আজ খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে রায়

  

পিএনএস ডেস্ক:জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন প্রশ্নে আনা আপিলের ওপর আজ বুধবার রায় ঘোষণা করা হবে।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগ উভয় পক্ষের শুনানি শেষে রায়ের জন্য এ দিন ধার্য করে মঙ্গলবার এ আদেশ দেয়।

এর আগে গত ৯ মে বিষয়টি নিয়ে শুনানি শেষে মঙ্গলবার রায় ঘোষণার জন্য দিন ধার্য ছিল। মঙ্গলবার বিষয়টি নিয়ে রাষ্ট্রপক্ষে এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতের অনুমতি সাপেক্ষে আবারো শুনানি করেন। তার বক্তব্যের পর খালেদা জিয়ার পক্ষে সিনিয়র এডভোকেট জয়নুল আবেদীন শুনানি করেন।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার ৫ বছর কারাদণ্ড দিয়ে রায় দেয় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫। একই সঙ্গে খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ অপর পাঁচ আসামিকে ১০ বছর করে দণ্ড দেয়া হয়। একই সঙ্গে অর্থদণ্ডও দেয়া হয়।

রায় ঘোষণার পর ১৯ ফেব্রুয়ারি রায়ের সার্টিফায়েড কপি হাতে পান খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এরপর আপিল করেন খালেদা জিয়া। আদালত আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ (এডমিট) করে। এছাড়াও জামিন আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে গত ১২ মার্চ খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দেয় হাইকোর্ট। হাইকোর্টের দেয়া ওই জামিন স্থগিত চেয়ে পরদিন ১৩ মার্চ আপিল বিভাগে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদক। এরপর ১৪ মার্চ আপিল বিভাগ রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদককে জামিনের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে) দায়ের করতে বলে জামিন স্থগিত করেন। এ আদেশ অনুসারে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদক লিভ টু আপিল দায়ের করেন। এ লিভ টু আপিলের ওপর শুনানি হয় গত ১৮ মার্চ। ১৯ মার্চ আদালত “লিভ টু আপিল” মঞ্জুর করে। আদেশে রাষ্ট্রপক্ষ এবং দুদককে দুই সপ্তাহের মধ্যে আপিলের সার-সংক্ষেপ জমা দিতে বলা হয়। একইসঙ্গে এ আপিল শুনানির জন্য তারিখ নির্ধারণ করে গত ৮ মে শুনানির জন্য দিন ঠিক করেন আপিল বিভাগ এবং এই আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত হাইকোর্টের জামিন আদেশ স্থগিত করা হয়।

গত ৮ এপ্রিল আপিলের সারসংক্ষেপ দাখিল করে দুদক। ৮ ও ৯ মে বিষয়টির ওপর শুনানি হয়।

সাজার রায়ের পর রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে কারাবন্দি থেকে দণ্ড ভোগ করছেন বেগম খালেদা জিয়া।

দুদক কৌসুলি খুরশীদ আলম খান বলেন, আপিল শুনানিতে খালেদা জিয়ার জামিনের বিরুদ্ধে প্রত্যকটি যুক্তি সুস্পষ্টভাবে আইনি ব্যাখ্যা দিয়ে আদালতে তুলে ধরা হয়েছে। হাইকোর্ট যেসব যুক্তিতে বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দিয়েছেন সেই যুক্তিগুলো খন্ডন করেছি। এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমও শুনানিতে খালেদা জিয়ার জামিন বাতিলে যুক্তি তুলে ধরেন। তিনি খালেদা জিয়ার জামিন বাতিল করে হাইকোর্টে আপিল শুনানির জন্য আর্জি জানান। অপরদিকে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা জামিন বহালের পক্ষে তাদের যুক্তি তুলে ধরেন।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech