সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবীদের অপেক্ষা

  




পিএনএস ডেস্ক: দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিতে (সুপ্রিম কোর্ট বার) দুই দিনব্যাপী নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনায় ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবীরা। নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষে এখন চলছে গণনা। বৃহস্পতিবার রাত ১১টা থেকে ভোট গণনা শুরু হয়েছে। এরপর ফলাফল। এখন অপেক্ষা কার ওপর বর্তাবে ৯ হাজার আইনজীবীর নেতৃত্ব।

বুধবার শুরু হয় প্রথম দিনের ভোটগ্রহণ। এদিন ভোট দেন দুই হাজার ৯৭০ জন আইনজীবী। এরপর বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দ্বিতীয় দিন দুই হাজার ৮৫১ জন আইনজীবী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

পরপর দুইদিন (বুধ ও বৃহস্পতিবার) সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। মোট ৪৪টি বুথে আইনজীবীরা তাদের ভোট প্রদান করেন।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সিনিয়র সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজী জয়নাল আবেদীন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাত ১১টা দিকে ভোট গণনা শুরু হয়েছে। ভোট গণনা শেষ করার পরই ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির অন্যতম সদস্য অ্যাডভোকেট কাজী জয়নাল আবেদীন বলেন, দুপুরে এক ঘণ্টা বিরতি দিয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও ভোটারদের লাইন শেষ না হওয়ায় ৩০ মিনিট সময় বাড়ানো হয়েছিল। নির্বাচন নিয়ে কোনো ধরনের অভিযোগে ওঠেনি।

এদিকে নির্বাচনে জয়লাভের বিষয়ে আওয়ামী লীগপন্থী নারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট জেসমিন সুলতানা বলেন, আমরা পুরো প্যানেলে বিজয়ী হব ইনশাআল্লাহ।

অন্যদিকে বিএনপিপন্থী আইনজীবী ফাহিমা নাসরিন মুন্নি বলেন, নীল প্যানেল পুরো টিম নিয়ে জয়ী হবে।

সাদা প্যানেল
সাদা প্যানেলে সভাপতি পদে প্রতিন্দ্বন্দ্বিতা করছেন আবু মোহাম্মদ আমিন উদ্দিন (এএম আমিন উদ্দিন)। সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট আব্দুন নূর দুলাল, সহ-সভাপতি পদে বিভাস চন্দ্র বিশ্বাস ও মো. জসিম উদ্দিন, ট্রেজারার (অর্থ সম্পাদক) পদে সৈয়দ আলম টিপু, সহ-সম্পাদক পদে বাসির উদ্দিন ভূঁইয়া এবং কাজী শামসুল হাসান শুভ।

এছাড়া সদস্য রয়েছেন পদে আফিফা আফরোজ রানী, চঞ্চল কুমার বিশ্বাস, হুমায়ূন কবির, মো.শামীম সরদার, মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন, মোহাম্মদ মশিউর রহমান ও মোহাম্মদ জোগলুল কবির।

নীল প্যানেল
নীল প্যানেল থেকে সভাপতি হিসেবে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল জামিল (এ জে) মোহাম্মদ আলী এবং সম্পাদক পদে বর্তমান সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহাবুব উদ্দিন খোকন প্রার্থী হয়েছেন।

সহ-সভাপতি পদে মো. আব্দুল জব্বার ভূঁইয়া এবং আব্দুল বাতেন, কোষাধ্যক্ষ পদে মো. ইমাম হোসেন, সহ-সম্পাদক পদে মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান এবং শরীফ ইউ আহম্মেদ (শরীফ উদ্দিন আহমেদ)।

সদস্য পদে রয়েছেন অ্যাডভোকেট রাশিদা আলিম ঐশী, মোহাম্মদ ওসমান চৌধুরী, কাজী আখতার হোসেন, মো. শাফিউর রহমান, মো. শাইফ উদ্দিন, মো. মোহাদ্দেস উল ইসলাম (টুটুল) ও সৈয়দা শাহীন আরা লাইলী।

স্বতন্ত্র প্রার্থী যারা

সাদা ও নীল এই দুই প্যানেল ছাড়াও বাইরে থেকে স্বতন্ত্র সভাপতি প্রার্থী রয়েছেন এবিএম ওয়ালিউর রহমান খান ও ড. মো. ইউনুছ আলী আকন্দ, সম্পাদক পদে মনির হোসেন, সহ-সম্পাদক পদে ফরহাদ উদ্দিন আহমেদ ভুইয়া ও সদস্য পদে তপন কুমার দাস।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech