঁসি, খুশি মা!

  

পিএনএস ডেস্ক : মাদারীপুরের শিবচরে জমি আত্মসাতের উদ্দেশে সোহেল মল্লিক (২৫) নামের এক যুবককে হত্যার দায়ে তাঁর ভাই ও আপন তিন মামার মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার দুপুরে মাদারীপুরের জেলা ও দায়রা জজ শরীফ উদ্দিন আহমেদ এই রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন নিহত সোহেল মল্লিকের সৎ ভাই আল-আমিন ও আপন তিন মামা শাহিন হাওলাদার, মিজান হাওলাদার ও খালেক হাওলাদার। আল-আমিন সোহেল মল্লিকের মা হেলেনা আক্তারের অন্য পক্ষের সন্তান। আল-আমিন গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি থানার ছোটরকান্দি গ্রামের বাসিন্দা। শাহিন হাওলাদার, মিজান হাওলাদার ও খালেক হাওলাদার শিবচর উপজেলার যাদুয়ারচর গ্রামের মৃত গফুর হাওলাদারের ছেলে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৩ সালের ৮ আগস্ট রাতে শিবচর উপজেলার যাদুয়ারচর গ্রামের বাড়িতে ঘুমন্ত অবস্থায় সোহেল মল্লিককে হত্যা করেন আসামিরা। এ ঘটনায় শিবচর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন সোহেলের বাবা ছিদ্দিক মল্লিক। দীর্ঘ তদন্ত শেষে উপযুক্ত সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত এই রায় দেন।

নিহত সোহেল মল্লিকের মা বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখার সিনিয়র সহসভাপতি হেলেনা আক্তার আদালতে রায়ের পরে বলেন, ‘আমার এক ছেলেকে হত্যায় অন্য ছেলের ফাঁসির আদেশ হয়েছে। আমি আজ দুই ছেলেকেই হারালাম। সঙ্গে আপন তিন ভাইয়েরও ফাঁসির আদেশ হয়েছে। কিন্তু তবুও আমি খুশি, কারণ হত্যাকারীর ফাঁসির আদেশ হয়েছে, আমার খুন হওয়া ছেলে ন্যায় বিচার পেয়েছে।’

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) ও আওয়ামী লীগ নেতা এমরান লতিফ বলেন, ‘হত্যা মামলায় এই সুষ্ঠু ও দীর্ঘ তদন্তের পর ন্যায় বিচারের রায় হয়েছে। এতে রাষ্ট্রপক্ষ খুশি। তবে মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা পলাতক থাকায় তাদের অনুপস্থিতিতেই বিচারকার্য সম্পন্ন হয়েছে।’

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech