খালেদা জিয়ার জামিন ১৩ আগস্ট পর্যন্ত - আইন-আদালত - Premier News Syndicate Limited (PNS)

খালেদা জিয়ার জামিন ১৩ আগস্ট পর্যন্ত

  

পিএনএস ডেস্ক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ আগামী ১৩ আগস্ট পর্যন্ত বাড়িয়েছেন হাইকোর্ট।

একই সাথে এ মামলায় খালাস চেয়ে তার আপিল এবং দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিলের শুনানি আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত মুলতবি রেখেছেন আদালত।

আজ বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো: মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী আব্দুর রেজাক খান ও এ জে মোহাম্মদ আলী। তাদের সাথে ছিলেন অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম।

শুনানির সময় খালেদা জিয়ার পক্ষে আরো উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, আমিনুল হক, মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, জয়নুল আবেদীন, আমিনুল ইসলাম, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, বদরোদ্দোজা বাদল, কায়সার কামাল, রাগীব রউফ চৌধুরী, ব্যারিস্টার মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন, মো: ফারুক হোসেন, আনিছুর রহমান খান, আইয়ুব আলী আশরাফী, মির্জা আল মাহমুদ, সালমা সুলতানা সোমা, ফাইয়াজ জিবরান প্রমুখ।

মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ের পাঁচ মাসের মাথায় গত ১২ জুলাই হাইকোর্টে করা এ আপিলের ওপর শুনানি শুরু হয়।
এই মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করেন বিচারিক আদালত। এরপর থেকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন তিনি।

ওই সাজার বিরুদ্ধে আপিল করে জামিন আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১২ মার্চ হাইকোর্ট থেকে চার মাসের জামিন পান তিনি, যা আপিল বিভাগে বহাল থাকে। ওই জামিনের মেয়াদ বাড়াতে করা এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ১২ জুলাই খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ ১৯ জুলাই পর্যন্ত বৃদ্ধি করেন হাইকোর্ট। এরপর ২৬ জুলাই পর্যন্ত জামিন বাড়ানো হয়, আবার জামিনের মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ জুলাই করা হয়। আবারও তার জামিনের মেয়াদ ৮ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এখন আগামী ১৩ আগস্ট পর্যন্ত জামিনের মেয়াদ বাড়ানো হলো। তবে অন্য মামলা থাকায় তিনি কারামুক্তি পাননি।

খালেদা জিয়াকে ১২ মার্চ হাইকোর্টের দেয়া চার মাসের জামিনের বিরুদ্ধে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech