চট্টগ্রাম ওয়াসার পানি পরীক্ষার নির্দেশ

  

পিএনএস ডেস্ক : জন্ডিসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার প্রেক্ষাপটে চট্টগ্রামের হালিশহর ও আগ্রাবাদ এলাকার ওয়াসার পানিতে হেপাটাইটিস-ই ভাইরাস আছে কি না, তা পরীক্ষা করে তিন মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে স্বাস্থ্যসচিবকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ রোববার রুলসহ এ আদেশ দেন। রুলে ওখানে জন্ডিসে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তির পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, জানতে চাওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রামের হালিশহর, আগ্রাবাদ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় জন্ডিসের প্রাদুর্ভাব নিয়ে তিনটি পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে ২ জুন রিটটি করেন হালিশহরের বাসিন্দা ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মহিউদ্দিন মো. হানিফ। আদালতে আবেদনের পক্ষে মহিউদ্দিন মো. হানিফ নিজেই শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল পূরবী রানী শর্মা ও পূরবী সাহা।

পরে আইনজীবী মহিউদ্দিন মো. হানিফ বলেন, আদালত জন্ডিসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়া হালিশহর ও আগ্রাবাদ এলাকার ওয়াসার পানিতে হেপাটাইটিস-ই ভাইরাস আছে কি না, তা পরীক্ষায় ৩০ দিনের মধ্যে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করতে স্বাস্থ্যসচিবকে নির্দেশ দিয়েছেন। কমিটিতে স্থানীয় প্রশাসনের দুজন এবং তিনজন বিশেষজ্ঞ রাখতে বলা হয়েছে। কমিটির প্রতিবেদন ৯০ দিনের মধ্যে আদালতে দাখিল করতে স্বাস্থ্যসচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগামী ১৮ অক্টোবর পরবর্তী আদেশের জন্য দিন রেখেছেন আদালত।

রুলে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বাসিন্দাদের জীবন রক্ষায় ব্যাকটেরিয়ামুক্ত পানি সরবরাহে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না এবং নিরাপদ পানি সরবরাহের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, রুলে তা-ও জানতে চাওয়া হয়েছে বলে জানান রিট আবেদনকারী আইনজীবী।

স্বাস্থ্যসচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, চট্টগ্রাম ওয়াসার চেয়ারম্যান, চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ও প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech